14.3 C
Drøbak
শনিবার, আগস্ট ১৩, ২০২২
প্রথম পাতাসাম্প্রতিকবিয়ের ১৭ বছর পর আনুষ্ঠানিকতা

বিয়ের ১৭ বছর পর আনুষ্ঠানিকতা

ইচ্ছে ছিল সামর্থ্য হলে বরযাত্রী নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ের অনুষ্ঠান করবেন। তবে সেই ইচ্ছেপূরণে লেগে গেল ১৭ বছর। বিয়ের ১৭ বছর পর ১০০ বরযাত্রী নিয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা সম্পন্ন করেছেন এক দম্পতি। আত্মীয়-স্বজন, প্রতিবেশীদের পাশাপাশি তাদের সন্তানরাও ছিলেন বরযাত্রী হিসেবে। গান বাজনা বাজিয়ে বরযাত্রী নিয়ে এ দম্পতি ঘুরেছেন সাতটি গ্রাম।

শুক্রবার (১৫ জুলাই) বিকেলে কুষ্টিয়ার কুমারখালী উপজেলার চাপড়া ইউনিয়নের কাঞ্চনপুর গ্রামে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। দম্পতি হলেন ওই গ্রামের মো. সাইফুল ইসলাম (৩৬) হেলেনা খাতুন (৩০)।

এলাকাবাসী সূত্রে জানা গেছে, সাইফুল ও হেলেনার মধ্যে প্রেমের সম্পর্ক ছিল। প্রায় ১৭ বছর আগে গ্রামবাসীর উদ্যোগে তাদের বিয়ে হয়েছিল। তবে তখন সাইফুলের বিয়ের অনুষ্ঠান করার মতো সামর্থ্য ছিল না। তাই সাইফুল মনে মনে পণ করেছিলেন, সামর্থ্য হলে এক শ বরযাত্রী নিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে বিয়ের অনুষ্ঠান করবেন। সেই ইচ্ছা পূরণ করতে গতকাল আত্মীয়স্বজন, প্রতিবেশী এবং তাদের দুই সন্তানসহ শতাধিক বরযাত্রী নিয়ে বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করেন।

এ বিষয়ে সাইফুল ইসলাম বলেন,“ইচ্ছা পূরণ করতে ১৭ বছর পর বিয়ের আনুষ্ঠানিকতা শেষ করলাম। আমাদের ১০ বছর বয়সের ছেলে ও ৭ বছর বয়সের মেয়েও অনুষ্ঠানে ছিল। বরযাত্রী নিয়ে গানবাজনা করে সাত গ্রাম ঘুরেছি।”

এ বিষয়ে চাপড়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) ৭ নম্বর ওয়ার্ডের সদস্য মনোয়ার হোসেন বলেন, “বর আর বউয়ের মধ্যে আগে প্রেম ছিল। স্থানীয় লোকজন তখন বিয়ের ব্যবস্থা করেছিল। তবে বরের ইচ্ছা ছিল অনুষ্ঠান করে বিয়ে করার। ১৭ বছর পর সেই ইচ্ছা পূরণ হয়েছে। এমন বিয়ের অনুষ্ঠান এই এলাকায় আগে কখনো হয়নি।”

চাপড়া ইউপির চেয়ারম্যান এনামূল হক মঞ্জু বলেন, “ফেসবুকে দেখেছি বাজনা বাজিয়ে বরযাত্রী নিয়ে বর-বউ গ্রামে গ্রামে ঘুরছে। বিষয়টি এলাকায় বেশ আলোচিত হয়েছে। তবে পুরো বিষয়টি এখনো জানতে পারিনি।”

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
editor@samoyiki.com

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
sahitya@samoyiki.com

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।