সোমবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২২

উত্তরপ্রদেশ করোনায় মৃত ব্যক্তির দেহ নদীতে ছুঁড়ে দিল

প্রকাশিত:

ভারতের উত্তরপ্রদেশে কোভিডে আক্রান্ত একজনের মৃতদেহ নদীতে ছুঁড়ে ফেলার একটি ভিডিও সোশ্যাল মিডিয়ায় ব্যাপক সাড়া ফেলেছে।

আনন্দবাজার সূত্রে জানা গেছে, শুক্রবার বলরামপুর জেলার একটি সেতু থেকে দুই ব্যক্তি ঐ মৃতদেহটি রাপ্তি নদীতে ছুঁড়ে ফেলেন। গাড়ি করে সেতু পার হওয়ার সময় কয়েকজন গোটা ঘটনাটি ক্যামেরাবন্দি করেন বলে জানা গেছে। ইতোমধ্যেই তাদের করা ভিডিওটি বিভিন্ন সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। ভিডিওতে লাশ ছুঁড়ে ফেলা দু’জনের মধ্যে একজনের গায়ে পিপিই কিট দেখা গেছে।

মহামারী মোকাবেলায় উত্তর প্রদেশের যোগী আদিত্যনাথ প্রশাসনের অব্যবস্থাপনা আগেও ভারতজুড়ে নিত্যনতুন আলোচনার জন্ম দিয়েছে।

গঙ্গায় মৃতদেহ ভেসে আসা এবং নদীর তীরে বালিতে পোঁতা লাশ পাওয়ার ঘটনায় কয়েকসপ্তাহ আগে বিজেপিশাসিত এ রাজ্যটি বিশ্বজুড়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমের শিরোনামও হয়েছিল।

পরে ভারতের কেন্দ্রীয় সরকার মৃতদেহ যেন নদীতে না ফেলা হয়, তা নিশ্চিত করতে উত্তরের বেশ কয়েকটি রাজ্যকে নির্দেশ দেয়। নদীর ধারে টহল বাড়াতেও বলে তারা।

শুক্রবার সেতু থেকে ফেলে দেওয়া মৃতদেহটি যে একজন কোভিড রোগীরই ছিল তা নিশ্চিত করেছেন বলরামপুরের প্রধান চিকিৎসা কর্মকর্তা ভিবি সিং।

“প্রাথমিক অনুসন্ধানে জানা গেছে, ওই রোগী গত ২৫ মে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন। তিনদিন পর তার মৃত্যু হয়। কোভিড-১৯ সংক্রান্ত যাবতীয় নির্দেশনা মেনে তার মৃতদেহ স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করা হয়।

‘আত্মীয়-স্বজনরাই তার মৃতদেহ নদীতে ফেলেছে বলে প্রাথমিক অনুসন্ধানে বের হয়েছে। আমরা মামলা করেছি, কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া হবে,’ বলেছেন তিনি।

সর্বাধিক পঠিত

আরো পড়ুন
সম্পর্কিত

সিরিয়ায় অভিযানের জন্য কারও অনুমতি নেবে না তুরস্ক

সিরিয়ায় অভিযান পরিচালনার জন্য কারও কাছ থেকে অনুমতি নেবে...

মিয়ানমারে তিন দিনে ৭৩ সেনা হত্যার দাবি জান্তা বিরোধীদের

মিয়ানমারের সামরিক সরকারের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ অব্যাহত রেখেছে দেশটির সশস্ত্র...

নিউজিল্যান্ডের সংবাদ প্রচার করলে অর্থ দিতে হবে ফেসবুক-গুগলকে

ফেসবুক এবং গুগলে সংবাদ প্রকাশের জন্য স্থানীয় সংবাদমাধ্যম প্রতিষ্ঠানকে...

ফিলিস্তিনে দখলদারিত্ব নিয়ে নেতানিয়াহুকে সতর্ক করলো যুক্তরাষ্ট্র

অধিকৃত পশ্চিম তীরসহ পুরো ফিলিস্তিনি ভূখণ্ডে ইসরায়েলি দখলদারিত্ব ও...
লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।