19.4 C
Drøbak
বৃহস্পতিবার, আগস্ট ৫, ২০২১
প্রথম পাতাবিচিত্রাপাঁচ বছরের সিংহই ভবিষ্যদ্বাণী করছে ইউরো কাপের

পাঁচ বছরের সিংহই ভবিষ্যদ্বাণী করছে ইউরো কাপের

থাইল্যান্ডে উত্তর–পূর্ব অঞ্চলের এক চিড়িয়াখানায় বয় নামের একটি সিংহ আছে। তার বয়স পাঁচ বছর। সেই সিংহই এ বার একদম সঠিক ভাবে ইউরো কাপের চারটি ম্যাচের ভবিষ্যদ্বাণী করেছে।

বিশ্বকাপ বা ইউরো কাপের মতো ফুটবল যজ্ঞ শুরু হওয়ার আগেই বিভিন্ন প্রাণীদের দিয়ে ম্যাচের ফলাফল কী হতে পারে তার ভবিষ্যদ্বাণী করানোর প্রথাটা এখন আর নতুন কিছু নয়।

২০১০ সালের বিশ্বকাপে ক্যারিশমা দেখিয়েছিল একটি অক্টোপাস। তার নাম ছিল পল। ২০১৪ ও ২০১৮ সালের বিশ্বকাপে কোন দল জিতবে তার আগাম খবর দিয়েছিল শাহিন নামের একটি উট।

শুধু উটই নয়, ২০১৮ সালেই শাহিনকে ছাপিয়ে আরও নিখুঁত ভাবে ভবিষ্যৎবাণী করেছিল অ্যাকিলিস নামের একটি বিড়াল।

বেশ কয়েক বছর ধরেই দেখা যাচ্ছে, ফুটবল টুর্নামেন্ট শুরু হলেই সেই খেলায় কারা জিতবে তার ভবিষ্যদ্বক্তার খোঁজ করা শুরু হয় এবং মিলেও যায়।

জীবজন্তুদের মধ্যে থেকে এমন একটি ভবিষ্যদ্বক্তা খোঁজার জন্য এ বার ঝাঁপিয়ে পড়েছে থাইল্যান্ড।

তবে আগের সব ভবিষ্যদ্বক্তার চেয়ে ‘বয়’ একটু আলাদা। কারণ, বনের রাজাই যখন ভবিষ্যদ্বাণী করছে, তখন তো সেটায় গুরুত্ব দিতেই হবে।

ম্যাচের সম্ভাব্য বিজয়ীর আগাম হদিশ দেওয়ার ক্ষেত্রে বয়ও কিন্তু আর সবার মতোই। তার সামনে রাখা খাবার থেকে রয় যেটাকে বেছে নেয়, সে দলকেই বিজয়ী বলে ভেবে নেওয়া হয়।

বয়ের ক্ষেত্রে দুটি দলের জাতীয় পতাকার সঙ্গে মাংস ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। বয় যে কোনও একটি বেছে নিলেই, ব্যস! ধরে নেওয়া হয় সে দলই জিতবে।

প্রথম রাউন্ডে চারটি ম্যাচেই ভবিষ্যদ্বাণী করে সফল হয়েছে বয়। ফ্রান্স যে জার্মানিকে হারাবে, সেটা সে আগেই ধারণা করেছিল। ইংল্যান্ডের ক্রোয়েশিয়ার বিপক্ষে জয়, নেদারল্যান্ডসের প্রথম ম্যাচের জয় ও ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোদের হাঙ্গেরিকে হারানোর খবরও দিয়েছিল এই সিংহই।

এমনিতে রয় বেশ শান্তশিষ্ট। বাধ্য এবং অনুগত। বয় এত সঠিক ভাবে খেলার ফল ভবিষ্যদ্বাণী করে দেবে আগে কেউ আন্দাজ করতে পারেনি।

ফলে খুব স্বাভাবিক ভাবেই থাইল্যান্ডের ওই চিড়িয়াখানায় এই সিংহকে দেখতে রীতিমত ভিড় উপচে পড়ছে। রয়ের অবশ্য কোনও দিকেই ভ্রুক্ষেপ নেই। মাংস পেলেই আর কিছু চায় না সে।

সিদ্ধার্থ সিংহ
সিদ্ধার্থ সিংহ
২০২০ সালে 'সাহিত্য সম্রাট' উপাধিতে সম্মানিত এবং ২০১২ সালে 'বঙ্গ শিরোমণি' সম্মানে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহের জন্ম কলকাতায়। আনন্দবাজার পত্রিকার পশ্চিমবঙ্গ শিশু সাহিত্য সংসদ পুরস্কার, স্বর্ণকলম পুরস্কার, সময়ের শব্দ আন্তরিক কলম, শান্তিরত্ন পুরস্কার, কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত পুরস্কার, কাঞ্চন সাহিত্য পুরস্কার, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা লোক সাহিত্য পুরস্কার, প্রসাদ পুরস্কার, সামসুল হক পুরস্কার, সুচিত্রা ভট্টাচার্য স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, অণু সাহিত্য পুরস্কার, কাস্তেকবি দিনেশ দাস স্মৃতি পুরস্কার, শিলালিপি সাহিত্য পুরস্কার, চেখ সাহিত্য পুরস্কার, মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার ছাড়াও ছোট-বড় অজস্র পুরস্কার ও সম্মাননা। পেয়েছেন ১৪০৬ সালের 'শ্রেষ্ঠ কবি' এবং ১৪১৮ সালের 'শ্রেষ্ঠ গল্পকার'-এর শিরোপা সহ অসংখ্য পুরস্কার। এছাড়াও আনন্দ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত তাঁর 'পঞ্চাশটি গল্প' গ্রন্থটির জন্য তাঁর নাম সম্প্রতি 'সৃজনী ভারত সাহিত্য পুরস্কার' প্রাপক হিসেবে ঘোষিত হয়েছে।
অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।