সাময়িকী.কম

বুধবারের মধ্যে বেতন-ভাতা, ওভারটাইমসহ ক্ষতিপূরণের অর্থ পরিশোধ না করলে হরতালের মত কঠোর কর্মসূচি দেয়ার ঘোষণা দিয়েছে আন্দোলনরত তোবার পোশাক শ্রমিকরা। মঙ্গলবার পোশাক রপ্তানিকারক মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ ভবনের সামনে সমাবেশ থেকে এ ঘোষণা দেয় শ্রমিক নেতারা। এর আগে বেলা ১১টায় পূর্ব ঘোষিত কর্মসূচি হিসেবে বিজিএমইএ ভবন ঘেরাও করতে গেলে পুলিশি বাধার মুখে ভবনের সামনে সমাবেশ করে শ্রমিকরা। এসময় শ্রমিকদের সাথে ধস্তাধস্তি হওয়ার একপর্যায়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ।  

বেতন বোনাস পরিশোধের দাবিতে ৯দিন ধরে চলে আসা আন্দোলনের অংশ হিসেবে মঙ্গলবার বিজিএমইএ ভবন ঘেরাও করতে যান তোবা শ্রমিকরা। কিন্তু পুলিশের কঠোর অবস্থানের কারণে তাদের ঘেরাও কর্মসূচি ব্যর্থ হয়। পরে শ্রমিক নেতা মন্টু ঘেষের নেতৃত্বে ভবনের সামনে সমাবেশ করে তারা।

গার্মেন্টস শ্রমিক সংহতির আহ্বায়ক তাসলিমা আক্তার সমাবেশে বলেন, শ্রমিকদের ন্যায্য পাওনা না দিতে পারলে আমরা ধর্মঘট হরতালের মতো কর্মসূচি দিতে বাধ্য হবো। তিনি বলেন, শ্রমিকদের দাবি আদায়ের সঙ্গে যে সব সংগঠন সংশ্লিষ্ট নয়, তাদের সঙ্গে বিজিএমই ত্রিপক্ষীয় চুক্তি করেছে। যেসব দালাল এই চুক্তিতে অংশ নিয়েছে, তাদের আমরা ঘৃণাভরে প্রত্যাখ্যান করি।
উল্লেখ্য, তোবা গ্রুপের প্রায় ১৬শ শ্রমিকের তিন মাসের বকেয়া বেতন ও ঈদের বোনাস আদায়ের জন্য গত ২৮ জুলাই সন্ধ্যা থেকে বাড্ডা এলাকায় তোবা গার্মেন্টসের ভবনের অভ্যন্তরে অনশন কর্মসূচি শুরু করেন শ্রমিকরা। 

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.