সাময়িকী.কম
বিভিন্ন রূপকথার গল্পে আমরা অনেক মৎস্যকুমারীর কথা শুনে থাকি যাদের দেহের অর্ধেক অংশ মাছের মত আর বাকি অর্ধেক অংশ মানুষের মত। এই মৎস্যকুমারীরা অনেক কাল্পনিক শক্তি অধিকারী হয়ে থাকে। এমন কাল্পনিক গল্পের বর্ণনার সাথে সাথে আমরা মনের মাঝে এক ধরনের মৎস্যকন্যার চিত্রও কল্পনা করে থাকি। কিন্তু বাস্তবে কি সত্যি সত্যি এদের দেখা পাওয়া সম্ভব, তাও আবার ২০১৪ সালের এই আধুনিক সভ্যতার যুগে?
হান্নাহ ফ্রেজার, একজন পেশাদার মডেল। যিনি আমাদের সেই কল্পনার মৎস্যকুমারীর কাছে নিয়ে যেতে পারেন কেননা তিনি নিজেই একজন মৎস্যকুমারী। কি বিশ্বাস হয় না? দেখুন নিচের ছবিগুলো।
কি এবার বিশ্বাস হয়? মডেলিংয়ের ক্যারিয়ারে কিছুটা বৈচিত্র্য আনতেই তার এই মৎস্যকন্যা রুপে ফটোশুট করা।
ছবিতে দেখে যেন মনে হচ্ছে কল্পকাহিনীর সেই মৎস্যকুমারী সত্যিই বাস্তবে উঠে এসেছে।
অসাধারণ ক্ষমতার অধিকারী সেই মৎস্যকুমারি।
তবে ছবিগুলো দেখতে যতটা সুন্দর আর সহজ মনে হচ্ছে সেগুলো তোলা ততটা সহজে হয়নি।
কেননা ছবিগুলো তুলতে অনেক বেশি কষ্ট করতে হয়েছে বলে জানান হান্নাহ। ভালো করে খেয়াল করে দেখুন মৎস্য পোশাকটির নিচের অংশটি একেবারে মাছের মত। দুটি পা একসাথে করা যা দিয়ে মানুষের পক্ষে সাঁতার কাটা একটু কঠিনই বটে।
এই অসাধ্য কাজটি করতে তাকে অনেক ব্যায়াম করে নিতে হয়েছে।
তথ্যসূত্র : cosmopolitan.com
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.