মঙ্গলবার, নভেম্বর ২৯, ২০২২

মাতাল হয়ে গভীর ঘুম দুই ডজন হাতির, জাগাতে হলো ঢাকঢোল পিটিয়ে

প্রকাশিত:

ভারতের ওড়িশা রাজ্যে দুই ডজন হাতিকে মাতাল হয়ে ঘুমন্ত অবস্থায় পাওয়া গেছে। স্থানীয়দের ধারণা মহুয়া খেয়ে হাতিগুলো ঘুমিয়ে পড়েছিল। হাতির পালের মধ্যে ছিল ৯টি পুরুষ, ছয়টি স্ত্রী হাতি আর বাকিগুলো বাচ্চা হাতি।

বুধবার (৯ নভেম্বর) রাজ্যের কেওনঝার জেলার শিলীপদ জঙ্গলে এমন ঘটনাটি ঘটে। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ইন্ডিয়া টুডে।

গ্রামবাসীরা স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছেন, তারা জঙ্গলের ভেতর একটি পাত্রের মধ্যে দেশি মদ তৈরির জন্য মহুয়া ভিজিয়ে রেখে এসেছিলেন। পরের দিন ভোরে তারা জঙ্গলের ভেতর পাত্রটির কাছে যান। সেখানে গিয়ে তারা হাতিগুলোকে ঘুমন্ত অবস্থায় দেখতে পান।

নড়িয়া শেঠি নামে এক গ্রামবাসী দ্য প্রেস ট্রাস্ট অভ ইন্ডিয়াকে বলেন, “আমরা সকাল ৬টার দিকে মহুয়াগুলো দেখতে জঙ্গলে গিয়েছিলাম। সেখানে যাওয়ার পর দেখি সব পাত্র ভাঙা, কোনো পাত্রে মহুয়া নেই। পাশেই ঘুমচ্ছিল হাতিগুলো। তারা সম্ভবত মহুয়া ভেজানো পানি খেয়ে মাতাল হয়ে পড়েছিল।”

এরপর গ্রামবাসীরাই হাতিগুলোকে ঘুম থেকে জাগিয়ে তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু তাদের চেষ্টা ব্যর্থ হয়। এরপর তারা বন দপ্তরকে খবর দেন। এরপর তাদের সহায়তায় মাদল ও ঢাকঢোল বাজিয়ে হাতিগুলোর ঘুম ভাঙানো হয়।

ঘুম থেকে উঠে হাতিগুলো দুলতে দুলতে জঙ্গলের ভেতর চলে যায়।

বন্য হাতিদের কাছে মহুয়া বেশ জনপ্রিয় বলে জানিয়েছেন ভারতের বন্যপ্রাণী উদ্ধার ও পুনর্বাসনে সহায়তাকারী প্রতিষ্ঠান ওয়াইল্ড-লাইফ এসওএস-এর প্রধান নির্বাহী কার্তিক সত্যনারায়ণ।

তিনি বলেন, “হাতিরা মহুয়া খুব পছন্দ করে। এটি বিশুদ্ধ, সুস্বাদু এবং বেশ শক্তিশালী। কোথাও থেকে মহুয়ার গন্ধ আসার পর এটি খাওয়ার জন্য তারা দেওয়ালও ভেঙে ফেলতে পারে।”

সর্বাধিক পঠিত

আরো পড়ুন
সম্পর্কিত

ভারতে স্যাটেলাইট ফোনসহ রাশিয়ার সাবেক মন্ত্রী গ্রেপ্তার

ভারতে রাশিয়ার সাবেক এক মন্ত্রীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। যথাযথ...

ভারতের ছত্তিশগড়ে ৪ মাওবাদী নিহত

ভারতের ছত্তিশগড় রাজ্যে নিরাপত্তাবাহিনীর সদস্যদের গুলিতে ৪ মাওবাদী আন্দোলনের...

ভারতে জাতীয় সংবিধান দিবস পালনের তাৎপর্য

কোন একটি দেশ তার শাসন ব্যবস্থা রাজনীতি অর্থনৈতিক নীতি...

ভারতের আসাম-মেঘালয় সীমান্তে গোলাগুলি, নিহত ৬

ভারতের আসাম-মেঘালয় সীমান্তে গোলাগুলিতে অন্তত ৬ ব্যক্তি নিহত হয়েছে।...
লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।