আন্তর্জাতিক ডেস্ক
সাময়িকী.কম

কয়লাখনি বণ্টন দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের পাশে থেকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াইয়ের বার্তা দিয়েছে ভারতের জাতীয় কংগ্রেস। গত বুধবারই কয়লা কেলেঙ্কারি মামলায় অভিযুক্ত করা হয়েছে সাবেক ওই প্রধানমন্ত্রীকে। সিবিআইয়ের বিশেষ আদালতে হাজিরা দেয়ার সমনও জারি হয়েছে তার নামে। ষড়যন্ত্র, বিশ্বাস ভঙ্গসহ দুর্নীতি প্রতিরোধ আইনে একাধিক ধারায় তাকে অভিযুক্ত করেছেন আদালত। আদালতের সমন পেয়ে ‘মর্মাহত’ মনমোহন। 

দুর্নীতিমুক্ত এবং স্বচ্ছ ভাবমূর্তির প্রতীক হিসেবে যার পরিচিতি ছিল তিনি সমন পেয়েও সততা প্রমাণের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী। দল হিসেবে কংগ্রেস সমর্থন জানানোয় মনমোহন যে খুশি হয়েছেন এ কথাও জানিয়েছেন। কয়লা কেলেঙ্কারিতে নাম জড়িয়ে পড়লেও দেশের সাবেক প্রধানমন্ত্রী মনমোহন সিংয়ের পাশে আগাগোড়া থেকেছে কংগ্রেস। গতকাল মনমোহনের পাশে থাকার সেই বার্তাই আরও জোরালো করেছে কংগ্রেস। বৃহস্পতিবার সকালে বৈঠকে বসে কংগ্রেস ওয়ার্কিং কমিটি। বৈঠক শেষে কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধীর নেতৃত্বে একটি পদযাত্রা দিল্লিতে কংগ্রেসের সদর কার্যালয় ২৪ নম্বর আকবর রোড থেকে ৩ নম্বর মতিঝিল নেহেরু মার্গে মনমোহন সিংয়ের বাসভবন পর্যন্ত পৌঁছায়। মিছিলে ছিলেন সংসদ সদস্য, বিধায়কসহ কংগ্রেসের প্রথম সারির প্রায় সব নেতা। পরে সোনিয়া সাংবাদিককের  বলেছেন, মনমোহনের সততায় সম্পূর্ণ আস্থা রয়েছে দলের। তিনি রাজনৈতিক চক্রান্তের শিকার। প্রয়োজনে কংগ্রেস যে আইনি পথেও যেতে পারে তা-ও জানান তিনি। তবে সোনিয়ার এই পাশে থাকার বার্তাকে কটাক্ষ করতে ছাড়েনি বিজেপি। কেন্দ্রীয় নগর উন্নয়নমন্ত্রী বেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন, আদপে এই দুর্নীতির পেছনে কংগ্রেসই দায়ী। সে জন্যই অভিযুক্তের পাশে থাকতে পদযাত্রা। ২০০৫ সালে কয়লা মন্ত্রকের ভারপ্রাপ্ত মন্ত্রী হিসেবে কুমার মঙ্গলম বিড়লার হিন্দালকো সংস্থাকে নিয়ম বিরুদ্ধভাবে ওড়িশার একটি কয়লাখনি পাইয়ে দেয়ার ক্ষেত্রে মনমোহন অতিরিক্ত সক্রিয়তা দেখিয়েছিলেন বলে অভিযোগ ওঠে। ২০১২ সালে কন্ট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল (সিএজি) রিপোর্টে জানায়, নিলাম না করে খনি বণ্টনের জেরে ভারত সরকারের ১ লাখ ৮৬ হাজার কোটি রুপি ক্ষতি হয়েছে। মামলা যায় সুপ্রিম কোর্টে। ঘটনার তদন্তে নামে সিবিআই। ২১৪টি কয়লাখনির বণ্টন বাতিল করে দেয় সুপ্রিম কোর্ট। ওই খনি বণ্টনের দুর্নীতিতে অভিযুক্ত সাবেক কয়লাসচিব পি সি পরাখ এবং কুমারমঙ্গলম বিড়লাসহ মোট ৬ জন। কেন্দ্রীয় তদন্ত সংস্থা বারবার এই তদন্ত বন্ধের আর্জি জানালেও দেশের শীর্ষ আদালত তা মেনে নেয়নি। উপরন্তু মনমোহন সিংসহ ছয় অভিযুক্তকেই আগামী ৮ই এপ্রিল আদালতে হাজির থাকার নির্দেশ দিয়ে সমন পাঠিয়েছে সিবিআইয়ের বিশেষ আদালত।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.