1.6 C
Drøbak
বুধবার, জানুয়ারী ২৬, ২০২২
প্রথম পাতাঅর্থনীতিচলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে সাদা হয়েছে ১৫ কোটি টাকা

চলতি অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে সাদা হয়েছে ১৫ কোটি টাকা

চলতি ২০২১-২২ অর্থবছরের প্রথম তিন মাসে ১৫ কোটি ৩০ লাখ কালো টাকা সাদা করেছেন ১২৩ ব্যক্তি। এর মধ্যে শেয়ারবাজারে বিনিয়োগ করে সাদা করা হয়েছে ৩০ লাখ টাকা এবং অন্যান্য খাতে সাদা করা হয়েছে বাকি ১৫ কোটি টাকা।

এ পরিমাণ অর্থ সাদা করার জন্য সরকারি কোষাগারে জমা দিতে হয়েছে ৩ কোটি ৩১ লাখ টাকা। শেয়ারবাজারে ৩০ লাখ টাকা বিনিয়োগ করে সাদা করায় সরকার কর পেয়েছে ১ লাখ টাকা। অন্যান্য খাতে ১৫ কোটি ৩০ লাখ টাকা সাদা করায় সরকার কর পেয়েছে ৩ কোটি ৩০ লাখ টাকা।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ড সূত্রে জানা গেছে, চলতি অর্থবছরে শেয়ার বাজার ও অন্যান্য খাতে প্রযোজ্য হারে কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ রাখা হয়েছে। তবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ গেল ২০২০-২১ অর্থবছরের চেয়ে সংকুচিত বা কঠোর করা হয়েছে।

চলতি অর্থ বছরে সংশ্লিষ্টখাতে প্রযোজ্য হারে করের সঙ্গে অতিরিক্ত ৫ শতাংশ দিয়ে কালো টাকা সাদা করার বিধান রাখা হয়েছে। আগের অর্থবছরে গড় ১০ শতাংশ কর দিয়ে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ দেওয়া হয়েছিল।

২০২০-২১ অর্থবছরে ১১ হাজার ৮৫৯ ব্যক্তি ২০৬ বিলিয়ন কালো টাকা সাদা করেছেন। জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের কর্মকর্তারা বলেছেন, দেশ স্বাধীন হওয়ার পর কালো টাকা সাদা করা অতীতের সব রেকর্ড ছাড়িয়ে গেছে। জাতীয় রাজস্ব বোর্ড কালো টাকা সাদা করার গড় ট্যাক্স ১০ শতাংশ হিসেবে মোট ২০ বিলিয়ন টাকার রাজস্ব সংগ্রহ করেছে।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) তথ্য মতে, সাদা করা অর্থ শেয়ার বাজার, নগদ, ব্যাংক আমানত, বন্ড, ফ্ল্যাট, জমি ও অন্যান্য খাতে বিনিয়োগ করেছে।

সাদা করা মোট অর্থের মধ্যে নগদ, ব্যাংক আমানত এবং অন্যান্য সিকিউরিটিতে সবচেয়ে বেশি বিনিয়োগ হয়েছে। পরবর্তী অবস্থানে রয়েছে ফ্ল্যাট, বাড়ি ও জমিতে বিনিয়োগ।

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।