সোমবার, নভেম্বর ২৮, ২০২২

আমি সঠিকভাবে বাঁচতে চাইছিলাম, কিন্তু পারলাম না: তনুশ্রী মাঝি

প্রকাশিত:

সুইসাইড নোটে তিনজনের নাম ‌উল্লেখ করে আত্মহত্যা করেছেন একজন কলেজ ছাত্রী। ওই ছাত্রীর নাম তনুশ্রী মাঝি এবং সে বাংলাদেশের খুলনা জেলার কয়রা উপজেলার মহেশ্বরীপুর ইউনিয়নের হড্ডা গ্রামের দীপক মাঝির মেয়ে।

সুইসাইড নোটের একটি অংশে তনুশ্রী লিখেন, ‘আমি সঠিকভাবে বাঁচতে চাইছিলাম, কিন্তু পারলাম না। ওরা আমার পিছনে খুব ভালোমতো লাগিছে। আমি না মরা পর্যন্ত শান্তি পাবে না। শুভ, আলিফ, মিহির ওরা আমাকে বাঁচতে দিলো না।’

শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) বিকেলে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন তনুশ্রী। তিনি গড়ইখালী আবু মুছা মেমোরিয়াল ডিগ্রী কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। কয়রা থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম দোহা এ তথ্য গণমাধ্যমকে নিশ্চিত করেছেন।

মৃত তনুশ্রীর পিতা দীপক মাঝি গণমাধ্যমকে বলেন, দুপুরের খাবার খেয়ে নদীর চরের গাছ থেকে কেওড়া পাড়তে যান তিনি। বিকেল ৫টার দিকে জানতে পারেন, তার মেয়ে গলায় দড়ি দিয়েছে। দ্রুত বাড়ি গিয়ে মেয়ের ঘরে দরজা দেয়া দেখতে পেলে জানালা ভেঙে ভেতরে প্রবেশ করেন। তিনি মেয়ের পা উঁচু করে ধরেন এবং তার মা দড়ি কেটে দেয়। তখন বিছানায় শোয়ানোর সময় মোবাইল দিয়ে চাপা একটি কাগজ দেখতে পান। ওই কাগজে তিনজনের নাম লেখা ছিল।

আমাদী পুলিশ ফাঁড়ির আইসি মো. মনিরুজ্জামান বলেন, মরদেহের ময়নাতদন্ত শেষে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে। ঘটনাস্থল থেকে একটি চিঠি পেয়েছি। আত্মহত্যার বিষয়ে কারো প্ররোচণা থাকলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ছবি ও সংবাদ সুত্র: যমুনা টেলিভিশন

সর্বাধিক পঠিত

আরো পড়ুন
সম্পর্কিত

বাংলাদেশ: স্কুলছাত্রীকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের দায়ে ৬ জনের মৃত্যুদণ্ড

বাংলাদেশের খুলনার সোনাডাঙ্গায় ষষ্ঠ শ্রেণির এক ছাত্রীকে ধর্ষণের মামল‌ায়...

বাংলাদেশ: চুরি করতে গিয়ে ধরা, ৯৯৯-এ কল দিয়ে বললেন ‘বিপদে আছি’

মাছের ঘেরে চুরি করতে গিয়ে ধরা পড়েন পাঁচ ব্যক্তি।...

বাংলাদেশ: খুলনায় নিখোঁজ সেই রহিমা বেগমকে জীবিত উদ্ধার

বাংলাদেশের খুলনার দৌলতপুরের বণিকপাড়া থেকে নিখোঁজ রহিমা খাতুনকে (৫২)...
লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।