সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৬

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
3 মিনিটে পড়ুন
সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত রাজ্যের ঝুঁকিপূর্ণ এবং প্রান্তিক এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে যৌথ বাহিনী। ছবি রয়টার্স

সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৬

গত ২৪ ঘণ্টায় সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ৬ জন নিহত হয়েছেন। বিষ্ণুপুর-চুরাচাঁদপুর সীমান্ত এলাকায় শনিবার দিনব্যাপী সংঘর্ষে আহত হয়েছে ১৬ জন। সংঘর্ষের পর সেনাবাহিনীর চিরুনি অভিযানে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় গ্রেফতার হয়েছেন একজন।

পুলিশ জানায়, রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতির পরিপ্রেক্ষিতে আজ (রবিবার) ইমফল পূর্ব এবং পশ্চিম জেলাগুলোতে কারফিউ শিথিল করা হবে না।

সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৬
ইমফল পূর্ব এবং পশ্চিম জেলাগুলোতে কারফিউ শিথিল না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে প্রশাসন। ছবি পিটিআই

শনিবার ভয়ংকর এক দিন পার করেছে মণিপুর। এদিন বিষ্ণুপুর-চুরাচাঁদপুর সীমান্তের বেশ কয়েকটি জায়গায় দিনব্যাপী মর্টার এবং গ্রেনেড হামলার খবর পাওয়া গেছে। দুই পক্ষের মধ্যে গুলি বিনিময়ও হয়।

শনিবার ভোরে বিষ্ণুপুর জেলার কোয়াকতা এলাকার একটি গ্রামে হামলায় বাবা-ছেলেসহ তিন নিরস্ত্র গ্রামবাসী নিহত হয়। আতঙ্কে নিহতরা তাদের পরিবার নিয়ে আশ্রয় শিবিরে অবস্থান করছিলেন। শুক্রবার গ্রাম পাহারা দিতে ফিরে এসেছিলেন তারা।

- বিজ্ঞাপন -

নিরাপত্তা বাহিনীর সূত্র জানায়, দুজন পুরুষকে বিভিন্ন স্থানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে আঘাত করা হয়েছিল। এর আগে তাদের শরীরের বিভিন্ন অংশে খুব কাছ থেকে গুলি করা হয়।

এতে সকাল থেকেই উত্তাল হয়ে ওঠে গোটা এলাকা। কোয়াকতার পাশের দুই গ্রাম ফুজাং এবং সোংডোতে মর্টার শেল এবং গ্রেনেড ছোড়ে একদল জনতা। কয়েকটি গ্রেনেড চুরাচাঁদপুর জেলায় পড়লে দুজন নিহত এবং কয়েকজন আহত হয়।

সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৬
জাতিগত সহিংসতায় তিন মাসের বেশি সময় ধরে উত্তাল মণিপুর। ছবি পিটিআই

বিষ্ণুপুর জেলার তেরখাংসাংবিতে হামলায় একজন নিহত হয়েছেন। এক পুলিশ কমান্ডোসহ বন্দুকের গুলিতে আহত হয়েছেন তিনজন।

ইমফল পূর্ব জেলার সানসাবি এবং থামনাপোকপি গ্রামে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের গুলি করার খবরও পাওয়া গেছে। এ ঘটনা কোনও হতাহতের খবর পাওয়া যায়নি। অজ্ঞাতপরিচয় জনতা ইমফল পশ্চিম জেলার ল্যাংগোলে বাড়িঘরে আগুন দিয়েছে। এর পরপর হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে ব্যাপক বিক্ষোভ হয় ইমফলে।

মণিপুরের বিজেপি বিধায়ক রাজকুমার ইমো সিং রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী এন বীরেন সিংয়ের জামাতাও। কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছেন তিনি। তার দাবি, বিষ্ণুপুর জেলায় তিনজন নিহত হওয়া হামলায় বড় ধরনের নিরাপত্তা ত্রুটি ছিল। দায়িত্বে অবহেলার দায়ে আধাসামরিক বাহিনীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছেন রাজকুমার।

- বিজ্ঞাপন -
moni 3 সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত মণিপুরে ২৪ ঘণ্টায় নিহত ৬
মনিপুরে জ্বলছে কয়েকটি ঘর। ফাইল ছবি

মণিপুর পুলিশ শুক্রবার জানায়, সংঘর্ষ-বিধ্বস্ত রাজ্যের ঝুঁকিপূর্ণ এবং প্রান্তিক এলাকায় অভিযান চালাচ্ছে যৌথ বাহিনী। বিভিন্ন জেলায় নতুন সহিংসতা শুরু হওয়ার পর সাতটি অবৈধ বাঙ্কার ধ্বংস করেছে তারা।

তফসিলি উপজাতি (এসটি) মর্যাদা প্রশ্নে ভারতের উত্তর-পূর্ব রাজ্যটির মেইতি ও কুকি সম্প্রদায়ের মধ্যে তিন মাসের বেশি সময় ধরে সংঘর্ষ চলছে। এতে কয়েকশ’ মানুষ নিহত হয়েছেন, বাস্তুচ্যুত হয়েছেন হাজার হাজার মানুষ।

সূত্র: এনডিটিভি

- বিজ্ঞাপন -

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!