সাময়িকী.কম

বিবিসি বাংলার প্রতিবেদন 
অধিকাংশ ছিটমহল বাসিন্দা যে যার জায়গাতেই থেকে যেতে চান (ফাইল ছবি)

ভারতের মধ্যে বাংলাদেশের যে ৫১টি ছিটমহল রয়েছে সেখান থেকে কেউই বাংলাদেশে আসতে চাননি।
পক্ষান্তরে বাংলাদেশের ভেতর ভারতের ১১১টি ছিটমহল থেকে ৯৭৯ জন ভারতের নাগরিক হতে চেয়েছেন।
চলতি মাসের ৬ তারিখ থেকে ১৬ তারিখ পর্যন্ত করা দুদেশের যৌথ এক জরীপে এই তথ্য পাওয়া গেছে।
জরিপের ফলাফল আজ (মঙ্গলবার) এক সংবাদ সম্মেলন করে আনুষ্ঠানিক ভাবে প্রকাশ করেন বাংলাদেশের রংপুর বিভাগীয় কমিশনার।
পঞ্চগড়ের জেলা প্রশাসক মোঃ. সালাহউদ্দিন বিবিসিকে জানান, বাংলাদেশের মধ্যে ১১১টি ছিটমহল থেকে মোট ৯৭৯জন ভারতের নাগরিক হতে চান বলে তারা চূড়ান্ত তালিকা করেছেন।
তিনি বলেন, এই ৯৭৯ জন পহেলা আগস্ট থেকে ৩০ নভেম্বর পর্যন্ত ভারতে চলে যেতে পারবেন।
জরীপের সময় বাংলাদেশের অভ্যন্তরে ১১১টি ছিটমহলে ৫০টি যৌথ দল বাড়ী বাড়ী গিয়ে এবং ক্যাম্প করে হালনাগাদ সমীক্ষা করেন। এসব ছিটমহলের সাড়ে ৪১ হাজার মানুষকে জনগণনার অন্তর্ভুক্ত করা হয়।
অন্যদিকে ভারতের কোচবিহারের প্রশাসন বলছে ভারতের ভেতরে বাংলাদেশের যে ৫১টি ছিটমহল রয়েছে সেখানকার ১৪হাজার বাসিন্দার কেউই বাংলাদেশে আসতে চান না।
আগামী ২৩শে জুলাই দুই দেশের যৌথ ওয়ার্কিং গ্রুপের একটি বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। সেই বৈঠকে ভারতে যেতে ইচ্ছুক ব্যক্তিরা কোন সীমান্ত পথ দিয়ে ভারতে যাবেন সেটি সহ বিনিময় প্রক্রিয়া নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হবে।
ছিটমহলগুলোর আনুষ্ঠানিক বিনিময় সম্পন্ন হবে ৩১ জুলাই মধ্যরাতে।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.