12.2 C
Drøbak
শনিবার, সেপ্টেম্বর ১৮, ২০২১
প্রথম পাতাআন্তর্জাতিকউল্কার ঝলকে নরওয়ে আলোকিত

উল্কার ঝলকে নরওয়ে আলোকিত

রাতের আকাশে উজ্জ্বল এক উল্কা ভস্ম হয়ে যাওয়া দেখে হতবাক হয়ে পড়েছে নরওয়ের বাসিন্দারা। ভিডিও ফুটেজে দেখা গেছে, দেশটির দক্ষিণ-পূর্ব এলাকায় শক্তিশালী আলোর ঝলকানি দেখা যায়।

প্রত্যক্ষদর্শীরা বলছেন, রবিবার এই ঝলকানির সঙ্গে সঙ্গে একটি জোরালো শব্দও শোনা যায়। দেশটির পুলিশ জানিয়েছে, এই ঘটনার পর বেশ কয়েকটি জরুরি কল পেলেও কোনও হতাহত বা ক্ষয়ক্ষতির খবর পাওয়া যায়নি। ধারণা করা হচ্ছে, রাজধানী অসলোর কাছে একটি বনাঞ্চলে উল্কাপিন্ডের অবশেষ পড়েছে। বিশেষজ্ঞ একটি দল সেখানে অনুসন্ধান শুরু করেছে। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসির প্রতিবেদন থেকে এসব তথ্য জানা গেছে।

মহাকাশে ভেসে বেড়ানো পাথর পৃথিবীর বায়ুমন্ডলে দ্রুত গতিতে প্রবেশের পর জ্বলে ওঠে। এটিকেই উল্কা বলা হয়ে থাকে। আর এর অবশেষ পৃথিবীর মাটিতে পড়লে তাকে উল্কাপিন্ড বলা হয়ে থাকে। নরওয়ের উল্কা নেটওয়ার্ক জানিয়েছে, রবিবার স্থানীয় সময় রাত প্রায় একটার দিকে অন্তত পাঁচ সেকেন্ড ধরে বায়ুমন্ডলে উল্কা জ্বলতে দেখা যায়।

প্রতি সেকেন্ডে প্রায় ১৬.৩ কিলোমিটার গতিতে ছুটে আসা উল্কাটিকে নরওয়ের দক্ষিণাঞ্চলের বড় অংশ জুড়েই দেখা যায়। দেশটির জ্যোতির্বিজ্ঞানী ভেগার্ড রেকা জানিয়েছেন ওই সময়ে তার স্ত্রী জেগে ছিলেন। তিনি জানিয়েছেন, বিস্ফোরণের আগে বাতাসে কিছু একটা কাঙপতে দেখেন তার স্ত্রী। নরওয়ে বা পৃথিবীর যেকোনও স্থানে দেখা যাওয়া চমৎকার এক ঘটনা বলে এটিকে বর্ণনা করেন তিনি।

জ্যোতির্বিজ্ঞানী ভেগার্ড রেকা জানিয়েছেন, ক্যাম্পিংয়ে থাকা একটি গ্রুপ জানিয়েছে, তাদের প্রায় মাথার উপরে বড় বিস্ফোরণ হয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে উল্কাপিন্ডটির ওজন প্রায় দশ কেজি। এটা খুব বেশি বড় না হলেও বহু মানুষ এটি দেখতে পাওয়ার ঘটনা বেশ বিরল।

উল্কাপিন্ড পৃথিবীতে আছড়ে পড়ার ঘটনা বেশ বিরল। তবে এর একটি ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি সাধন করতে পারে। ২০১৩ সালে রাশিয়ার উরাল পার্বত্য এলাকায় একটি উল্কাপিন্ড পড়লে প্রায় ১ হাজার ছয়শ’ মানুষ আহত হয়।

অন্যান্য নিবন্ধসমূহ

সংবাদদাতা এবং লেখা আবশ্যক

নরওয়ে থেকে প্রকাশিত একমাত্র বাংলা পত্রিকা ‘সাময়িকী’ পত্রিকার জন্য বাংলাদেশ সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ থেকে সংবাদদাতা আবশ্যক।
ভায়োলেট হালদার
প্রধান সম্পাদক
[email protected]

গল্প-কবিতা সহ বিবিধ সাহিত্য রচনা প্রসঙ্গে ইমেইল করুন।
লিটন রাকিব
সাহিত্য সম্পাদক
[email protected]

- বিজ্ঞাপন -

সর্বাধিক পঠিত

সদ্য প্রকাশিত

লেখা কপি করার অনুমতি নেই, লিংক শেয়ার করুন।