12.1 C
Drøbak
বুধবার, আগস্ট ৪, ২০২১
প্রথম পাতামুক্ত সাহিত্যস্বপ্ন – স্মরণ নেলসন ম্যান্ডেলার স্মরণে –

স্বপ্ন – স্মরণ
নেলসন ম্যান্ডেলার স্মরণে –

সবুজ চোখে জ্বলন্ত আগুন হিংসার ,
কঠিন আঙুলের ভাঁজে – জ্বলন্ত ট্রিগার ,
গর্জে ওঠে বার বার – অনেক বার –
প্রবাহিত রক্তের নদী – ধূসর দুস্তর পারাবার ।
ঝলসায় কালো মানিক – হিরে ঝলসায় আক্রোশে ;
দাঁড়ায় ওদের পাশে ।

ওরা হাতাশায় ভেঙে পড়ে – কাঁদে ,
দুর্দম স্বৈরাচারীর আক্রমণে – বর্ণবিদ্বেষের অপমানে ।
‍ ‘ওরা যে কালো ওরা সৃষ্টির জঞ্জাল –
পৃথিবীর বুক থেকে – ওদের সরাতেই হবে – ’
ক্ষমতার আস্ফালন – পশুত্বের কোলাহল ।
ওদের শ্বাপদ থাবায় – দম্ভের শ্বেতকেতন ।
তুমি এগিয়ে চলো – তোমার হৃদয় তন্ত্রীতে সমবেদনার চেতন ।
উদ্ধত বিক্রমে ধরো বঞ্চিত , শোষিত মানুষের হাত ।

সাম্যবাদী তুমি –
মানুষের অধিকার জেতার লক্ষ্যে কালব্যাপী তোমার সংঘাত ।
এ পৃথিবীতে মানুষই শানায় অস্ত্র , মানুষের বিরুদ্ধে ,
মানুষই বোনে ধান , কাটে মাথা মানুষের , অন্যায় যুদ্ধে ।
কালো মানিক কাঁদে – ঝলসায় বিদ্রোহে – প্রতিবাদে ।
কালো মানিক সেদিন -৪৬৬৬৪ – ওদের কয়েদে ।
আসে ঝড় – প্রবল প্লাবনে চুরমার – সাদাদের বিজয় দম্ভ ।

মাদিবা – তুমি – শান্তির দূত –
নিপীড়িত মানুষের মাঝে , উজ্জ্বল আলোক স্তম্ভ ।
অসাম্য বিভেদের কালো মেঘে – টাটা –তুমি শত সূর্য আলোক –প্রভা ।
পৃথিবীর বুকে – চির – অম্লান তোমার মানব – প্রেমের , শাশ্বত স্বচ্ছ্ব – বিভা।

রঞ্জনা রায়
রঞ্জনা রায়
কবি পরিচিতি: অখণ্ড মেদিনীপুর জেলার দাঁতন থানার অন্তর্গত কোতাইগড়--- তুর্কা এস্টেটের জমিদার বংশের সন্তান রঞ্জনা রায়। জন্ম, পড়াশুনা ও বসবাস উত্তর কলকাতায়। বেথুন কলেজ থেকে বাংলা সাহিত্যে সাম্মানিক স্নাতক এবং কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতকোত্তর উপাধি লাভ করেন। ১৯৭০ সালের ৩০শে মে রঞ্জনা রায় জন্মগ্রহণ করেন। পিতার নাম স্বর্গীয় জগত কুমার পাল, মাতা স্বর্গীয় গীতা রানি পাল। স্বামী শ্রী সন্দীপ কুমার রায় কলকাতা উচ্চ ন্যায়ালয়ের আইনজীবী ছিলেন। রঞ্জনা উত্তরাধিকার সূত্রে বহন করছেন সাহিত্যপ্রীতি। তাঁর প্রপিতামহ স্বর্গীয় চৌধুরী রাধাগোবিন্দ পাল অষ্টাদশ দশকের শেষভাগে 'কুরু-কলঙ্ক’ এবং 'সমুদ্র-মন্থন’ নামে দু'টি কাব্যগ্রন্থ রচনা করে বিদ্বজনের প্রশংসা অর্জন করেছিলেন। ইতিপূর্বে রঞ্জনা রায়ের প্রথম কাব্যগ্রন্থ 'এই স্বচ্ছ পর্যটন’ প্রকাশিত হয়েছে এবং তাঁর দ্বিতীয় কাব্যগ্রন্থ 'ট্রিগারে ঠেকানো এক নির্দয় আঙুল' সাহিত্যবোদ্ধাদের প্রভূত প্রশংসা পেয়েছে। তৃতীয় কাব্যগ্রন্থ 'নিরালা মানবী ঘর' (কমলিনী প্রকাশন) ও চতুর্থ কাব্যগ্রন্থ 'ইচ্ছে ঘুড়ির স্বপ্ন উড়ান' (কমলিনী প্রকাশন) দে’জ পাবলিশিংয়ের পরিবেশনায় প্রকাশিত। বাংলাদেশ, অস্ট্রেলিয়া, কানাডা ও পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন সাহিত্য পত্রিকায় কবির কবিতা নিরবিচ্ছিন্ন ভাবে প্রকাশিত হয়ে চলেছে।
অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।