2.8 C
Drøbak
বুধবার, জানুয়ারী ১৯, ২০২২
প্রথম পাতাসাম্প্রতিকসরকার দেশের কৃষিজমি রক্ষা করতে চায় : প্রধানমন্ত্রী

সরকার দেশের কৃষিজমি রক্ষা করতে চায় : প্রধানমন্ত্রী

ক্রমবর্ধমান খাদ্য চাহিদার জোগান দিতে সরকার দেশের কৃষিজমি রক্ষা করতে চায় উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘যত্রতত্র শিল্প প্রতিষ্ঠান করা যাবে না।’ রবিবার (৩ ডিসেম্বর) নবম জাতীয় এসএমই পণ্য মেলা-২০২১ এর উদ্বোধন অনুষ্ঠানে এসব কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে অনুষ্ঠিত এই অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা সারাদেশে ১০০টি শিল্পাঞ্চল গড়ে তুলেছি। জাতির পিতা যে বিসিক শিল্প নগরী গড়ে তুলেছিলেন, সেগুলোও সম্প্রসারণ করছি। তাই সুনির্দিষ্ট জায়গায় শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে তুলতে হবে, যাতে করে বর্জ্য ব্যবস্থাপনা ও পরিবেশ ঠিক থাকে। পরিবেশে যেন কোনও ক্ষতি না হয়, সে দিকে নজর দিতে হবে।

যত্রতত্র বড় শিল্প প্রতিষ্ঠান না করে ক্ষুদ্র ও কুটির শিল্প করার পরামর্শ দেন প্রধানমন্ত্রী। এ বিষয়ে উদ্যোক্তাদের প্রয়োজনীয় সহযোগিতা দিতে এসএমই ফাউন্ডেশনকে নির্দেশনা দিয়ে তিনি বলেন, ‘আপনারা এ ক্ষেত্রে বিশেষ দৃষ্টি দেবেন। কেউ যদি উদ্যোক্তা হয়— তাহলে কোথায় তার এই কাজগুলো করতে পারবেন, সেই নির্দিষ্ট জায়গা ঠিক করে দেওয়া। নিজস্ব জমি কিংবা নিজের ঘরে করলে সেখানেও বর্জ্য ব্যবস্থাপনা কীভাবে করবে, কীভাবে করলে তা বাজারজাত করতে পারবে; সেটা ভালোভাবে দেখতে হবে।’

দেশের জনসংখ্যার ঘনত্বের কথা তুলে ধরে প্রধানমন্ত্রী শিল্পায়নের ক্ষেত্রে বড় শিল্পের সঙ্গে ক্ষুদ্র, মাঝারিসহ বিভিন্ন ধরনের শিল্প গড়ে তোলার তাগিদ দেন। তিনি বলেন, ‘এতে একদিকে যেমন কর্মসংস্থান বাড়বে। আবার মানুষ যেন অল্প পুঁজি দিয়ে কিছু উৎপাদন করতে পারবে, বাজারজাত করতে পারবে, আর্থিকভাবে সচ্ছলতা লাভ করতে পারবে। সেই অনুযায়ী আমরা পদক্ষেপ নিয়েছি।

যেসব অঞ্চলে যে ধরনের পণ্য বা কাঁচামাল উৎপাদন হয়, সেসব অঞ্চলে সেই ভিত্তিক শিল্প গড়ে তোলার আহ্বান জানান প্রধানমন্ত্রী। সরকার কৃষি ও খাদ্য প্রক্রিয়াজাতকরণে নজর দিচ্ছে বলে জানিয়ে সরকার প্রধান বলেন, আমরা মিঠা পানির মাছ উৎপাদনে স্বয়ংসম্পূর্ণ। সবজি থেকে সবকিছু উৎপাদন বাড়াতে পেরেছি। কাজেই উদ্বৃত্ত যে পণ্য রয়েছে তাকে প্রক্রিয়াজাত করে…। আমাদের দেশেও বাজার সৃষ্টি হচ্ছে। মানুষের ক্রয়ক্ষমতা ও মাথাপিছু আয় বেড়েছে। গ্রামের মানুষ যাতে সব নাগরিক সুবিধা পায়। সেই সুবিধাটা আমরা দিতে পারছি।

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।