11.1 C
Drøbak
রবিবার, মে ২৯, ২০২২
প্রথম পাতাসাম্প্রতিক১ লাখ টাকার জাল নোটের বিনিময়ে বিকাশে আসে ৩০ হাজার

১ লাখ টাকার জাল নোটের বিনিময়ে বিকাশে আসে ৩০ হাজার

খুলনায় জাল নোটের সবচেয়ে একটি বড় চালানসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। ২ লাখ ৮২ হাজার টাকার জাল নোটের এ চালানকে বলা হচ্ছে “স্মরণকালের সবচেয়ে বড়” চালান। গ্রেপ্তারকৃতদের কাছ থেকে মিলেছে চাঞ্চল্যকর তথ্য। তারা জানায়, এক লাখ টাকা মূল্যের জাল নোটের বিনিময় হয় ৩০ হাজার আসল টাকায়।

খুলনা মেট্রোপলিটন পুলিশের (কেএমপি) ডিবির ডেপুটি কমিশনার বি এম নূরুজ্জামান বলেন, “খুলনায় জাল নোট ব্যবসার মূল হোতা সিলেটের মো. জমির উদ্দিন। তার বাড়ি সিলেটের লামা গ্রামে। তাকে সোমবার গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সে গোপালগঞ্জের এক ব্যক্তির কাছ থেকে ৩০ হাজার টাকায় এক লাখ টাকার জাল নোট কিনেছে। ৯ এপ্রিল ওই ব্যবসায়ীকে বিকাশের মাধ্যমে ত্রিশ হাজার টাকা পাঠানো হলে পরদিন সে জাল নোটগুলো খুলনায় পাঠিয়ে দেয়। সে চার বছর ধরে জাল নোটের কারবার করে আসছে। এর আগে একবার এ ব্যবসা করতে গিয়ে পুলিশে কাছে আটক হয়েছিল।”

পুলিশ জানায়, দুই বছর আগে সাঈদ নামে এক ব্যক্তির সঙ্গে পরিচয় হয় জমিরের। সাঈদের বাসা থেকে এ ব্যবসা চালিয়ে যাচ্ছিলেন বলে স্বীকার করেছেন তিনি।

কেএমপির ডেপুটি কমিশনার (ডিবি) আরও বলেন, খুলনা মহানগরীর ছোট বয়রা এলাকা থেকে মো. সাঈদ (৩৭) এবং মো. সানি আহম্মেদকেও (৩০) গ্রেপ্তার করা হয়েছে। তারা দীর্ঘদিন যাবৎ খুলনা মহানগরসহ দেশের বিভিন্ন এলাকায় অবৈধ জাল টাকার ব্যবসা করে আসছে। মাঝে মধ্যে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর হাতে আটক হলেও জামিনে বেরিয়ে আবার এ পেশায় ভেড়ে তারা।
তিনি বলেন, “অভিযুক্তদের পরিবারও তাদের এ ব্যবসার কথা জানে। এসব করেই তারা সংসার চালায়।”

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।