সাময়িকী.কম

এবার জাতিসংঘের ৭০তম সাধারণ অধিবেশন চলাকালে নিউ ইয়র্কে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ওবামার সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রায় পাঁচবার দেখা হবার সম্ভাবনা রয়েছে। আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে ভাষণ দেয়া ছাড়াও বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানেও বক্তব্য দেবেন প্রধানমন্ত্রী।
নিউ ইয়র্কে বাংলাদেশ মিশনে গত শুক্রবার আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে একথা জানানো হয়। জাতিসংঘে বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ড. আবদুল মোমেন জানান, আগামী ২৩ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্ক সময় রাত ১০টায় প্রধানমন্ত্রীর যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছার কথা রয়েছে। জন এফ কেনেডি বিমান বন্দর থেকে বেড়িয়ে এবার তিনি অবস্থান করবেন ম্যানহাটনের ওয়ালড্রফ এস্টোরিয়া হোটেলে। আগের বছরগুলোতে তিনি হোটেল হায়াতে অবস্থান করতেন। ২৪ সেপ্টেম্বর হোটেলেই ঈদুল আজহা উদযাপন ও স্থানীয় নেতা-কর্মীদের সাথে শুভেচ্ছো বিনিময়ের কথা রয়েছে। ২৫ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হবে প্রধানমন্ত্রীর নিউ ইয়র্ক সফরের ব্যস্ততা। ওইদিন সকাল ১০টায় খ্রিস্টান ধর্মের শীর্ষ ধর্মীয় নেতা পোপের জাতিসংঘে দেয়া ভাষণ শুনবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া বেশ কয়েকটি অনুষ্ঠানে যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামার সাথে শেখ হাসিনার পাঁচবার দেখা হচ্ছে বলে জানান তিনি। আবদুল মোমেন বলেন, আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশের স্পন্সরে পিস কিপিং-এর ওপর একটি সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে। যাতে মডারেটরের দায়িত্ব পালন করবেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা। আর স্পন্সর রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সেখানে কো-হোস্ট হিসেবে ভূমিকা পালন করবেন। এছাড়াও উগ্রসহিংসতা রোধ নিয়ে ২৯ সেপ্টেম্বর প্রেসিডেন্ট ওবামা আয়োজিত একটি ইভেন্টে যোগ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। ২৮ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় প্রধানমন্ত্রী প্রেসিডেন্ট ওবামা ও মিশেল ওবামার নৈশভোজে যোগ দেবেন। তিনি জানান, এ সফরে আগামী ২৬ সেপ্টেম্বর ইন্টারন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন ইউনিয়ন অ্যাওয়ার্ড ও ২৭ সেপ্টেম্বর পলিসি লিডারশিপের জন্য ইউএনইপি পুরস্কার গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী। জাতিসংঘের সাধারণ পরিষদে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর বরাবরের মতোই বাংলায় ভাষণ দেবেন প্রধানমন্ত্রী। এছাড়া জাতিসংঘের বাইরে প্রধানমন্ত্রী কলাম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের ‘গার্লস লিড দ্যা ওয়ে’ শীর্ষক এক সেমিনারে বক্তব্য দেয়ার কথা রয়েছে। ২৭ সেপ্টেম্বর নিউ ইয়র্কে হোটেল হিল্টনে নাগরিক সম্বর্ধনা গ্রহণ করবেন প্রধানমন্ত্রী। দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের মধ্যে চীনের প্রেসিডেন্ট জিনপিংয়ের সাথে প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকের কথা রয়েছে। সর্বশেষ প্রধানমন্ত্রী আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল ৪টায় নিউ ইয়র্কস্থ বাংলাদেশের স্থায়ী মিশনে স্থানীয় সাংবাদিকদের মুখোমুখি হবেন।
সুত্র: কালের কন্ঠ

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.