ইউক্রেনে ‘ডার্টি’ বোমার কোনও প্রমাণ পায়নি জাতিসংঘ

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
1 মিনিটে পড়ুন
টানা ১৮ মাস ধরে চলছে রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ । ফাইল ছবি

ইউক্রেনের তিনটি স্থানে অঘোষিত পারমাণবিক কর্মকাণ্ডের কোনও প্রমাণ পায়নি জাতিসংঘের নজরদারি সংস্থা। রাশিয়ার অভিযোগের ভিত্তিতে আন্তর্জাতিক আণবিক জ্বালানি সংস্থা (আইএইএ)-এর একটি দল কিয়েভের তিনটি স্থান পরিদর্শনের পর একথা বলা হলো। কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা এখবর জানিয়েছে।

আইএইএ প্রধান রাফায়েল গ্রসি এক বিবৃতিতে বলেন, আমাদের কারিগরি ও বৈজ্ঞানিক পর্যালোচনার ফলে কিয়েভের তিনটি স্থানে অঘোষিত পারমাণবিক কর্মকাণ্ড ও সরঞ্জামের কোনও ইঙ্গিত পাওয়া যায়নি।

তদন্ত দলের ফল প্রকাশ হওয়ার পর ইউক্রেনের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দিমিত্রো কুলেবা রাশিয়াকে বিশ্বের শীর্ষ মিথ্যুক হিসেবে উল্লেখ করেছেন।

এর আগে বুধবার ইউক্রেনে জীবানু অস্ত্রের কথিত উন্নয়নে ওয়াশিংটনের জড়িত থাকার অভিযোগের তদন্তের আহ্বান জানিয়ে রাশিয়ার প্রস্তাব নিরাপত্তা পরিষদ প্রত্যাখ্যাত হয়েছে। গত সপ্তাহে রাশিয়া আনুষ্ঠানিকভাবে জাতিসংঘের অভিযোগের তদন্তের অনুরোধ করেছিল।

- বিজ্ঞাপন -

বুধবার ভোটে যে রেজুলেশন পেশ করা হয়েছিল নিরাপত্তা পরিষদের স্থায়ী সদস্য রাষ্ট্রগুলোর মধ্যে তদন্তের পক্ষে রাশিয়া এবং চীন। বিপক্ষে ফ্রান্স, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ব্রিটেন অবস্থান নেয়। নিরাপত্তা পরিষদের ১০টি অস্থায়ী সদস্য সবাই ভোটদানে বিরত ছিল।

রাশিয়ার ডেপুটি রাষ্ট্রদূত দিমিত্রি পলিয়ানস্কি ভোটের ফলাফলের জন্য দুঃখ প্রকাশ করে বলেছেন, ‘পশ্চিমা দেশগুলো সব পন্থায় দেখিয়ে দিচ্ছে আইন তাদের ক্ষেত্রে প্রযোজ্য নয়। এটি একটি স্বাভাবিক ঔপনিবেশিক মানসিকতা যাতে আমরা অভ্যস্ত হয়ে গেছি এবং এতে আমরা বিস্মিত হই না।’

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!