12.1 C
Drøbak
বুধবার, আগস্ট ৪, ২০২১
প্রথম পাতাআন্তর্জাতিকদ. আফ্রিকায় একাধিক পুরুষকে বিয়ে করতে পারবেন একজন নারী!

দ. আফ্রিকায় একাধিক পুরুষকে বিয়ে করতে পারবেন একজন নারী!

দক্ষিণ আফ্রিকার নারীরা একসঙ্গে একাধিক পুরুষকে বিবাহ করার অনুমতি পেতে যাচ্ছেন। সম্প্রতি দেশটির সরকার বিবাহ আইন সংশোধন করে নতুন এ আইন প্রণয়ন করতে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. অ্যারন মোটসোলেদী, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তা, দেশের সনাতন নেতা, ধর্মীয় নেতা, শিক্ষাবিদ, নারী নেতা এবং মানবাধিকার কর্মীদের সমন্বয়ে সরকার নতুন বিবাহ আইনের গ্রিন পেপার তৈরি করেছে।

ওই দেশটির গণমাধ্যমে এমন সংবাদ প্রকাশিত হওয়ার পর সচেতন মহলে আলোচনা-সমালোচনা চলছে।

দেশটির স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় নারী-পুরুষের বহুবিবাহের বৈধকরণ বিবাহ সম্পর্কিত ৬৭ পৃষ্ঠার গ্রিন পেপার ইতোমধ্যে তৈরি করে তা প্রকাশ করেছেন। আগামী জাতীয় সংসদ অধিবেশনে সংখ্যাগরিষ্ঠ ভোটে তা পাস হলে আইনটি বাস্তবায়নের জন্য সংশ্লিষ্ট বিভাগে গেজেট আকারে প্রকাশ করা হবে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, নারীদের সমাজই প্রতিষ্ঠা করতে চাইছে দক্ষিণ আফ্রিকা সরকার। তাই একজন নারী একাধিক বিয়ে করতে পারবে এমন সিদ্ধান্ত বাস্তবায়নের পরিকল্পনা নিয়েছে তারা। দক্ষিণ আফ্রিকার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় এ সংক্রান্ত একটি প্রস্তাবের অনুমোদন দিয়েছে। দেশটির সরকার বিবাহ আইনে পরিবর্তন আনতে চাচ্ছে। এরই অংশ হিসেবে এমন প্রস্তাব করেছে তারা।

দক্ষিণ আফ্রিকার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় দেশে ধর্ষণ ও নারী নির্যাতন কমিয়ে আনার জন্য সম্প্রতি দেশে বিবাহ আইন সংশোধন করে নতুন এ আইন প্রণয়ন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে জানিয়েছেন। দেশের বিবাহ আইনগুলো পরিবর্তন হলে নিকট ভবিষ্যতে দক্ষিণ আফ্রিকার মহিলারা একসঙ্গে একাধিক স্বামীর সঙ্গে বিবাহের অনুমতি পাবেন, ঠিক তেমনই পুরুষেরাও একসঙ্গে একাধিক স্ত্রী নিয়ে থাকতে পারবেন।

এছাড়াও স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই নথিতে বলা হয়, সরকার একটি নতুন বিবাহ আইন তৈরি করার চেষ্টা করেছে; যাতে দেশের প্রত্যেক নাগরিক আইনি বিধিমালার মধ্যে স্বীকৃত করে একাধিক বিয়ে করতে পারবেন। নতুন আইনে বলা হয়েছে- অতীতে অধিকাংশ বিয়েগুলো ধর্মীয় বিধান মেনে হওয়ার কারণে আইনের কোনো বাধ্যবাধকতা মানা হতো না। এতে বিয়ে এবং ডিভোর্স নিয়ে সমস্যা হতো। নতুন আইনে একজন নারী-পুরুষ একাধিক স্বামী কিংবা স্ত্রী নিয়ে একসঙ্গে বসবাস করতে পারবেন; তাতে কোনো আইনি ঝামেলা হবে না। নতুন এ আইন পাস হলে নারী-পুরুষ বিয়ের ব্যাপারে আইনি স্বাধীনতা পাবেন বলে মনে করে দেশের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

গ্রিন পেপারে বিবাহিত আইনগুলোতে সমতা আনতে পারে বলে জানিয়ে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলেছে, নতুন বিবাহ আইন চালু হলে সমাজে অন্তর্ভুক্তিমূলক রীতি এবং ধর্মীয় বিবাহ ব্যবস্থার বাইরে নারী-পুরুষ তাদের ইচ্ছা অনুযায়ী বিয়ে করতে পারবেন।

তবে এই ধরনের প্রস্তাবের পর রক্ষণশীল এবং ধর্মীয় গোষ্ঠীগুলোর ব্যাপক চাপের মুখে পড়েছে দক্ষিণ আফ্রিকান সরকার। দেশটিতে পুরুষের বহুবিবাহের ক্ষেত্রে কোনও বাধা নেই।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিরোধী নেতা আফ্রিকান ক্রিশ্চিয়ান ডেমোক্রেটিক পার্টির (এসিডিপি) নেতা কেনেথ মেসহোয়ে বলছেন, নারীদের ক্ষেত্রেও এমন অধিকার দেওয়া হলে ‘সমাজ ধ্বংস’ হয়ে যাবে। বেশ কয়েকজন তারকাও এমন প্রস্তাবের বিরোধিতা করেছেন। দেশটির রিয়্যালিটি স্টার মুসা এমসেলেকু বলেছেন, এটা আফ্রিকার সংস্কৃতি ধ্বংস করে দেবে। ওই ব্যক্তিদের শিশুদের কি হবে? তারা কিভাবে তাদের পরিচয় জানবে?

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।