সাময়িকী.কম
ডিজনিল্যান্ডের অ্যানিমেটেড সিনেমার পুরনো ইতিহাস রয়েছে। বাচ্চাদের এসব সিনেমায় বাবা-মা আর চারপাশের গোটা পরিবেশকে উপস্থাপন করা হবে বলে মনে করা হলেও এদের বহু হিট মুভিতে বাবা-মায়ের কোনো অস্তিত্বই ছিল না। অনেকগুলো ছবিতে কেন্দ্রীয় চরিত্রেরও বাবা-মাকে দেখা যায়নি।
এমন কিছু হিট সিনেমার মধ্যে রয়েছে স্নো হায়াইট, বাম্বি, সিনডারেলা, পিটার প্যান, দ্য জঙ্গল বুক, দ্য ফক্স অ্যান্ড দ্য হাউন্ড, দ্য গ্রেট মাউস ডিটেক্টিভ, দ্য লিটল মারমেইড, বিউটি অ্যান্ড দ্য বিস্ট, আলাদিন, পোকান্তাস, দ্য হাঞ্চব্যাক আব নটর ডেম, দ্য এম্পেররস নিউ গ্রুভ।
কিন্তু অনেকের প্রশ্ন হলো, বাচ্চাদের ছবিতে চরিত্রগুলোর বাবা-মাকে কেন দেখানো হয়নি?
সম্প্রতি 'ম্যালফিসেন্ট'-এর এক্সিকিউটিভ প্রোডিউসার ডন হান বলেন, এর একটি কারণ হলো এ ছবিগুলো ৮০-৯০ মিনিটের হয়ে থাকে। তা ছাড়া ডিজনির ছবি মানে বড় হয়ে ওঠা। এসব সিনেমার মাধ্যমে বাচ্চাদের সেই শিক্ষা দেওয়া হয় যখন থেকে তারা নিজের দায়িত্ব নিজেই নিতে পারবে। লায়ন কিং-এ সিম্বা বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। কিন্তু ফিরেও আসে। বাবা-মায়ের ছায়া থেকে বেরিয়ে এসে দ্রুত বেড়ে ওঠা দেখানো হয় এসব ছবিতে।
অন্য একটি কারণও দেখিয়েছেন হান যেটি বেশ অন্ধকারাচ্ছন্ন। ওয়াল্ট ডিজনির জীবনকাহিনীতে দেখা যায়, তিনি ও তার ভাই রয় তাদের বাবা-মায়ের জন্য ১৯৩৭ সালে লস অ্যাঞ্জেলেসে একটি বাড়ি কেনেন। একদিন তাদের মা জানালেন, পাইপের ফুটো দিয়ে চুলোর গ্যাস বের হচ্ছে। তাই সারিয়ে নেওয়া প্রয়োজন। একজন মিস্ত্রী এসে তা সারিয়ে দিয়ে গেলেন। কিন্তু পরে সেই গ্যাস আরো বেশি বের হতে শুরু করে এবং এতে আক্রান্ত হয়ে ডিজনির মা মারা যান। বাবা হাসপাতালে ভর্তি হন।
এ ঘটনায় ওয়াল্ট মুষড়ে পড়েন। তার মনে হতে থাকে, তিনি ওই বাড়ি কিনে দিয়েই আজ এ দুর্ঘটনা ঘটেছে। পরবর্তীতে তিনি কখনোই এ বিষয়ে কোনো কথা বলেননি। 'স্নো হোয়াইট অ্যান্ড দ্য সেভেন ডওয়ার্ফস'-এর সফলতার পর তার মা ফ্লোরা ১৯৩৮ সালের ২৬ নভেম্বর মারা যান। এ ঘটনার প্রভাব পড়ে তার পরের ছবি 'পিনোচিও'তে। ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে হিট হয়নি।
অনেকের মতে এ ঘটনা ওয়াল্ট ডিজনির জীবনের এমন এক ক্ষত হয়ে দেখা দেয় যে, এর প্রভাব তার পরের ছবিগুলোতেও দেখা যায়। নিজে মা হারা হয়ে হয়তো তার প্রাণপ্রিয় ছবির চরিত্রগুলোকেও পিতা-মাতাহীন করতে চান যারা নায়কোচিতভাবে সব বাধাকে অতিক্রম করে মানুষ হয়ে উঠবে।
মূল- বিজনেস ইনসাইডার
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.