ইউক্রেনে বাঁধ বিস্ফোরণে লোকালয়ে ঢুকছে পানি, বিপদে বহু মানুষ

সাময়িকী ডেস্ক
সাময়িকী ডেস্ক
2 মিনিটে পড়ুন
বন্যার পানিতে দুইজন ব্যাক্তি হেটে যাচ্ছেন নিরাপদ আশ্রয়ের দিকে। ছবি রয়টার্স

ইউক্রেনে বাঁধ বিস্ফোরণে লোকালয়ে ঢুকছে পানি, বিপদে বহু মানুষ

ইউক্রেনের খেরসনের নোভা কাখোভকা বাঁধ ভেঙে তলিয়ে যেতে পারে ৮০টি শহর এবং অনেক গ্রাম। ইউক্রেনীয় প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি এমন শঙ্কা প্রকাশ করার পর অনেক বাসিন্দাকে সরিয়ে নেওয়া হচ্ছে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা থেকে ।

একদিনে অনেক জায়গা ইতোমধ্যে প্লাবিত হওয়ায় চরম দুর্ভোগ সৃষ্টি হয়েছে। উদ্ধার তৎপরতা শুরু করেছে ইউক্রেনের জরুরি পরিষেবা।

ইউক্রেনে বাঁধ বিস্ফোরণে লোকালয়ে ঢুকছে পানি, বিপদে বহু মানুষ
একজন নারী ঘরের সামনে দাড়িয়ে আছেন। ছবি রয়টার্স

রাশিয়ার নিয়ন্ত্রণে থাকা ইউক্রেনের দক্ষিণাঞ্চলের ‘নোভা কাখোভকা’ জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের বাঁধটি মঙ্গলবার ভোরের দিকে বিস্ফোরণ দিয়ে উড়িয়ে দেওয়া নিয়ে পরস্পরকে দুষছে ইউক্রেন ও রুশ কর্তৃপক্ষ।

খেরসন অঞ্চলে ডিনিপ্রো নদীর উজানে অবস্থিত জলবিদ্যুৎ প্রকল্পের ‘নোভা কাখোভকা’ বাঁধটি। মঙ্গলবার ভোরের দিকে কে বা কারা বিস্ফোরণ দিয়ে একাংশ উড়িয়ে দেয়।

- বিজ্ঞাপন -

এতে বাঁধ ও জলবিদ্যুৎ কেন্দ্রের মধ্য দিয়ে পানি অনিয়ন্ত্রিতভাবে প্রবাহিত হচ্ছে। ইউক্রেনের দখলে থাকা অংশের দিকে অনেক জায়গা প্লাবিত।

খেরসনের ইউক্রেনপন্থি কর্তৃপক্ষ বলছে, একটি বিপর্যয়কর বন্যার ঝুঁকি সৃষ্টি হয়েছে। জলাধারের পানির ওপর নির্ভর করে থাকতে হয় সেখানকার কৃষকদের। জাপোরিজ্জিয়া পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রের পানির যোগানও আসে এখান থেকেই।

ইউক্রেনে বাঁধ বিস্ফোরণে লোকালয়ে ঢুকছে পানি, বিপদে বহু মানুষ
বন্যার পানিতে প্লাবিত হওয়ার একটি দৃশ্য। ছবি এপি

এ পরিস্থিতিতে ঝুঁকিপূর্ণ এলাকার লোকজন নিরাপদ আশ্রয় খুঁজছেন। ইউক্রেনের উপ-প্রসিকিউটর জেনারেল ভিকটোরিয়া লিটভিনোভা টেলিভিশনে সাক্ষাৎকারে বলেন, ডিনিপ্রো নদীর পশ্চিমে ইউক্রেন নিয়ন্ত্রিত অঞ্চলে ১৭ হাজার এবং রাশিয়ার নিয়ন্ত্রিত পূর্বে কমপক্ষে ২৫ হাজার বাসিন্দা অবিলম্বে সরিয়ে নেওয়া উচিত।

ইউক্রেনে বাঁধ বিস্ফোরণে লোকালয়ে ঢুকছে পানি, বিপদে বহু মানুষ
বন্যার পানি প্রবাহিত হচ্ছে । ছবি এপি

ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ইহোর ক্লাইমেনকো জানান, এ পর্যন্ত প্রায় এক হাজারের বেশি মানুষকে সরিয়ে নেওয়া সম্ভব হয়েছে। ২৪টি বসতি প্লাবিত হয়েছে। নদীর পানির উচ্চতা হু হু করে বাড়ছে।

খেরসন শহরের বাসিন্দা সেরহি বলেন, পানি যেভাবে বাড়ছে তাতে মনে হচ্ছে এখানকার পশু-পাখি সবকিছুই মারা যাবে।

- বিজ্ঞাপন -

গুগল নিউজে সাময়িকীকে অনুসরণ করুন 👉 গুগল নিউজ গুগল নিউজ

এই নিবন্ধটি শেয়ার করুন
একটি মন্তব্য করুন

প্রবেশ করুন

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

পাসওয়ার্ড ভুলে গেছেন?

আপনার অ্যাকাউন্টের ইমেইল বা ইউজারনেম লিখুন, আমরা আপনাকে পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার জন্য একটি লিঙ্ক পাঠাব।

আপনার পাসওয়ার্ড পুনরায় সেট করার লিঙ্কটি অবৈধ বা মেয়াদোত্তীর্ণ বলে মনে হচ্ছে।

প্রবেশ করুন

Privacy Policy

Add to Collection

No Collections

Here you'll find all collections you've created before.

লেখা কপি করার অনুমতি নাই, লিংক শেয়ার করুন ইচ্ছে মতো!