-5.6 C
Drøbak
সোমবার, নভেম্বর ২৯, ২০২১
প্রথম পাতাএক্সক্লুসিভএভাবেও ভাল থাকা যায় (পর্ব ২৭)

এভাবেও ভাল থাকা যায় (পর্ব ২৭)

পারিবারিক ভুল ত্রুটির গল্প কারো সাথে আলোচনা করতে নেই

জীবনে এমন কিছু বিষয় রয়েছে, যেগুলো নিয়ে কখনোই অন্যের সঙ্গে আলোচনা করা উচিত নয়। পৃথিবীতে কিছু বিষয় আছে যা বিশ্বের মানুষের কাছে তুলে ধরার তো নয়ই, কোনো বন্ধু বা পরিচিতজনের কাছেও নয়। নিজের জীবনের কিছু গল্প, বিশেষ করে কিছু বিচ্ছেদের বা হারানোর কথা কারো সঙ্গে আলোচনা না করাই ভাল। বিশেষ করে এমন কিছু বিষয় আছে যা নিয়ে আলোচনা করা মানেই নিজের কাছে নিজের ক্ষতি করা। বিশেষ করে পারিবারিক ভুল ত্রুটির গল্প কখনোই কারো সাথে আলোচনা করা উচিত নয়। এতে পরিবারের ঐতিহ্য যেটুকুই থাক তা অন্যের কাছে তুলে ধরা মানেই নিজের পরিবারের চিত্র একজনের সামনে তুলে ধরে পক্ষান্তরে এতে নিজেকে এবং নিজের পরিবারকেই ছোট করা ।

  • আর্থিক সমস্যার কথা

আর্থিক সমস্যার কথা কখনোই কারো সাথে আলোচনা করতে নেই। প্রবল অর্থ সঙ্কটের মধ্যে দিয়ে গেলেও সে কথা নিজের কাছেই রাখতে হয়। কারো কাছে নিজের অভাবের কথা বলে লাভটাই বা কি। আর্থিক সঙ্কটের কথা শোনার পর কেউ কি সাহায্য করবে? নিশ্চয়ই নয়। তাহলে? পাশে এসে দাঁড়াবে মনে হয়? না দাঁড়াবে না। দাঁড়ালেও তা হবে কপটতা। আর যে হাত পেতে তা নিচ্ছে সে একজন সাহায্যপ্রার্থী। সমাজ কিন্তু এই ধরনের মানুষকে সম্মান জানায় না, সবসময়ই সাহায্যপ্রার্থীকে দয়ার বা কৃপাপ্রাথী হয়ে থাকতে হবে।

  • নিজের সমস্যার কথা

প্রতিটি মানুষেরই সমস্যা আছে। যার সমস্যা তাকেই সমাধানের পথ খুঁজতে হবে। মনে করা যাক, সমস্যাটা আপনার, তাহলে সেই সমস্যার গল্প আর একজন শুনবে কেন? আর শুনলেই যে আপনার কোনো কাজে সে আসবে তাও নয়। ব্যক্তিগত সমস্যার কথা গোপন রাখাই উচিত। ব্যক্তিগত সমস্যার কথা সবাই জানলে আপনাকে নিয়ে আড়ালে আলোচনা করবে, উপহাস করবে। সবাই তা নিয়ে হাসি-ঠাট্টা করবে।

  • নিজের স্ত্রী বা স্বামীর চরিত্রের কথা

অন্যের কাছে নিজের স্ত্রী বা স্বামীর চরিত্র নিয়ে আলোচনা না করাই শোভনীয়। যারা একটু নিজস্ব বুদ্ধি নিয়ে চলেন তারা কখনোই এমনটা করেন না। কিছু মানুষ নিজের স্ত্রীকে নিয়ে সবার সামনে এমন চর্চা করেন এবং এমন কিছু বলে ফেলেন, যা একেবারেই শোভনীয় নয়। যার পরিণতি ভয়ানক হতে পারে। পাশাপাশি নিজের স্বামীকে নিয়ে আলোচনাও খুবই বিসদৃশ।

  • অবহেলিতদের থেকে অপমানিত হওয়ার কথা

অবহেলিতদের থেকে অপমানিত হওয়ার কথা নিজের কাছে গোপন রাখাই ভাল। এই ঘটনার বহিঃপ্রকাশ যেকোনো ব্যক্তিকে হাস্যকর উপদানে পরিণত করতে পারে যা ওই ব্যক্তির আত্মসম্মানে ধাক্কা লাগে।

(চলবে)

মণিজিঞ্জির সান্যাল
মণিজিঞ্জির সান্যাল
মণিজিঞ্জির সান্যাল, বাংলা সাহিত্যে এম.এ., ক্ল্যাসিক্যাল নৃত্য প্রভাকর; জন্মদিন: ২৯শে বৈশাখ, ইং ১৩ই মে; জন্মস্থান: ভারতবর্ষ, পশ্চিমবঙ্গের দার্জিলিং জেলার শিলিগুড়ি। যে সব পত্র পত্রিকায় লিখেছেন: আনন্দবাজার, দেশ, সানন্দা, শুকতারা, কিশোর ভারতী, শিলাদিত্য, যুগ শঙ্খ, নন্দন, তথ্যকেন্দ্র, উত্তরবঙ্গ সংবাদ পত্রিকা, উত্তরের সারাদিন, স্টেটসম্যান, অন্যদিন পত্রিকা (বাংলাদেশ), এছাড়া অসংখ্য লিটিল ম্যাগাজিনে গল্প, উপন্যাস, কবিতা, ভ্রমণ কাহিনী প্রকাশিত হয়েছে। দেশের বাইরে কুয়েত, বাংলাদেশ, কানাডা, লন্ডন এমন অনেক বিদেশের পত্র পত্রিকায় নিয়মিত লেখা প্রকাশিত হয়। প্রকাশিত বই: (১) একটুকু ছোঁয়া লাগে (কলকাতা থেকে প্রকাশিত) (২) স্বপ্নের পৃথিবী (কলকাতা থেকে প্রকাশিত) (৩) অতৃপ্ত আত্মার সঙ্গে (৪) সমুদ্র তোমার সঙ্গে (বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত) (৫) সম্পর্কের পরিচর্যা (বাংলাদেশ থেকে প্রকাশিত) (৬) কমলালেবুর রস নোনতা (কলকাতা থেকে প্রকাশিত) (৭) ভালোবাসার গোপন দরজা (৮) মাটির কাছাকাছি
অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।