করোনা: বিশ্বে ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৫৫৭ জনের মৃত্যু

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
2 মিনিটে পড়ুন
প্রতীকি ছবি

বিশ্বে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় ২ হাজার ৫৫৭ জন মারা গেছেন। ফলে মোট মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৬২ লাখ ৫৫ হাজার ৮৯৭ জনে। এছাড়া নতুন করে কোভিড শনাক্ত হয়েছে ৬ লাখ ২৮ হাজার ৪২৯ জনের। ফলে মোট শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৫১ কোটি ২০ লাখ ৭৪ হাজার ১৬৮ জনে।

শুক্রবার (২৯ এপ্রিল) সকালে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত, মৃত্যু ও সুস্থতার হিসাব রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারস থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে জার্মানিতে। এই সময়ে দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ১৯ হাজার ৮৩২ জন এবং মারা গেছেন ২৩৯ জন। মহামারির শুরু থেকে ইউরোপের দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ৪৬ লাখ ৮ হাজার ৭৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন এবং ১ লাখ ৩৫ হাজার ৬০৮ জন মারা গেছেন।

অন্যদিকে দৈনিক প্রাণহানির তালিকায় শীর্ষে রয়েছে যুক্তরাজ্য। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত মারা গেছেন ২৪৮ জন এবং নতুন করে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৮ হাজার ২৪৭ জন। ফলে দেশটিতে এখন পর্যন্ত ২ কোটি ২০ লাখ ২৫ হাজার ৯২৫ জন করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এবং ১ লাখ ৭৪ হাজার ৬৯৬ জন মারা গেছেন।

- বিজ্ঞাপন -

যুক্তরাষ্ট্রে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫৫ হাজার ৬৯২ জন এবং মারা গেছেন ২৪৭ জন। কোভিডে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত ৮ কোটি ২৯ লাখ ৫৪ হাজার ৭৬৮ জন কোভিড-১৯ আক্রান্ত এবং ১০ লাখ ২০ হাজার ১৫৯ জন মারা গেছেন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্তের তালিকায় দ্বিতীয় অবস্থানে রয়েছে প্রতিবেশী দেশ ভারত। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে কোভিডে সংক্রমিত হয়েছেন ৩ হাজার ৬৮৭ জন। দেশটিতে এখন পর্যন্ত মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪ কোটি ৩০ লাখ ৭২ হাজার ৪৮৬ জন এবং মারা গেছেন ৫ লাখ ২৩ হাজার ৬৯৩ জন।

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!