শুক্রবার, ডিসেম্বর ২, ২০২২

রেড জোনর নিরাপত্তায় সেনা মোতায়েনের ঘোষণা পাকিস্তান সরকারের

প্রকাশিত:

ইসলামাবাদের ‘রেড জোনের’ নিরাপত্তায় সেনাবাহিনীর সাহায্য চেয়েছে শেহবাজ শরিফ নেতৃত্বাধীন সরকার। ইতোমধ্যে দেশটির বর্তমান সরকার সেনাবাহিনী মোতায়েনের অনুমতিও দিয়েছে। ডনের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সরকারি গুরুত্বপূর্ণ ভবন রক্ষায় সেনাবাহিনী মোতায়েন করা হবে।

বৃহস্পতিবার (২৬ মে) দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রানা সানাউল্লাহ টুইটে বলেছেন, সংবিধানের ২৪৫ অনুচ্ছেদের অধীনে রেড জোনে সেনাবাহিনী মোতায়েনের অনুমোদন দিয়েছে সরকার।

টুইটে তিনি এ বিষয়ক একটি প্রজ্ঞাপন যুক্ত করেছেন। প্রজ্ঞাপনে উল্লেখ করা হয়, যে ভবনগুলো সুরক্ষিত রাখা হবে তার মধ্যে রয়েছে- সুপ্রিম কোর্ট, সংসদ ভবন, প্রধানমন্ত্রী ভবন, প্রেসিডেন্সি, পাকিস্তান সচিবালয় এবং কূটনৈতিক ছিটমহল।

বৃহস্পতিবার মাঝ রাতে পাকিস্তানের ক্ষমতাচ্যুত প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের রাজনৈতিক দল পাকিস্তান তেহরিক-ই-ইনসাফের (পিটিআই) ডাকা আজাদি মার্চ ইসলামাবাদে প্রবেশ করেছে। ইমরান খান এখান থেকে ডি–চকে তার দলের কর্মী–সমর্থকদের কাছে যাবেন। তার এই কর্মসূচি ঠেকাতে বর্তমান সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এদিকে পিটিআই’র ডাকা আজাদি মার্চ ঘিরে দেশটির বিভিন্ন প্রান্ত থেকে রাজধানীর দিকে আসা নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ব্যাপক সংঘর্ষ হয়েছে। আজাদি মার্চ ঠেকাতে পুলিশ ইসলামাবাদের সড়কে সড়কে প্রতিবন্ধকতা বসালেও সেগুলো সরিয়ে ফেলেছেন কর্মীরা।

দেশটির বৃহত্তম পাঞ্জাব প্রদেশে পুলিশের সাথে সংঘর্ষ, পিটিআই কর্মীদের লক্ষ্য করে কাঁদানে গ্যাস নিক্ষেপ ও লাহোরে দফায় দফায় সংঘাত হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতেও ইমরান খান কোনো বাধাই আজাদি মার্চ ঠেকাতে পারবে না বলে হুঙ্কার দিয়েছেন।

পিটিআইয়ের চেয়ারম্যান ইমরান খান গতকাল সমর্থকদের প্রকৃত স্বাধীনতার জন্য ইসলামাবাদ অভিমুখে পদযাত্রা শুরুর আহ্বান জানান। তার এই আহ্বানে সাড়া দিয়ে বুধবার দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে হাজার হাজার নেতাকর্মী ইসলামাবাদের উদ্দেশে যাত্রা করেছেন।

Subscribe

সর্বাধিক পঠিত সংবাদ

সংবাদ
সম্পর্কিত

ব্রাজিলকে হারিয়ে বিশ্বকাপ জিতবে আর্জেন্টিনা, বলছে ভবিষ্যদ্বাণী

বিশ্বকাপের ডামাঢোল বেজে উঠেছে। চলছে শেষ মুহূর্তের প্রস্তুতি। এর...

ইউক্রেনের সামরিক সদর দপ্তরে মিসাইল হামলা

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের সামরিক সদর দপ্তরে মিসাইল হামলার ঘটনা...

আজ ২৪ আগস্ট, কলকাতার জন্মদিন

কলকাতা, আমার কলকাতা ১৬৯০ সালের ২৪ অগস্ট ছিল একেবারে মেঘাচ্ছন্ন...
লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।