সাময়িকী.কম
দীর্ঘ চার বছরের প্রতীক্ষার পর অবশেষে প্রেমিকা মডেল সুজানা জাফরকে বিয়ে করলেন এ প্রজন্মের জনপ্রিয় গায়ক ও সঙ্গীত পরিচালক হৃদয় খান। উল্লেখ্য যে, কিছুদিন আগেই সুজানা প্রেমে সম্মতি জানিয়েছিলেন হৃদয়কে। সেই সময়ে হৃদয় ফেসবুকে দারুণ রোমান্টিক একটি স্ট্যাটাস দিয়েছিলেন সুজানা ও তাঁদের প্রেমকে ঘিরে। পরবর্তীতে একটি নামকরা অনলাইন পত্রিকায় একটি মিষ্টি সাক্ষাতকারও দিয়েছিলেন এই দম্পতি।
ঈদের ঠিক পরপরই সুজানার মিরপুরের বাসায় গতকাল শুক্রবার সন্ধায় দুই পরিবারের ঘনিষ্ঠজনের উপস্থিতি আকদ সম্পন্ন হয়। বিয়ে করেই হৃদয় খান সুজানাকে নিজের বাসায় নিয়ে আসেন। ফেসবুকে ছবিও আপলোড করেন তিনি, সাথে ক্যাপশন লেখেন- "মাই ওয়াইফ, মাই লাইফ"। উল্লেখ্য যে সুজানার আগে একটি বিয়ে হয়েছিল। এবং সুজানা হৃদয়ের চাইতে বয়সে প্রায় ৬ বছরের বড়। এসব নিয়ে তাঁদের প্রেমে ঝামেলা কম হয়নি। সুজানা নিজেই সাড়া দিতেন না হৃদয়ের আহবানে।
এই বিষয়ে হৃদয় খান মিডিয়াকে জানান, আমাদের আংটি পরানোর প্রস্তুতি নিয়ে সুজানাদের বাসায় যাওয়া হলেও আকদ সম্পন্ন করে ফেলি। তবে আগামী সেপ্টেম্বর বিয়ের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হবে। তখন সবাইকে আমন্ত্রণ জানানো হবে। হৃদয় খান আরও বলেন, আমার ভালোবাসার মানুষটিকে দীর্ঘ অপেক্ষার পরে পেয়েছি এতে আমি দারুণ খুশি। এ জন্য আল্লাহর কাছে লাখ লাখ শুকরিয়া।
সুজানা এ প্রসঙ্গে বলেন বলেন, হৃদয় আমাকে কী পরিমাণ ভালোবাসতো তা আগে টের না পেলেও এখন পাই। তার ভালোবাসা আমাকে মুগ্ধ করেছে, তার ভালোবাসার শক্তির কারণে আমরা এখন এক হতে পেরেছি। এসময় সুজানা ভক্তদের কাছে তাদের জন্য দোয়া প্রার্থনা করেন।
আজ কিছুক্ষণ আগে হৃদয় তাঁদের গায়ে হলুদের ছবিও (প্রচ্ছদের ছবিটি) আপলোড করেছেন। সেখানে লিখেছেন- আমাদের খুব পছন্দ গ্রাম। তাই গ্রামের স্টাইলে গায়ে হলুদ হলো। পরিবারের সবাইকে ধন্যবাদ সাপোর্ট দেয়ার জন্য। সবাই আমাদের জন্য দোয়া করবেন।
বিয়ের অনুষ্ঠানে, দুই পরিবারের সদস্য, নির্ঝরসহ আরো ঘনিষ্ঠ কয়েকজন উপস্থিত ছিলেন। সাময়িকী.কম পক্ষ হতে হৃদয় ও সুজানা দম্পতির জন্য অনেক অনেক শুভকামনা।
ছবি কৃতজ্ঞতা- হৃদয় খানের ফেসবুক আইডি
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.