বুধবার, আগস্ট ১৭, ২০২২

রাগের চোটে ছেলেকে কুড়ুল দিয়ে কাটলেন বাবা

প্রকাশিত:

সম্প্রতি গুজরাটের নভসারি জেলার এক দিনমজুর তাঁর নিজের ঘুমন্ত ছেলেকে কুড়ুল দিয়ে কুপিয়ে কয়েক টুকরো করে ফেললেন। কারণ, বাবার নাকি অনেকদিন আগেই সন্দেহ হয়েছিল, তাঁর ছেলে তাঁর পকেট থেকে প্রায়ই টাকা চুরি করে এবং তার থেকেও বড় কথা, মাঝরাতে হিসি পেলেই বাথরুমে না গিয়ে, ঘরের সামনের ফুলের টবেই প্রস্রাব করে। তাই তিনি রেগে গিয়ে তাঁর দশম শ্রেণির পড়ুয়া ছেলেকে কুড়ুল দিয়ে একের পর এক কোপ মেরে খুন করেছেন।

মৃতের মায়ের নাম চঞ্চলবেন প্যাটেল। তিনি নভসারি জেলার খেরগাম থানায় অভিযোগ দায়ের করেছেন, সকাল ৬টা নাগাদ তিনি রান্নাঘরে রান্না করছিলেন। সেই সময় তাঁর স্বামী জেগে থাকলেও বিছানাতেই শুয়ে ছিলেন।
তাঁদের ১৯ বছরের ছেলে সাহিল তাঁর পাশেই ঘুমোচ্ছিল। হঠাৎ তিনি ঘর থেকে বিকট আর্তনাদ শুনতে পান। দৌড়ে গিয়ে দেখেন, তাঁর ছেলের শরীর রক্তে ভেসে যাচ্ছে। তাঁর স্বামীর হাতে কুড়ুল এবং সেই কুড়ুল দিয়ে কাঠ কাটার মতো তিনি তাঁর ছেলের গলায় একের পর এক কোপ মারছেন।

এই দৃশ্য দেখে তিনি স্বামীকে থামানোর জন্য স্বামীর উপরে ঝাঁপিয়ে পড়েন। কিন্তু তাতেও তিনি ক্ষান্ত না হওয়ায় উন্মাদের মতো দৌড়ে বাড়ির বাইরে গিয়ে চিৎকার করে লোক জড়ো করতে থাকেন। ছুটে আসেন পাড়া প্রতিবেশীরা। অ্যাম্বুলেন্সও ছুটে আসে ফোন করা মাত্রই। সঙ্গে সঙ্গে হাসপাতালে নিয়ে গেলেও চিকিত্‍সকরা সাহিলকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।
পাশাপাশি মৃতের মা আরও জানান, ছেলেকে হত্যার পর তাঁর স্বামী মেঝেতে চুপ করে বসেছিলেন। কোনও কথার উত্তর দিচ্ছিলেন না। তার পর পুলিশের কাছে তিনি বলেছেন, ছেলে টবে প্রস্রাব করেছিল বলে তিনি অত্যন্ত রেগে যান। আর সেই রাগের চোটেই তিনি হিতাহিতজ্ঞানশূন্য হয়ে এই হত্যাকাণ্ডটিই ঘটিয়ে ফেলেছেন।#

সিদ্ধার্থ সিংহ
সিদ্ধার্থ সিংহ
২০২০ সালে 'সাহিত্য সম্রাট' উপাধিতে সম্মানিত এবং ২০১২ সালে 'বঙ্গ শিরোমণি' সম্মানে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহের জন্ম কলকাতায়। আনন্দবাজার পত্রিকার পশ্চিমবঙ্গ শিশু সাহিত্য সংসদ পুরস্কার, স্বর্ণকলম পুরস্কার, সময়ের শব্দ আন্তরিক কলম, শান্তিরত্ন পুরস্কার, কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত পুরস্কার, কাঞ্চন সাহিত্য পুরস্কার, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা লোক সাহিত্য পুরস্কার, প্রসাদ পুরস্কার, সামসুল হক পুরস্কার, সুচিত্রা ভট্টাচার্য স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, অণু সাহিত্য পুরস্কার, কাস্তেকবি দিনেশ দাস স্মৃতি পুরস্কার, শিলালিপি সাহিত্য পুরস্কার, চেখ সাহিত্য পুরস্কার, মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার ছাড়াও ছোট-বড় অজস্র পুরস্কার ও সম্মাননা। পেয়েছেন ১৪০৬ সালের 'শ্রেষ্ঠ কবি' এবং ১৪১৮ সালের 'শ্রেষ্ঠ গল্পকার'-এর শিরোপা সহ অসংখ্য পুরস্কার। এছাড়াও আনন্দ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত তাঁর 'পঞ্চাশটি গল্প' গ্রন্থটির জন্য তাঁর নাম সম্প্রতি 'সৃজনী ভারত সাহিত্য পুরস্কার' প্রাপক হিসেবে ঘোষিত হয়েছে।

Share post:

Subscribe

সর্বাধিক পঠিত

আরো পড়ুন
সম্পর্কিত

জন্মনিবন্ধনে আর লাগবে না মা-বাবার সনদ

এখন থেকে জন্মনিবন্ধন করতে মা-বাবার জন্মসনদ আর লাগবে না।...

জীবন্ত সেতুর দেশে

বর্ষার মৌসুম। সন্ধ্যা হতেই সুড়সুড় করে ঘরে ঢুকে পড়ছে...

কবি স্বাগতা ভট্টাচার্যের ছয়টি কবিতা

মায়ের আঁচল মায়ের যত্নে আঁকা নজর ফোঁটা,কপালে চাঁদ হয়ে ভাসতো...

টিপু-প্রীতি হত্যা: সেই বাইক-পিস্তলসহ গ্রেপ্তার আরও ৫

রাজধানীর মতিঝিলে আওয়ামী লীগ নেতা জাহিদুল ইসলাম টিপু ও...
লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।