সাময়িকী ডেস্ক, সাময়িকী.কম: বগুড়ার মহাস্থানগড়ে খনন করে পাওয়া গেছে দুই হাজার দুইশ বছর আগের তিনটি পাতকুয়া বা রিঙ ওয়েল। এছাড়াও মিলেছে গৃহস্থালির কাজে ব্যবহার্য কিছু সামগ্রী, সড়কপথের অংশবিশেষ এবং পোড়া মাটির বিভিন্ন ফলক। গত ১ নভেম্বর থেকে ১৮তম খনন কাজ শুরু হয়েছে। কাজ চলবে ২৪ নভেম্বর পর্যন্ত।
পাতকুয়া সম্পর্কে প্রত্নতত্ত্ববিদদের ধারণা, মধ্যযুগে দুর্গনগর ও এর আশপাশের এলাকায় পানি সরবরাহের লক্ষ্যে এগুলো তৈরি করা হয়েছিল। মহাস্থানগড়ে বাংলাদেশ-ফ্রান্স যৌথভাবে অনুসন্ধান কাজ চালাচ্ছে। 

প্রত্নতত্ত্ব অধিদফতরের বগুড়া আঞ্চলিক অফিস সূত্রে জানা গেছে, মহাস্থান দুর্গনগরীর মাঝামাঝি এলাকা লইয়েরকুড়ি বা ফ্রান্সমাঠ নামে পরিচিত ভিটায় এই খনন কাজ চালানো হচ্ছে। এই ভিটার উত্তর-পশ্চিম কোণে বৈরাগীর ভিটা, দক্ষিণ পাশে পরশুরাম প্যালেস ও জিয়তকুণ্ডু, পূর্ব পাশে শিলাদেবীর ঘাট এবং উত্তর ও পশ্চিম পাশে উন্মুুক্ত মাঠ অবস্থিত। এবারের খননে সেখানে বেরিয়ে এসেছে মধ্যযুগের (খ্রিস্টপূর্ব প্রথম অব্দ থেকে শুরু করে সপ্তম শতাব্দী) প্রত্নতাত্ত্বিক স্থাপত্যের নিদর্শন। উত্তর-দক্ষিণে পাশাপাশি ৬ বর্গ মিটার আকৃতির দুটি স্থান এবার খননের আওতায় নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে উত্তরপাশের স্থানে প্রাচীন আমলের ইট দিয়ে নির্মিত দেয়ালের পাশে একটি পাতকুয়া এবং বেশ কিছু মৃৎপাত্র ও ঢাকনা, দক্ষিণ পাশের স্থানে একই জায়গায় গা-লাগোয়া দুটি পাতকুয়ার সন্ধান মিলেছে। এর মধ্যে একটি ইটের দেয়াল কেটে নির্মিত হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। অপরটির চারপাশে ইটের গাঁথুনি দিয়ে সুরক্ষিত করা হয়েছিল। এর পাশে একটি চলাচলের রাস্তার সন্ধান পাওয়া গেছে।

এবারের খনন কাজে নেতৃত্ব দিচ্ছেন ফ্রান্স ন্যাশনাল সেন্টার ফর সায়েন্টিফিক রিসার্সের সদস্য ও প্রত্নতত্ত্ব বিশেষজ্ঞ ড. জঁ ফ্রাসোয়া সালস্। খনন কাজ তত্ত্বাবধান করছেন ফ্রান্সের প্রত্নতত্ত্ব বিভাগের পরিচালক ভিনসেন্ট লাফেবরি। আর তাদের সহযোগী হিসেবে কাজ করছেন খনন বিশেষজ্ঞ কলিন লাফেবরি, শিল্পকলা ও ইতিহাসের শিক্ষক মেরি ফ্রাসোয়া বুসে, মূর্তিতত্ত্ববিদ সুজান ও ফ্রান্সের শিক্ষার্থী অ্যালবো। এ ছাড়া বাংলাদেশের পক্ষে খনন কাজে অংশ নিয়েছেন রংপুর জাদুঘরের সহকারী কাস্টডিয়ান সঞ্জয় কুমার রায় ও খুলনা বিভাগীয় জাদুঘরের সহকারী কাস্টডিয়ান শাহীন আলম। সার্বিক তত্ত্বাবধান করছেন বগুড়ার মহাস্থান জাদুঘরের কাস্টডিয়ান সাদেকুজ্জামান।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.