সাময়িকী.কম

ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের দেয়া রিপোর্ট অনুসারে ধর্ষণ করা হয়েছিল তুরাগ থানার নারী কনস্টেবলকে। ফরেসনিক পরীক্ষায় তাকে 'গণধর্ষণে'র আলামত পাওয়া গেছে বলে নিশ্চিত করেছেন ঢামেক ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারের সমন্বয়কারী ডাক্তার বিলকিস বেগম। তিনি বলেন, "প্রতিবেদন আমাদের হাতে এসেছে। এতে ধর্ষণের আলামত পাওয়া গেছে।"
রাজধানীর খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়ায় তুরাগ থানার ওই নারী কনস্টেবলকে গত বুধবার (১০ জুন) গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ করেন। এর তিন দিন পর তিনি ভর্তি হন ওসিসিতে।

ঘটনার শিকার নারী কনস্টেবল জানান, ২০১১ সালে খিলগাঁও থানার সাবেক সহকারী উপ-পরিদর্শক কালিমুর রহমানের সঙ্গে তার বিয়ে হয়। ২০১৪ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়। তার সাবেক স্বামী কালিমুর রহমান বুধবার রাতে তাকে ডেকে খিলগাঁওয়ের তিলপাপাড়ার একটি বাসায় নিয়ে যান। সেখানে কালিমুর রহমানসহ আরো কয়েকজন মিলে সারারাত তাকে ধর্ষণ করেন।
বৃহস্পতিবার (১১ জুন) সকালে কৌশলে তিনি ওই বাসা থেকে বের হয়ে খিলগাঁও এলাকায় তার এক আত্মীয়ের বাসায় ওঠেন। সেখান থেকে শুক্রবার (১২ জুন) তিনি রাজারবাগ পুলিশ লাইন্স হাসপাতালে ভর্তি হন। এরপর শনিবার (১৩ জুন) ঢামেক হাসপাতালে আসেন। 

এএসআই কালিমুর রহমান বর্তমানে পুলিশের স্পেশাল সিকিউরিটি এ্যান্ড প্রটেকশান ব্যাটালিয়নে কর্মরত আছেন।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.