সাময়িকী.কম
জাতির পিতার বিষয়ে অপপ্রচার চালানোয় এবং তাঁর আত্মজীবনী বিকৃত করার দায়ে পাঞ্জেরি ও লেকচার প্রকাশনীর সৃজনশীল বাংলা বইয়ের গাইড বই বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।
মঙ্গলবার সকালে মন্ত্রনালয়ের বৈঠকে এ বিষয়ে নির্দেশনা দেওয়া হবে বলে সূত্র জানিয়েছে।
সূত্র বলছে, বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনী বিকৃত করার দায়ে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বই দুইটি বাজেয়াপ্ত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।
একই সঙ্গে আত্মজীবনী বিকৃতের ঘটনায় গাইড বই প্রকাশনা দুটির বিরুদ্ধে মামলার নির্দেশনাও দেওয়া হয়েছে।
এ বিষয়ে স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রীর দপ্তরের তথ্য কর্মকর্তা শরীফ মাহমুদ অপু সোমবার বিকেলে বলেন, বিষয়টি নিয়ে ইতোমধ্যে মন্ত্রণালয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে বিষয়টি নিয়ে আবারো বৈঠক হবে। এরপর মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা জানানো হবে।
উল্লেখ্য, বিতর্কিত নোট ও গাইডবই প্রকাশনীর কথিত সৃজনশীল বাংলা সহপাঠ বইয়ে বঙ্গবন্ধুর আত্মজীবনীকে বিকৃত করে লিখেছে, ‘শেখ মুজিবুর রহমান শোষণমুক্ত স্বপ্নের পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার জন্য মনে মনে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন।’
পাঞ্জেরী পবলিকেশন্সের বাংলা সহপাঠ সৃজনশীল বইয়ের ১৯৯ নম্বর পৃষ্ঠার ৬৪ নম্বর প্রশ্নে বলা হয়েছে বঙ্গবন্ধুর জন্ম তারিখ কবে? চারটি উত্তর লিখে বলা হয়েছে ২০ মার্চ। ১৭ মার্চের স্থলে ২০ মার্চ উল্লেখ করা হলেও চারটি অপশনের কোথাও সঠিক দিনটি লেখা নেই। সেখানে ১৭ সংখ্যাটিই নেই। লেকচার পাবলিকেশন্সের এইচএসসি বাংলা সহায়ক প্রথম পত্র বইয়ের ২৫৮ নম্বর পৃষ্ঠায় বঙ্গবন্ধুর মায়ের নাম সায়েরা খাতুনের পরিবর্তে লেখা হয়েছে সাহেরা খাতুন। সবচেয়ে বড় অপকর্ম তারা করেছে বাংলাদেশ রাষ্ট্রের অভ্যুদয় সম্পর্কিত বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন নিয়ে। যেখানে বঙ্গবন্ধু শোষণমুক্ত স্বপ্নের বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার জন্য আজীবন সংগ্রাম করেছেন সেখানে লেকচার পাবলিকেশন্স লিখেছে, ‘শেখ মুজিবুর রহমান শোষণমুক্ত স্বপ্নের পাকিস্তান প্রতিষ্ঠার জন্য মনে মনে প্রতিজ্ঞা করেছিলেন।’ লেকচারের এইচএসসি বাংলা সহপাঠ বইয়ের ২৬৪ থেকে শুরু করে অসংখ্য পৃষ্ঠায় এসব বিকৃত ও ঔদ্ধত্যপূর্ণ তথ্য দেয়া হয়েছে। অথচ পাঠ্য বইয়ে প্রশ্নটি আছে, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান মনে মনে কী প্রতিজ্ঞা করেছিলেন? বুঝিয়ে লেখ। প্রকাশনী সংস্থাটি কথিত এ সৃজনশীল বইয়ে লেখা আছে এটি এ প্লাস প্রাপ্তির নিশ্চয়তাসম্পন্ন ‘এক্সক্লুসিভ অনুশীলনমূলক বই’।
তথ্যসূত্র: বাংলানিউজ, জনকণ্ঠ

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.