সাময়িকী.কম
ফাইল ফটো 

কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক হতাহতসহ নিখোঁজের আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়সহ কয়েকটি সূত্র দাবি করেছে বেলা পৌনে ২টা পর্যন্ত অন্তত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি কোন সূত্র। লঞ্চে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল বলেও সূত্র গুলো জানায়।

সকাল ১১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মাঝ পদ্মায় উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে অতরিক্তি এ যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়।
মাওয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লঞ্চটি কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রী নিয়ে মাওয়ার দিকে আসছিল। এতে প্রায় তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। তাদের বেশির ভাগই ঈদের ছুটি শেষে ঢাকা ফিরছিলেন।

তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশে থাকা লঞ্চ ও সি বোটের মাধ্যমে ডুবে যাওয়া লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার শুরু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয়রাই এ উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তিনি জানান, এসময় ৪০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গেছে। তবে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেননি তিনি। 

কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক হতাহতসহ নিখোঁজের আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়সহ কয়েকটি সূত্র দাবি করেছে বেলা পৌনে ২টা পর্যন্ত অন্তত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি কোন সূত্র। লঞ্চে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল বলেও সূত্র গুলো জানায়।
সোমবার সকাল ১১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মাঝ পদ্মায় উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে অতরিক্তি এ যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়।
মাওয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লঞ্চটি কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রী নিয়ে মাওয়ার দিকে আসছিল। এতে প্রায় তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। তাদের বেশির ভাগই ঈদের ছুটি শেষে ঢাকা ফিরছিলেন।
তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশে থাকা লঞ্চ ও সি বোটের মাধ্যমে ডুবে যাওয়া লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার শুরু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয়রাই এ উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তিনি জানান, এসময় ৪০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গেছে । তবে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেননি তিনি। - See more at: http://www.jugantor.com/current-news/2014/08/04/130315#sthash.E6uuHecW.nLGtzePL.dpuf
কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক হতাহতসহ নিখোঁজের আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়সহ কয়েকটি সূত্র দাবি করেছে বেলা পৌনে ২টা পর্যন্ত অন্তত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি কোন সূত্র। লঞ্চে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল বলেও সূত্র গুলো জানায়।
সোমবার সকাল ১১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মাঝ পদ্মায় উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে অতরিক্তি এ যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়।
মাওয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লঞ্চটি কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রী নিয়ে মাওয়ার দিকে আসছিল। এতে প্রায় তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। তাদের বেশির ভাগই ঈদের ছুটি শেষে ঢাকা ফিরছিলেন।
তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশে থাকা লঞ্চ ও সি বোটের মাধ্যমে ডুবে যাওয়া লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার শুরু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয়রাই এ উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তিনি জানান, এসময় ৪০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গেছে । তবে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেননি তিনি। - See more at: http://www.jugantor.com/current-news/2014/08/04/130315#sthash.E6uuHecW.nLGtzePL.dpuf
কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক হতাহতসহ নিখোঁজের আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়সহ কয়েকটি সূত্র দাবি করেছে বেলা পৌনে ২টা পর্যন্ত অন্তত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি কোন সূত্র। লঞ্চে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল বলেও সূত্র গুলো জানায়।
সোমবার সকাল ১১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মাঝ পদ্মায় উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে অতরিক্তি এ যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়।
মাওয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লঞ্চটি কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রী নিয়ে মাওয়ার দিকে আসছিল। এতে প্রায় তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। তাদের বেশির ভাগই ঈদের ছুটি শেষে ঢাকা ফিরছিলেন।
তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশে থাকা লঞ্চ ও সি বোটের মাধ্যমে ডুবে যাওয়া লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার শুরু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয়রাই এ উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তিনি জানান, এসময় ৪০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গেছে । তবে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেননি তিনি। - See more at: http://www.jugantor.com/current-news/2014/08/04/130315#sthash.E6uuHecW.nLGtzePL.dpuf
কাওড়াকান্দি থেকে মাওয়া আসার পথে পদ্মা নদীতে পিনাক-৬ নামের একটি যাত্রীবাহী লঞ্চ ডুবে গেছে। এতে ব্যাপক হতাহতসহ নিখোঁজের আশঙ্কা করা হচ্ছে। স্থানীয়সহ কয়েকটি সূত্র দাবি করেছে বেলা পৌনে ২টা পর্যন্ত অন্তত ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। তবে নিহতদের নাম-পরিচয় নিশ্চিত করতে পারেনি কোন সূত্র। লঞ্চে তিন শতাধিক যাত্রী ছিল বলেও সূত্র গুলো জানায়।
সোমবার সকাল ১১টার দিকে মাওয়া-কাওড়াকান্দি নৌরুটের মুন্সিগঞ্জের গজারিয়ার মাঝ পদ্মায় উত্তাল ঢেউয়ের তোড়ে অতরিক্তি এ যাত্রীবাহী লঞ্চটি ডুবে যায়।
মাওয়া নদী বন্দরের ট্রাফিক ইন্সপেক্টর জাহাঙ্গীর ভূইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, লঞ্চটি কাওড়াকান্দি থেকে যাত্রী নিয়ে মাওয়ার দিকে আসছিল। এতে প্রায় তিন শতাধিক যাত্রী ছিল। তাদের বেশির ভাগই ঈদের ছুটি শেষে ঢাকা ফিরছিলেন।
তিনি জানান, দুর্ঘটনার পরপরই আশপাশে থাকা লঞ্চ ও সি বোটের মাধ্যমে ডুবে যাওয়া লঞ্চের যাত্রীদের উদ্ধার শুরু হয়। প্রাথমিক অবস্থায় স্থানীয়রাই এ উদ্ধার তৎপরতা চালায়। তিনি জানান, এসময় ৪০ জন যাত্রীকে উদ্ধার করা গেছে । তবে ১৪ জনের লাশ উদ্ধার করা হয়েছে এমন খবরের সত্যতা নিশ্চিত করেননি তিনি। - See more at: http://www.jugantor.com/current-news/2014/08/04/130315#sthash.E6uuHecW.nLGtzePL.dpuf
বিভাগ: ,

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.