-5.6 C
Drøbak
সোমবার, নভেম্বর ২৯, ২০২১
প্রথম পাতাবিচিত্রা'ইলিয়াড' এবং 'ওডিসি' কবির স্বলিখিত নয়

‘ইলিয়াড’ এবং ‘ওডিসি’ কবির স্বলিখিত নয়

গোটা বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় অমর মহাকাব্য ‘ইলিয়াড’ এবং ‘ওডিসি’ আদৌ কোনও কবির স্বলিখিত নয়। ওই কাব্যগ্রন্থটিতে ট্রয় নগরীর কাহিনি এবং তার সঙ্গে যেৎসব ঘটনায় জড়িয়ে ছিল, সেগুলোই প্রধান উপাদান হয়ে উঠেছে। এই গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক তথ্য বাদ দিলেও, এর মধ্যে এমন এক সত্যগ্রহ চিরন্তন আবেদন আছে, যার জন্য এই দুটি কাহিনি আজও পাঠকের কাছে সমান ভাবে আদৃত।

কিন্তু কোনও কবি যদি না-ই লিখবেন, তবে এটা এল কোথা থেকে? আসলে এই মহাকাব্য যিনি রচনা করেছিলেন, সেই কবি ছিলেন জন্মান্ধ। তাই তাঁর পক্ষে এই মহাকাব্য লেখা সম্ভব হয়নি। তিনি চারণ কবির মতো বিভিন্ন জায়গায় ঘুরে ঘুরে মহাকাব্য দুটি খানিকটা নাটকীয় ভঙ্গিতে মুখস্থ বলে যেতেন আর শাশ্বত প্রাচীন কাহিনির এই ঘটনাবলি তাঁর সুন্দর উচ্চারণে একেবারে জীবন্ত হয়ে উঠতে। শ্রোতারা যেন ছায়াছবির মতো চোখের সামনে দেখতে পেতেন কাহিনির পুঙ্খানুপুঙ্খ প্রতিটি দৃশ্য। তাঁদের গায়ে কাঁটা দিয়ে উঠত।

সে সময় এটা এত জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল যে, অনেকেই উৎসুক হয়ে, ঠিক একই রকম ভঙ্গিটঙ্গী-সহ প্রায় হুবহু নকল করে তুলে নিতেন নিজের গলায় এবং জনসমক্ষে সেটা আবৃত্তি করে শোনাতেন।

এই ভাবেই সেই কালজয়ী কাব্যগাথা পুরুষানুক্রমে লোকের মুখে মুখে ঘুরে অবশেষে তা বই হয়ে বেরোয়। তাই অনেকেই মনে করেন, আবৃত্তিকারদের কেউ কেউ হয়তো কোনও কোনও অংশ নিজেরাই বানিয়ে কাহিনির সঙ্গে মিশিয়ে থাকতে পারেন। অবশ্য এই ধারণার পিছনে এখনও পর্যন্ত কোনও অকাট্য প্রমাণ খুঁজে পাওয়া যায়নি। অগত্যা কাব্যগ্রন্থদ্বয়ের কবি বলতে স্বীকৃত ওই একজনই।

এই দুটি কাব্যগ্রন্থ ছাড়াও তাঁর সৃষ্টির সংখ্যা অনেক। ওঁকেই ইউরোপীয় কাব্যের জনক এবং গ্রিস দেশে প্রচলিত ধর্মীয় প্রথার প্রবর্তক ও শিক্ষার উৎস হিসেবে মান্য করা হয়। কিন্তু ইনি কে? পণ্ডিতগণের গবেষণায় জানা গেছে, আটশো পঞ্চান্ন খ্রিস্টাব্দের আগে অথবা ট্রোজান যুদ্ধের চারশো বছর পরে ইনি জন্মগ্রহণ করেন। গ্রিক কবি হিসেবে খ্যাতি লাভ করলেও, তাঁর পূর্বপুরুষ ছিলেন এশিয়াবাসী। তাঁর জন্মস্থান নিয়ে নানা মতবাদ আছে। বিতর্ক আছে। তিনি আর কেউ নন, সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ মহাকবি— হোমার।

সিদ্ধার্থ সিংহ
সিদ্ধার্থ সিংহ
২০২০ সালে 'সাহিত্য সম্রাট' উপাধিতে সম্মানিত এবং ২০১২ সালে 'বঙ্গ শিরোমণি' সম্মানে ভূষিত সিদ্ধার্থ সিংহের জন্ম কলকাতায়। আনন্দবাজার পত্রিকার পশ্চিমবঙ্গ শিশু সাহিত্য সংসদ পুরস্কার, স্বর্ণকলম পুরস্কার, সময়ের শব্দ আন্তরিক কলম, শান্তিরত্ন পুরস্কার, কবি সুধীন্দ্রনাথ দত্ত পুরস্কার, কাঞ্চন সাহিত্য পুরস্কার, দক্ষিণ চব্বিশ পরগনা লোক সাহিত্য পুরস্কার, প্রসাদ পুরস্কার, সামসুল হক পুরস্কার, সুচিত্রা ভট্টাচার্য স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার, অণু সাহিত্য পুরস্কার, কাস্তেকবি দিনেশ দাস স্মৃতি পুরস্কার, শিলালিপি সাহিত্য পুরস্কার, চেখ সাহিত্য পুরস্কার, মায়া সেন স্মৃতি সাহিত্য পুরস্কার ছাড়াও ছোট-বড় অজস্র পুরস্কার ও সম্মাননা। পেয়েছেন ১৪০৬ সালের 'শ্রেষ্ঠ কবি' এবং ১৪১৮ সালের 'শ্রেষ্ঠ গল্পকার'-এর শিরোপা সহ অসংখ্য পুরস্কার। এছাড়াও আনন্দ পাবলিশার্স থেকে প্রকাশিত তাঁর 'পঞ্চাশটি গল্প' গ্রন্থটির জন্য তাঁর নাম সম্প্রতি 'সৃজনী ভারত সাহিত্য পুরস্কার' প্রাপক হিসেবে ঘোষিত হয়েছে।
অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।