স্পোর্টস ডেস্ক 
সাময়িকী.কম

বিদায় মাইকেল ক্লার্কের


মেলবোর্নের ফাইনালে প্রতিবেশি নিউজিল্যান্ডকে ৭ উইকেটে হারিয়ে শিরোপা জিতে নেয় অস্ট্রেলিয়া। শিরোপা জেতা ম্যাচইটি ক্যারিয়ারের শেষ ম্যাচ হয়ে থাকলো অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক মাইকেল ক্লার্কের। বিদায়ী ম্যাচে ৭২ বলে ৭৪ রানের অসাধারণ এক ইনিংস খেলেছেন তিনি।

ইনজুরির কারণে বিশ্বকাপই অনিশ্চিত হয়ে পড়েছিল ক্লার্কের। সংশয় প্রকাশ করে অজি অধিনায়ক তখন নিজ মুখে বলেছিলেন বিশ্বকাপ তো পরের কথা, ওয়ানডে ক্যারিয়ারই হয়তো শেষ হয়ে গেছে। কিন্তু অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট বোর্ডের আস্থা আর ক্লার্কের অদম্য মনোবলই কাপজয়ী অধিনায়ক হিসেবে বিদায় নেয়ার সুযোগ করে দিল। ক্লার্কের আগে পাকিস্তানের ইমরান খানই একমাত্র অধিনায়ক বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ের ম্যাচই ছিল যার শেষ ওয়ানডে ম্যাচ।
২০০৩ সালের ১৯ জানুয়ারি ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে অভিষেক হয় ক্লার্কের। অ্যাডিলেডে ৪ উইকেটে জেতা সেই ম্যাচে অপরাজিত ৩৯ রান করেছিলেন তিনি। বল হাতে একটি উইকেটও পেয়েছিলেন ক্লার্ক। অভিষেক ম্যাচে না হলেও শেষ ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি পেয়েছেন ক্লার্ক।
নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিদায়ী ম্যাচে ৭২ বলে ১০টি চার ও একটি ছক্কার সাহায্যে ৭৪ করেন। তবে অভিষেক ম্যাচের মতো বিদায়ী ম্যাচে অপরাজিত থাকতে পারেননি তিনি। বোল্ড হন ম্যাট হেনরির বলে। ২৪৫ ওয়ানডে খেলে ৪৪.৪২ গড়ে রান করেছেন ৭৯৮১ রান। আটটি শতরানের সঙ্গে অর্ধশতক আছে ৫৮টি। আর বল হাতে ওয়ানডে উইকেট সংখ্যা ৫৭।
শিরোপা হাতে বিদায় বলে ইয়ান অ্যালেন বোর্ডার, স্টিভ ওয়াহ, রিকি পন্টিংয়ের পাশেই থাকলেন ক্লার্ক। এদের মধ্যে অধিনায়ক হিসেবে দুটি বিশ্বকাপ জিতেছেন কেবল পন্টিং।

অস্ট্রেলিয়ার পেসারদের দাপটে অল্প রানে নিউজিল্যান্ডের ইনিংস গুটিয়ে যাওয়ার পর ফল নিয়ে খুব একটা অনিশ্চয়তা ছিল না। মাইকেল ক্লার্ক, স্টিভেন স্মিথের দৃঢ়তা ভরা ব্যাটিং কোনো নাটকীয়তার সুযোগও দেয়নি।

তাই কিউইদের স্বপ্ন ভেঙে ৭ উইকেটের জয়ে আবার সেরার আসনে বসে ফেভারিট অস্ট্রেলিয়া।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

নিউজিল্যান্ড:

৪৫ ওভারে ১৮৩ (গাপটিল ১৫, ম্যাককালাম ০, উইলিয়ামসন ১২, টেইলর ৪০, এলিয়ট ৮৩, অ্যান্ডারসন ০, রনকি ০, ভেটোরি ৯, সাউদি ১১, হেনরি ০, বোল্ট ০*; জনসন ৩/৩০, ফকনার ৩/৩৬, স্ট্যার্ক ২/২০, ম্যাক্সওয়েল ১/৩৭)।

অস্ট্রেলিয়া: ৩৩.১ ওভারে ১৮৬/৩ (ওয়ার্নার ৪৫, ফিঞ্চ ০, স্মিথ ৫৬*, ক্লার্ক ৭৪, ওয়াটসন ২*; হেনরি ২/৪৬, বোল্ট ১/৪০)

ম্যাচ সেরা: জেমস ফকনার।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.