সাময়িকী.কম
ডালমিয়া! জগমোহন ডালমিয়া। ক্রিকেট নিয়েই যার জীবন, ক্রিকেটই তাঁর বন্ধু, ক্রিকেটই তাঁর পরিবার, ক্রিকেটই ছিলো তাঁর সবকিছু। বাংলাদেশ ক্রিকেটের শুভাকাঙ্ক্ষী অকৃত্রিম পরীক্ষিত বন্ধু ছিলেন তিনি। বাংলাদেশের টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পেছনে তাঁর প্রশংসনীয় ভূমিকা ছিলো।

আজ রবিবার রাতে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন ভারতীয় ক্রিকেটের প্রভাবশালী এই ব্যক্তিত্ব। বর্তমানে তিনি ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিসিআই) সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করছিলেন।

কেবল ভারত নয়, বাংলাদেশেও জগমোহন ডালমিয়া একজন জনপ্রিয় ব্যক্তি। বাংলাদেশের ক্রিকেটে তার অবদান চিরস্মরণীয়। তার কারণেই ২০০০ সালে টেস্ট স্ট্যাটাস পেয়েছিল বাংলাদেশ। তখন তিনি সুপারিশও করেছিলেন। সমর্থন দিয়ে গেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটে। তখন থেকে ডালমিয়ার সাথে ভালো একটি সম্পর্ক গড়ে ওঠে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের। বিভিন্ন সময়ে বাংলাদেশের প্রতি ভালোবাসা প্রদর্শন করে ডালমিয়া পরিচিতি পেয়েছিলেন ‘বাংলাদেশের বন্ধু’ হিসেবে। তার মৃত্যুতে তাই অকৃত্রিম এক বন্ধুকেই হারিয়েছে বাংলাদেশ।

এই ক্রিকেট অনুরাগীর জন্ম কলকাতায় ৩০ মে ১৯৪০। পড়াশোনা করেছেন কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধীন কলকাতা স্কটিশ চার্চ কলেজে। কলকাতা ক্রিকেট ক্লাবে এবং কলেজ টিমে তিনি উইকেট রক্ষক হিসেবে খেলতেন এবং একবার ডাবল সেঞ্চুরি করে সবাইকে তাক লাগিয়ে দেন। কর্মজীবনে তাঁর পিতার প্রতিষ্ঠান এমএল ডাল মিয়া এণ্ড কোং-এ যোগদান করেন পরবর্তীতে যা ভারতের শীর্ষ নির্মাণ সংস্থায় পরিণত হয়। খাঁটি নিরামিষভোজী ডালমিয়ার স্ত্রী চন্দ্রলেখা এবং এক মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে ছিলো সংসার।

আনিসুর বুলবুল
সুত্র: কালের কন্ঠ
বিভাগ: ,

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.