4.8 C
Drøbak
শনিবার, জানুয়ারী ২৯, ২০২২
প্রথম পাতাখেলাধুলাচট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেটে হারল বাংলাদেশ

চট্টগ্রাম টেস্টে ৮ উইকেটে হারল বাংলাদেশ

চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত দুই ম্যাচ সিরিজের প্রথম টেস্টে পাকিস্তানের কাছে ৮ উইকেটের বড় ব্যবধানে হারল বাংলাদেশ দল। স্বাগতিকদের দেয়া ২০২ রানে জবাবে ব্যাট করতে নেমে জোড়া ফিফটির সুবাদে সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় সফরকারীরা। এ জয়ের ফলে সিরিজে ১-০ ব্যবধানে এগিয়ে গেল বাবর আজম বাহিনী।

রান তাড়া করতে নেমে চতুর্থ দিনের শেষ বিকেলে বিনা উইকেটে ১০৯ রান সংগ্রহ করে পাকিস্তান। ফলে পঞ্চম এবং শেষদিনের খেলায় ১০ উইকেট হাত রেখে মাত্র ৯৩ রানের দরকার পড়ে সফরকারীদের। দুই ওপেনার আব্দুল্লাহ শফিক এবং আবিদ আলির ১৫১ রানের জুটিতে সহজ জয়ের দিকেই এগোতে থাকে পাকিস্তান। দুজনই ব্যক্তিগত অর্ধশতক পূর্ণ করেন।

বাংলাদেশি স্পিনার মেহেদি হাসান মিরাজের করা শেষ দিনের দশম ওভারের পঞ্চম বলে এলবিডব্লিউর ফাঁদে পড়েন শফিক। রিভিউ নিয়েও কাজে আসেনি। আউট হওওয়ার আগে করেছেন ৭৩ রান। শফিক আউট হওয়ার পর সাজঘরে ফেরেন আবিদ আলিও। তাইজুল ইসলামের বলে এলবিডব্লিউ হয়ে আউট হন ব্যক্তিগত ৯১ রানে। ১৪৮ বলে খেলা ইনিংসটি ৮টি চারে সাজানো।

এরপর আজহার আলি এবং বাবর আজম মিলে জয় নিয়েই মাঠ ছাড়েন। ২৪ রানে আজহার এবং ১৩ রানে বাবর অপরাজিত থাকেন। প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি এবং দ্বিতীয়তে হাফ-সেঞ্চুরি হাঁকানো পাকিস্তানি ওপেনার আবিদ আলি ম্যাচসেরা নির্বাচিত হন।

এর আগে ম্যাচের শুরুতে টস জিতে প্রথম ব্যাট করতে নেমে লিটন দাসের সেঞ্চুরি এবং মুশফিকুর রহিমের ফিফটির সুবাদে নিজেদের প্রথম ইনিংসে ৩৩০ রান করে বাংলাদেশ। জবাবে খেলতে নেমে আবিদ আলির সেঞ্চুরি এবং আব্দুল্লাহ শফিকের ফিফটিতে ২৮৬ রান করেন পাকিস্তান। আর দ্বিতীয় ইনিংসে সবকটি উইকেট হারিয়ে ১৫৭ রান তুলে মুমিনুল হকরা।

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।