গ্যাবনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলি বঙ্গো মুক্ত: সামরিক সরকার

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
2 মিনিটে পড়ুন
আলি বঙ্গো। ছবি বিবিসি

গ্যাবনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলি বঙ্গো মুক্ত: সামরিক সরকার

গ্যাবনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলি বঙ্গো মুক্ত এবং বিদেশে যেতে তার কোনও বাধা নেই। ৩০ আগস্ট তাকে ক্ষমতাচ্যুত করে গৃহবন্দি করেছিল সেনাবাহিনী। বন্দিত্ব থেকে মুক্তি দেওয়ার পর এই অনুমতি দিয়েছে গ্যাবনের সামরিক সরকার। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরাখবর জানিয়েছে।

বুধবার সন্ধ্যায় জাতীয় টেলিভিশনে পাঠ করা এক বিবৃতিতে গ্যাবনের সামরিক মুখপাত্র কর্নেল উলরিচ মানফুম্বি বলেন, স্বাস্থ্যের অবস্থা বিবেচনা করে, প্রজাতন্ত্রের সাবেক প্রেসিডেন্টকে আলি বঙ্গো ওন্দিম্বাকে মুক্তি দেওয়া হয়েছে। তিনি ইচ্ছা করলে চিকিৎসার জন্য বিদেশ যেতে পারবেন।

গ্যাবনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলি বঙ্গো মুক্ত: সামরিক সরকার
সেনাঅভ্যুত্থানের ঘোষণা পর গ্যাবনের রাজধানী লিব্রেভিলের সড়কে সেনাসদস্যদের টহল । ছবি রয়টার্স

সোমবার গ্যাবনের নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নিয়েছেন জেনারেল ব্রিস ক্লোটায়ার ওলিগুই এনগুয়েমা। পরে গৃহবন্দি থেকে বঙ্গোর মুক্তির ঘোষণা পত্রে স্বাক্ষর করেছেন তিনি।

অলিগুই বঙ্গোর চাচাতো ভাই। তিনি বঙ্গোর প্রয়াত বাবার দেহরক্ষী হিসেবে দায়িত্ব পালন করতেন। একটি অভিজাত সামরিক ইউনিটের নেতৃত্ব দিয়েছিলেন তিনি।।

আল জাজিরার নিকোলাস হক বলেন, বঙ্গো যদি চান দেশ ছেড়ে যেতে পারবেন। বিদেশে চিকিৎসা নিতে পারবেন। পাঁচ বছর আগে বোঙ্গোর স্ট্রোক হয়েছিল।

হক আরও বলেন, তার স্ত্রীকে প্রেসিডেন্ট প্রাসাদের চতুর্থ তলায় ছেলে নওরেদ্দিনের সঙ্গে রাখা হয়েছিল। তাদের সবার বিরুদ্ধে রাষ্ট্রদ্রোহের অভিযোগ রয়েছে।

গ্যাবনে সেনা অভ্যুত্থান: জেনারেলকে কাঁধে নিয়ে বিজয় মিছিল
সেনাঅভ্যুত্থানের পর জেনারেল এনগুয়েমাকে তার সৈন্যরা গ্যাবনের রাজধানী লিব্রেভিলের রাস্তায় কাঁধে তুলে উল্লাস করে নিয়ে যায়। ছবি রয়টার্স

এনগুয়েমার মতে, তাদের বিচারের মুখোমুখি হতে হবে। কারণ তাদের বিরুদ্ধে রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে অর্থ চুরির অভিযোগ রয়েছে।

সোমবার প্রেসিডেন্ট প্রাসাদে শপথ নেওয়ার পর এনগুয়েমা বলেছিলেন, সেনাবাহিনী সহিংসতা ছাড়াই দেশের নিয়ন্ত্রণ নিয়েছে। বিশ্বাসযোগ্য ও অবাধ নির্বাচন আয়োজনের মাধ্যমে জনগণের কাছে ক্ষমতা ফিরিয়ে দেবে।

গ্যাবনের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্ট আলি বঙ্গো মুক্ত: সামরিক সরকার
সেনাঅভ্যুত্থানের ঘোষণা পর গ্যাবনের রাজধানী লিব্রেভিলের সড়কগুলোতে জনগণকে রাস্তায় উল্লাস করতে দেখা যায়। ছবি রয়টার্স

অভ্যুত্থানকে গ্যাবনের জনসাধারণরা স্বাগত জানিয়েছে। তবে আফ্রিকান ইউনিয়ন ও আন্তর্জাতিক সম্প্রদায় নিন্দা করেছে।

বঙ্গো পরিবার প্রায় ৫৬ বছর ধরে গ্যাবন শাসন করেছে। জীবনযাত্রার ব্যয় বৃদ্ধির মতো একাধিক বিষয় নিয়ে আলি বঙ্গোর বিরুদ্ধে জনগণের মধ্যে অসন্তোষ রয়েছে।

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!