আন্তর্জাতিক ডেস্ক
সাময়িকী.কম


সৌদি সরকারের পক্ষ থেকে ইয়েমেনের ওপর স্থল-হামলা চালানোর নির্দেশ আসতে পারে- এই ভয়ে প্রায় ৪ হাজার সৌদি সেনা সীমান্তের ঘাঁটিগুলো থেকে পালিয়ে গেছে। ইউরোপের কূটনৈতিক সূত্র গুলোর বরাত দিয়ে গবেষণা সংস্থা 'গ্লোবাল রিসার্চ' এই তথ্য জানিয়েছে।


ইরাকের নাহরাইন নেট নিউজও জানিয়েছে, পশ্চিমা গোয়েন্দা সূত্রগুলোর বরাত দিয়ে তাদের কূটনীতিকরা বলেছেন, সৌদি সেনারা ইয়েমেন সীমান্ত সংলগ্ন সামরিক ঘাঁটি ও সেনা-কেন্দ্রগুলো থেকে দলে দলে পালিয়ে গেছে।  

অন্য এক রিপোর্টে জানা গেছে, দশ হাজারেরও বেশি সৌদি সেনা দেশটির নানা সামরিক ইউনিট ও ন্যাশনাল গার্ড বাহিনী থেকে পালিয়ে গেছে।
বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ইয়েমেনে স্থল-অভিযান চালানোর মতো শক্তিশালী মনোবল ও নৈতিক সাহস সৌদি সশস্ত্র বাহিনীর নেই এবং এ ধরনের অভিযান চালানো হবে সৌদি আরবের জন্য আত্মহত্যার শামিল।

ইউরোপীয় গোয়েন্দা সংস্থাগুলোর বিশ্লেষণ অনুযায়ী ইয়েমেনের সশস্ত্র বাহিনী, হুথি যোদ্ধা ও গোত্রগুলোর সেনা মোকাবেলার করার মত প্রকৃত কোনো বাহিনী সৌদি সরকারের নেই। এদিকে মার্কিন দৈনিক নিই্য়র্ক টাইমস লিখেছে, ইয়েমেনে বিমান হামলা চালিয়ে সৌদিরা এখন পর্যন্ত উল্লেখযোগ্য কিছুই অর্জন করতে পারেনি; তাই এই অভিযান ব্যর্থ হয়েছে।  

সৌদি জঙ্গি বিমানগুলো গত ২৬ মার্চ থেকে ইয়েমেনে নির্বিচার বোমা হামলা চালিয়ে আসছে। এইসব হামলায় নিহতের সংখ্যা তিন হাজার ছাড়িয়ে গেছে এবং আহত হয়েছে এর প্রায় দ্বিগুণ। হতাহতদের বেশিরভাগই বেসামরিক নাগরিক যাদের মধ্যে শত শত শিশু ও নারী রয়েছে।
সূত্র : আইআরআইবি

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.