শনিবার, ডিসেম্বর ৩, ২০২২

সাময়িকী – নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা

সাময়িকী বাংলা ভাষায় প্রকাশিত সংবাদ, রাজনীতি, সমাজ ও সংস্কৃতি, প্রতিবেদন, বিশ্লেষণ এবং বিতর্কের একটি স্বাধীন, নির্দলীয় এবং অলাভজনক প্রকাশনা মাধ্যম। জনস্বার্থে সাংবাদিকতা অর্জনের লক্ষ্যে ২০১৪ সালের জানুয়ারি মাসে সাময়িকীর যাত্রা শুরু হয়। বাংলা ভাষা পৃথিবীর অন্যতম বহুল চর্চিত ভাষা সমূহের মধ্যে অন্যতম, আর সাময়িকীর প্রধানত এবং প্রথমত প্রত্যাশিত পাঠকেরা হলেন দেশ বিদেশের সকল বাংলা ভাষাভাষী ব্যক্তিবর্গ। তবে সাময়িকী আন্তর্জাতিক অঙ্গনের পাঠকদের গুরুত্ব দিয়ে সম্মুখে অগ্রসর হচ্ছে।

ক্রমবর্ধমান কমিউনিটি

প্রতিদিন যুক্ত হচ্ছেন নতুন লেখক

ব্যবহারকারী বান্ধব

১০০% ব্যবহারকারী বান্ধব ইন্টারফেস

লক্ষ্য এবং মূল্যবোধ

সাময়িকী আপন উদ্দেশ্য এবং লক্ষ্য বাস্তবায়নের দৃঢ় প্রতিজ্ঞ।

বাকস্বাধীনতা

বাকস্বাধীনতা প্রতিষ্ঠার লক্ষ্যে মুক্তমত প্রকাশের মাধ্যম হিসেবে কাজ করা

সমঅধিকার

সামাজিক ও ধর্মীয় পরিচয়, এবং লিঙ্গবৈষম্য ভেদে সদস্যদের সমঅধিকার নিশ্চিত করা

বাংলা ভাষা

ইন্টারনেট মাধ্যমে বাংলা ভাষার চর্চা এবং বিকাশে অবদান রাখা

সাময়িকী সূর্য

সম্প্রদায়

বাংলা ভাষা ভাষী লেখক এবং পাঠক সম্প্রদায় গড়ে তোলা

সুযোগের স্বাধীনতা

সকলেরই সৃজনশীলতা প্রকাশের অধিকার রয়েছে, তাই সাময়িকী সকলের জন্য উন্মুক্ত

দায়িত্বশীলতা

সম্পাদক মন্ডলী অত্যন্ত যত্ন এবং দায়িত্বশীলতার সাথে কর্ম সম্পাদনা করে

পরিচালনা পরিষদ

সাময়িকী পরিচালনা পরিষদ এবং সম্পাদক মণ্ডলী যারা নিবেদিত ভাবে সময় এবং শ্রম দিয়ে এগিয়ে নিয়ে চলছেন, আপনার জন্য একটি উৎকৃষ্ট গণমাধ্যম নির্মাণে।

আরিফুর রহমান

প্রতিষ্ঠাতা এবং প্রকাশক

ভায়োলেট হালদার

প্রধান সম্পাদক

মুর্শিদা জামান

যুগ্ন সম্পাদক

আফসানা হোসেন

ব্যবস্থাপনা সম্পাদক

লিটন রাকিব

অনুষ্ঠান সঞ্চালক

তামান্না ঝুমু

উন্নয়ন পরামর্শক

আনিসুর রহমান

উন্নয়ন পরামর্শক

আপনার নাম

আপনার পদবি

বিশ্বব্যাপী বাংলা ভাষায়

সাময়িকী বিশ্বব্যাপী; অর্থাৎ লেখক ও পাঠককূল কোন নির্দিষ্ট দেশের কাঁটাতারের মধ্যে সীমাবদ্ধ নয়। পৃথিবীর যে কোনো দেশ থেকে এবং যে কোনো স্থান থেকে সাময়িকী পড়া যায়। প্রতিমাসে প্রায় একশত দেশ থেকে সাময়িকী পড়া হয়ে থাকে।

যাত্রা শুরু

জানুয়ারী ২০১৪

সাহসিকতার

৮+ বছর

নিবন্ধিত লেখক

৩০০+ জন

প্রকাশিত হয়েছে

১০,০০০+ নিবন্ধ

কথকতা

সাময়িকী সম্পর্কে সাময়িকীর লেখক এবং শুভানুধ্যায়ীদের অনুপ্রেরণা সাময়িকীর পথ চলার পাথেয়। নির্বাচিত কিছু প্রশংসা বাক্য এখানে প্রকাশ করা হলো। সাময়িকী সম্পর্কে আপনার অভিজ্ঞতা আমাদের লিখুন, নির্বাচিত হলে প্রকাশিত হবে।

‘সাময়িকী’ নামের অনলাইন পত্রিকাটি দীর্ঘ বছর ধরে বিদেশের মাটি নরওয়ে থেকে আমাদের নিকট নিয়মিত সংবাদ, তত্ত্ব-তথ্য পৌঁছে দিচ্ছে। বাংলার মাটিতে বসে আমাদের মতো সাধারণ জনগণ পত্রিকাটির নিকট থেকে নিয়মিত বিশ্বসংবাদ-সাহিত্য-সংস্কৃতি এবং নানা খবরাখবর পাওয়ায় পত্রিকাটি নিয়ে আমরা গর্বিত এবং আনন্দিত। একইভাবে পত্রিকাটি আমাকে বিশ্বের সঙ্গে সংযোগ স্থাপন করিয়ে দিয়ে আমাকে একজন বিশ্বনাগরিক করে তুলতে সাহায্য করছে।

ড. কাজী মোজাম্মেল হোসেন

লেখক, চিত্রশিল্পী ও গবেষক, বাংলাদেশ

বহু সংখ্যক ই-পত্রিকার মধ্যে ‘সাময়িকী’ এক উল্লেখযোগ্য নাম। দেশ বিদেশের খবর সহ আন্তর্জাতিক বাংলা পত্রিকা। সংবাদপত্র শুধু নয়, সাহিত্য পত্রিকাও। প্রথমত, লেখা প্রকাশে তাঁরা তৎপর, কখনই বিলম্ব করেন না, লেখকের সৃষ্টিকে সম্মান করেন। সব মিলিয়ে লেখক এবং তাঁর সৃষ্টির প্রতি শ্রদ্ধাশীল সাময়িকীর সম্পাদক মণ্ডলী। পত্রিকার শ্রীবৃদ্ধি কামনা করি।

ড. সৌমিত্র কুমার চৌধুরী

লেখক ও গবেষক, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

সাময়িকী নরওয়ে থেকে বাংলা ভাষাকে বিশ্বদরবারে ছড়িয়ে দেওয়ার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। তাঁদের আগ্রহ-একাগ্রতা সর্বোপরি দক্ষতা মুগ্ধ করে আমাকে। সাময়িকীতে ধারাবাহিকভাবে প্রকাশিত হয়েছে আমার উপন্যাস, প্রকাশিত হয়েছে আমার গল্প-প্রবন্ধ। বেশ সাড়া পেয়েছি আমি। শত প্রতিকূলতার মাঝেও তাঁরা নিজেদের এই সৃজন কাজ চালিয়ে যাবেন, বিশ্বাস আমার।

ড. মোহিত কামাল

সম্পাদক, শব্দঘর, বাংলাদেশ

একজন শিল্পী বা সাহিত্যিক বা একজন কবি সব সময়ই চায় যে তাঁর সৃষ্টকর্ম পৃথিবীর বিভিন্ন মানুষের কাছে পৌঁছে যাক। আর সাময়িকীর মাধ্যমে শুধু আমার নয় সাময়িকীর সঙ্গে যারা যুক্ত আছে, সাময়িকীতে যারা লিখছে, তাদের প্রত্যেকের সাহিত্য সৃষ্টি পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে, বিভিন্ন মানুষের কাছে পৌঁছে যাচ্ছে। এটি একজন সাহিত্যিক বা কবি হিসেবে, যেকোন মানুষের কাছেই একটা পরম প্রাপ্তি।

রঞ্জনা রায়

কবি, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

আজকের দিনে পৃথিবীর সকল প্রান্ত থেকেই, ই-ম্যাগাজিন বের হচ্ছে, এর মধ্যে আমি প্রায় অনেক গুলোতেই লিখেছি, এর মধ্যে সাময়িকীর স্বাদ একটু আলাদা। কারণ লেখা প্রকাশিত হলেই সাময়িকী থেকে ইমেইলে লিংক পাঠিয়ে জানানো হয়। সাময়িকীর কাজ অনেক স্বচ্ছ এবং সুন্দর। সাহিত্য এবং সংস্কৃতি সাময়িকী যেভাবে তুলে ধরছে, তা ই-পত্রিকার জগতে অনেক বড় অবদান বলে আমি মনে করি।

সুদীপ্ত বিশ্বাস

কবি, পশ্চিমবঙ্গ, ভারত

সাময়িকীতে যোগ দিন

সাময়িকী একটি উন্মুক্ত প্রকাশনা মাধ্যম। এখানে যে কেউ লেখা প্রকাশের জন্য জমা দিতে পারে। এবং পাঠক হিসেবে যে কেউ পড়তে পারে।

লেখক

নবীন-প্রবীণ সকল লেখকের লেখা প্রকাশে সাময়িকী বদ্ধপরিকর। নিম্নোক্ত শর্তাবলী পূরণ করলেই আপনার লেখা সাময়িকীতে প্রকাশের যোগ্যতা পাবে

প্রথমত, আপনার লেখক নামটি বাংলা বর্ণে লিখতে হবে।
দ্বিতীয়ত, আপনার রচনাটি সম্পূর্ণ বাংলা বর্ণে লিখে প্রকাশের জন্য জমা দিতে হবে।

তাহলে, আর দেরি কেন?

পাঠক

পাঠকই সাময়িকীর প্রাণ। পাঠকদের জন্যই সাময়িকীর সকল আয়োজন। পাঠক হিসেবে আপনি নিম্নোক্ত পদক্ষেপ গুলি নিতে পারেন,

১. গুগল নিউজে অনুসরণ করতে পারেন,
২. টুইটারে অনুসরণ করতে পারেন,
৩. ফেসবুকে অনুসরণ করতে পারেন,

অথবা নিতে পারেন,

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।