27.7 C
Drøbak
রবিবার, আগস্ট ১৪, ২০২২
প্রথম পাতাসাম্প্রতিকআইন পর্যবেক্ষণ করে জাহাঙ্গীরের মেয়র পদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত

আইন পর্যবেক্ষণ করে জাহাঙ্গীরের মেয়র পদের বিষয়ে সিদ্ধান্ত

আওয়ামী লীগ থেকে আজীবন বহিষ্কার হওয়া জাহাঙ্গীর আলমকে নিয়ে এখন রাজনৈতিক অঙ্গনে নতুন একটি আলোচনা সামনে এসেছে। নৌকা প্রতীক নিয়ে গাজীপুর সিটি করপোরেশনে মেয়র নির্বাচিত হওয়া আলোচিত জাহাঙ্গীর আলম দল থেকে বহিষ্কৃত হওয়ায় মেয়র পদও হারাবেন কি না।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন বিদ্যমান অবস্থায় জাহাঙ্গীরের মেয়র পদ চলে যাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। সিটি করপোরেশন আইনেও এ বিষয়ে কোনো স্পষ্ট নির্দেশনা নেই। তবে সরকার চাইলে নির্বাহী আদেশে তাকে সরাতে পারে।

এদিকে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেছেন, জাহাঙ্গীর আলমের মেয়র থাকা না থাকার বিষয়ে আইন পর‌্যবেক্ষণ করে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

বঙ্গবন্ধু, মুক্তিযুদ্ধে শহীদ এবং আওয়ামী লীগের একাধিক নেতার সমালোচনা করে জাহাঙ্গীরের একটি ভিডিও বেশ কিছুদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এরপর থেকে দলে কোণঠাসা হয়ে যান প্রভাবশালী এই নেতা। শুরু থেকে অবশ্য জাহাঙ্গীর আলম দাবি করে আসছেন, অডিওটি সুপার এডিট করে তাকে হেয় করার জন্য প্রকাশ করেছে তার বিপক্ষ গ্রুপ।

দল থেকে তাকে শোকজ করা হলে তিনি যথাসময়ে জবাবও দেন। কিন্তু তার জবাবে সন্তুষ্ট হতে পারেনি ক্ষমতাসীন দল। সবশেষ শুক্রবার দলের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকে জাহাঙ্গীরকে আজীবনের জন্য বহিষ্কার করা হয়।

এদিকে স্থানীয় সরকার আইন অনুযায়ী সিটি করপোরেশনে মেয়র পদে নির্বাচনের জন্য রাজনৈতিক দলের মনোনয়ন নিতে হয়। কিন্তু নির্বাচিত হওয়ার পর ব্যক্তি যদি দলে না থাকেন, তাহলে কী হবে সেটি বলা নেই।

যদিও সংসদ সদস্যদের বিষয়ে স্পষ্ট বলা আছে, দলীয় পদ হারালে ব্যক্তি নির্বাচিত হওয়ার পরও সংসদ সদস্য পদ হারাবেন।

এখানে আইনের অস্পষ্টতা রয়েছে বলে মনে করেন সুশাসনের জন্য নাগরিকের (সুজন) সাধারণ সম্পাদক ও স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ বদিউল আলম মজুমদার।

শনিবার রাতে তিনি বলেন, ‘কোনো রাজনৈতিক দল থেকে নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি বহিষ্কার হলে কী হবে সে বিষয়ে সিটি করপোরেশন আইনে সুস্পষ্ট বিধান নেই। সে হিসেবে আইনত জাহাঙ্গীরের মেয়র পদ ছেড়ে দেওয়ার কোনো বাধ্যবাধকতা নেই।’

বিষয়টি আদালতের মাধ্যমে ফয়সালা হতে পারে বলেও মনে করেন বদিউল আলম।

আওয়ামী লীগদলীয় সূত্রে জানা যায়, আওয়ামী লীগের কার্যনির্বাহী কমিটির বৈঠকেও জাহাঙ্গীরের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেয়ার আলোচনা হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে স্থানীয় সরকার বিভাগের মতামতও নেয়া হয়েছে।

আইন অনুযায়ী জাহাঙ্গীরকে মেয়র পদ হারানোর সুযোগ নেই এমনটা জানিয়ে স্থানীয় সরকার বিশেষজ্ঞ তোফায়েল আহমেদ বলেন, স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয় চাইলে নির্বাহী আদেশে তাকে এই পদ থেকে বহিষ্কার করতে পারে।

বঙ্গবন্ধুকে কটূক্তি করায় আইন লঙ্ঘন হয়েছে মন্তব্য করে তোফায়েল আহমেদ বলেন, বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে অবমাননাকর বক্তব্য দেয়ার কারণে তার পদ থেকে চলে যেতে হলেও সেটি আদালতের মাধ্যমে ঠিক হবে।

অন্যদিকে নৈতিক স্খলন বা ফৌজদারি অপরাধ না থাকলেও নির্বাহী আদেশে মন্ত্রণালয় থেকে মেয়র পদ থেকে বহিষ্কার করতে পারে বলে মনে করেন তিনি।

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
editor@samoyiki.com

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
sahitya@samoyiki.com

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।