কথিত আরসা কমান্ডার সেলিমসহ আট রোহিঙ্গা সন্ত্রাসী গ্রেপ্তার

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
2 মিনিটে পড়ুন

কক্সবাজারের উখিয়ায় রোহিঙ্গা ক্যাম্পে বিশেষ অভিযান চালিয়ে কথিত আরসা কমান্ডার মাস্টার মোহাম্মদ সেলিমসহ আট রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করেছে আর্মড পুলিশ ব্যাটালিয়ান-এবিপিএন।

গত সোমবার দিবাগত রাত থেকে মঙ্গলবার ভোর পর্যন্ত ক্যাম্পের বিভিন্ন স্থানে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানিয়েছেন এবিপিএনের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মিডিয়া) মো. কামরান হোসেন।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন, ১৩ নম্বর ক্যাম্পের আমির হোসেনের ছেলে এনায়েত উল্লাহ (২০) , মৃত আব্দুল গফ্ফারের ছেলে মো. আরিফ উল্লাহ (২৩), আব্দুস সালামের ছেলে নুর মোহাম্মদ (২৯), ১৪ নম্বর ক্যাম্পের মৃত কাশিমের ছেলে রফিক (২১), ১৫ নম্বর ক্যাম্পের মৃত দিল মোহাম্মদের ছেলে মো. রফিক (২৫), একই ক্যাম্পের মাসুদ মিয়ার ছেলে ফিরোজ মিয়া (২২) এবং ১৯ নম্বর ক্যাম্পের মৃত শফিকের ছেলে আব্দুল আমিন (২৮)।

নিজ দেশ মিয়ানমারে প্রত্যাবাসন প্রত্যাশী রোহিঙ্গা নেতা মুহিবুল্লাহকে শরণার্থী ক্যাম্পে গুলিতে হত্যার পর গত এক সপ্তাহে অভিযান চালিয়ে কথিত আরসা সদস্যসহ অন্তত ৩০ জন রোহিঙ্গা সন্ত্রাসীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরান হোসেন আটজনকে গ্রেপ্তারের তথ্য নিশ্চিত করে জানান, জামতলী ক্যাম্প-১৩-এর কবরস্থানের পাশে একদল সন্ত্রাসী ডাকাতির প্রস্তুতি নিচ্ছে এমন খবরে অভিযান চালিয়ে তাদের গ্রেপ্তার করা হয়।

এবিপিএন কর্মকর্তা জানান, গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের কাছ থেকে সাতটি দা, হাঁসুয়া, শাবল, সিমকার্ড, মোবাইল ফোনসেট ও নোটবুক উদ্ধার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃতদের বিরুদ্ধে বিভিন্ন অপরাধের মামলা রয়েছে। তাদের উখিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে।

অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. কামরান হোসেন জানান, এনায়েত উল্লাহ , আব্দুল আমিন, নূর মোহাম্মদ, মো. রফিক, মো. আরিফ উল্লাহ আরসার অন্যতম নেতা আনাসের ঘনিষ্ঠ সহচর। ফিরোজ মিয়া চিহ্নিত মাদক কারবারি। ছলিম আরসার স্থানীয় কমান্ডার।

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!