10.4 C
Drøbak
বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০২১
প্রথম পাতাআন্তর্জাতিকডলস হানোই গোল্ডেন লেক: সোনার হোটেল পঁচিশ তলা হোটেল- পুরোটাই সোনার

ডলস হানোই গোল্ডেন লেক:
সোনার হোটেল পঁচিশ তলা হোটেল- পুরোটাই সোনার

হোটেলের ঘরগুলো যেমন সোনা দিয়ে তৈরি, তেমনই বাথরুম থেকে সুইমিংপুল— সবই সোনার পাত দিয়ে মোড়া। চা থেকে শুরু করে খাবার-দাবার, সব কিছু সোনার পাত্রেই পরিবেশন করা হবে। তার থেকেও বড় কথা হল, হোটেলের চেয়ার-টেবিল, খাট, আলমারি থেকে শুরু করে সমস্ত আসবাবপত্রও সোনার তৈরি।

এমনকী, হোটেলের টয়লেট থেকে শুরু করে লবি, ইনফিনিটি পুল, বাথরুমের শাওয়ারের মাথাটিও সোনা দিয়ে বানানো। হোটেলে থাকা কাস্টমারের কোনও গেস্ট দেখা করতে আসামাত্রই তাঁকেও সোনার কাপ-প্লেটে করেই কফি দেওয়া হবে।

হোটেলটির ভেতর এবং বাইরে যে পাঁচ হাজার বর্গমিটার জুড়ে সেরামিক টাইলস বসানো হয়েছে, সেই টাইলসগুলোও সম্পূর্ণ সোনা দিয়েই তৈরি। সোনায় মোড়া এই হোটেলটি মোট পঁচিশ তলার। আর ইমিউনিটি পুলটি রয়েছে একেবারে রুফটপে।

না, এটা শুধু পাঁচতারা হোটেলই নয়, এটা তার থেকেও বেশি কিছু। অর্থাৎ, এটাকে ছয় তারকাও বলা যায়। চব্বিশ ক্যারেটের চকচকে সোনার এই হোটেলটি তৈরি করা হয়েছে ভিয়েতনামের রাজধানী হানোইতে। আরও নির্দিষ্ট করে বলতে গেলে বলতে হয়, হোটেলটি হানোইয়ের বা দিন জেলার গিয়াং ভো লেকের এক্কেবারে ধারেই তৈরি করা হয়েছে।

nnn 1 ডলস হানোই গোল্ডেন লেক: <br>সোনার হোটেল পঁচিশ তলা হোটেল- পুরোটাই সোনার
ছবি: সংগৃহীত

হোটেলটির নাম— ডলস হানোই গোল্ডেন লেক। এই হোটেলটিকেই বিশ্বের প্রথম সোনার হোটেল হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হচ্ছে।

২০০৯ সালে হোটেলটির কাজ শুরু হয়। বিশ্বজুড়ে করোনার থাবায় সমস্ত কাজ আটকে গেলেও, আশা করা যাচ্ছে চলতি বছরের শেষের দিকেই জনসাধারণের জন্য এই হোটেলটি খুলে দেওয়া যাবে। তবে না, এই একটি সোনার হোটেল নির্মাণ করেই তারা ক্ষান্ত হচ্ছেন না। পৃথিবীর বিভিন্ন প্রান্তে ইতিমধ্যেই এই রকম আরও ছ’-ছ’টি সোনার হোটেল বানানোর পরিকল্পনা নিয়েছে তারা।

এটি তৈরি করতে খরচ হচ্ছে প্রায়‌ ২০০ মিলিয়ন মার্কিন ডলার। যা প্রায় দেড় হাজার কোটি টাকার সমান। এই হোটেলটি নির্মাণ করছে ভিয়েতনামের হোয়া বিন গ্রুপ। হোটেল-সহ আরও অন্যান্য ব্যবসার পাশাপাশি এই গ্রুপের এমন একটি কারখানা রয়েছে, যেখানে তারা খুব সস্তায় নানান ধরনের সোনার জিনিসপত্র বানিয়ে দেয়।

হোটেলটির ম্যানেজমেন্টের দায়িত্ব থাকবে আমেরিকান সংস্থা উইনধাম হোটেল গ্রুপ।

না, এই হোটেলে থাকার ভাড়া কিন্তু সোনার হোটেল হিসেবে খুব একটা বেশি নয়। এই হোটেলের ঘর ভাড়া শুরু হচ্ছে দৈনিক ২৫০ মার্কিন ডলার থেকে। যা ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় কুড়ি হাজার টাকা। আর অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া? না, সেটাও এমন আহামরি কিছু নয়। মাত্র ৬৫০০ মার্কিন ডলার। মানে ওই পাঁচ লাখ টাকার কাছাকাছি। একটা সোনার হোটেলে রাত কাটানোর জন্য এটুকু খরচ তো করাই যায়, নাকি?

সিদ্ধার্থ সিংহ
সিদ্ধার্থ সিংহ
২০২০ সালে 'সাহিত্য সম্রাট' উপাধিতে সম্মানিত এবং ২০১২ সালে 'বঙ্গ শিরোমণি' সম্মানে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহের জন্ম কলকাতায়। আনন্দবাজার পত্রিকার পশ্চিমবঙ্গ শিশু সাহিত্য সংসদ পুরস্কার, স্বর্ণকলম পুরস্কার, সময়ের শব্দ আন্তরিক কলম, শান্তিরত্ন পুরস্কার, কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত পুরস্কার, কাঞ্চন সাহিত্য পুরস্কার, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা লোক সাহিত্য পুরস্কার, প্রসাদ পুরস্কার, সামসুল হক পুরস্কার, সুচিত্রা ভট্টাচার্য স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, অণু সাহিত্য পুরস্কার, কাস্তেকবি দিনেশ দাস স্মৃতি পুরস্কার, শিলালিপি সাহিত্য পুরস্কার, চেখ সাহিত্য পুরস্কার, মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার ছাড়াও ছোট-বড় অজস্র পুরস্কার ও সম্মাননা। পেয়েছেন ১৪০৬ সালের 'শ্রেষ্ঠ কবি' এবং ১৪১৮ সালের 'শ্রেষ্ঠ গল্পকার'-এর শিরোপা সহ অসংখ্য পুরস্কার। এছাড়াও আনন্দ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত তাঁর 'পঞ্চাশটি গল্প' গ্রন্থটির জন্য তাঁর নাম সম্প্রতি 'সৃজনী ভারত সাহিত্য পুরস্কার' প্রাপক হিসেবে ঘোষিত হয়েছে।
অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।