মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধ: আসামির মৃত্যু, আপিল অকার্যকর

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
1 মিনিটে পড়ুন

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত শাখাওয়াত হোসেন ও আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্ত বিল্লাল বিশ্বাস মারা যাওয়ায় তাদের আপিল আবেদন অকার্যকর ঘোষণা করেছেন সর্বোচ্চ আদালত। ট্রাইব্যুনালের দেওয়া দণ্ড থেকে খালাস চেয়ে সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগে এই আপিল আবেদন করেছিলেন তারা। প্রধান বিচারপতি হাসান ফয়েজ সিদ্দিকীর নেতৃত্বে আপিল বেঞ্চ বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) এই আদেশ দেন।

মুক্তিযুদ্ধকালীন মানবতাবিরোধী অপরাধের দায়ে আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল ২০১৬ সালের ১০ আগস্ট শাখাওয়াত হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছিল। একই মামলার আট আসামির মধ্যে যশোরের কেশবপুরের অন্য সাতজনকে দেওয়া হয় আমৃত্যু কারাদণ্ড।

আমৃত্যু কারাদণ্ডপ্রাপ্তরা হলেন–মো. বিল্লাল হোসেন, মো. ইব্রাহিম হোসেন, শেখ মোহাম্মদ মুজিবর রহমান, মো. আব্দুল আজিজ সরদার, মো. আজিজ সরদার, কাজী ওয়াহেদুল ইসলাম ও মো. আব্দুল খালেক মোড়ল। আট আসামির মধ্যে গ্রেপ্তার ছিলেন সাখাওয়াত হোসেন ও মো. বিল্লাল হোসেন। বাকি ছয়জন পলাতক।

১৯৭১ সালের ইসলামী ছাত্রসংঘ নেতা সাখাওয়াত হোসেন ছিলেন মুক্তিযুদ্ধে যশোরের কেশবপুরের রাজাকার বাহিনীর কমান্ডার। অন্য আসামিরা বাহিনীর সদস্য ছিলেন।

- বিজ্ঞাপন -

আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনালের রায়ের পরে গ্রেফতার হওয়া দুজন আপিল বিভাগে আবেদন করেন। ওই আপিল বিচারাধীন থাকা অবস্থায় ২০১৮ সালে বিল্লাল এবং ২০২১ সালে সাখাওয়াত মারা যান। এরপর আজ বুধবার (২ ফেব্রুয়ারি) তাদের আপিল অকার্যকর ঘোষণা করে

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!