সাময়িকী.কম
শরীরে বাড়তি ওজন থাকা মানেই ঝামেলা। একটুতেই হাঁপিয়ে উঠা, পছন্দের পোশাক পরতে না পারা, নানা রোগ ব্যাধি শরীরে বাসা বাঁধা সহ অনেক সমস্যা দেখা যায় ওজন বেড়ে গেলে। আর তাই অনেক কষ্ট করেও সকলে চান সঠিক ওজনটা ধরে রাখতে। ওজন কমানোর জন্য অনেকেই সাহায্য নিয়ে থাকেন ডায়েট এবং ব্যায়ামের। আবার বেশিরভাগ মানুষই ব্যায়ামের জন্য সময় বের করতে পারেন না। তাহলে শুধু অবশিষ্ট থাকে ডায়েট কন্ট্রোল।
কিন্তু এই ওজন কমানোর জন্য যে অভ্যাসগুলো আমরা গড়ে তুলি তা কি আসলেই সঠিক? কেউ কেউ ডাক্তারের পরামর্শে সঠিক ডায়েট কন্ট্রোল প্ল্যান তৈরি করে মেনে চলেন। কিন্তু বেশিরভাগ মানুষই নিজের মনগড়া কাজ করেন ওজন কমানোর জন্য। আর এতেই হয় ভুল। এবং মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হতে হয়। চলুন আজকে দেখে নেয়া যাক ওজন কমানোর সময় যে ৬ টি ভুল বেশিরভাগ মানুষ করে থাকেন।

ক্রাশ ডায়েটিং

অতিরিক্ত পরিমাণে খাওয়া নিয়ন্ত্রণ করার নামই ক্রাশ ডায়েটিং। আপনি যদি ওজন কমানোর নামে অনেক কম খাওয়া শুরু করেন তবে ক্ষতি আপনারই। এতে ওজন তো কমবেই না বরং আপনার পুষ্টিকর খাওয়া বাদ যাবে। এতে করে আপনি শারীরিক ভাবে দুর্বল ও অসুস্থ হয়ে পড়বেন।

পানীয়ের প্রতি বেশি নজর দেয়া

সলিড খাবারের পরিবর্তে লিক্যুইড অর্থাৎ তরল খাবার খেলে ওজন কমবে এই কথাটি অনেক বড় ভুল একটি ধারণা। মাত্র ১ গ্লাস ফলের জুসে থাকতে পারে ১৫০-৩০০ ক্যালোরি যদি আপনি এতে যোগ করেন চিনি বা মধু। যদি ওজন কমাতেই চান তবে ফল খান, ফলের জুস নয়। ফলের একেবারে খাঁটি রস খেতে পারলে অবশ্য এই ঝামেলা থেকে মুক্তি পাবেন।

কার্বোহাইড্রেট মানেই ওজন বৃদ্ধি

অনেকেই মনে করেন কার্বোহাইড্রেট জাতীয় খাবার খেলেই ওজন বাড়ে। তখন নিজের খাবার তালিকা থেকে সব ধরনের কার্বোহাইড্রেট বাদ দিয়ে দেন। কিন্তু এতে করে আপনি নিজেকে একেবারেই এনার্জি শূন্য করে ফেলছেন। কিছুটা কার্বোহাইড্রেট অবশ্যই দেহের জন্য জরুরী। যদি বাদ দিতেই হয় তবে বাদ দিন চিনি এবং অতিরিক্ত ক্যালোরি সমৃদ্ধ খাবার।

একবেলা খাবার বাদ দেয়া

অনেকেই ভেবে থাকেন একবেলা খাবার বাদ দিলে কম খাওয়া হবে, এতে করে ওজন কমবে। এটি সম্পূর্ণ ভুল একটি তথ্য। খাবার বাদ দেয়া উল্টো ওজন বাড়ায়। কারণ একবেলা খাবার না খেয়ে পরের বেলা আপনি খাবার বেশি খেয়ে ফেলবেন স্বাভাবিক ভাবেই। আর একবারে খাবার বেশি খেলেই ওজন বাড়ে। তাই পরিমিত খান কিন্তু কোনো বেলাই খাবার বাদ দেবেন না।

দ্রুত ওজন কমে যাওয়া ভালো

দ্রুত ওজন কমতে শুরু করলে অনেকেই ভাবেন ফ্যাট দ্রুত কমে যাচ্ছে। কিন্তু আসলে তা হয় না। দ্রুত ওজন কমে যাওয়ার অর্থ আপনার মাংসপেশি এবং দেহে পানির পরিমাণ কমে যাচ্ছে ফ্যাট নয়। তাই নজর রাখুন খাদ্যতালিকার দিকে। খুব দ্রুত ওজন কমে যাওয়া মোটেই ভালো লক্ষণ নয়।

কোনো ধরণের প্ল্যান না করা

খাবার তালিকা, ব্যায়াম ইত্যাদির জন্য যদি আপনি প্ল্যান ছাড়াই কাজ করতে থাকেন তবে আসলেই কোনো লাভ নেই। একটি ভালো প্ল্যান তৈরি করুন। খাদ্যতালিকায় কী কী থাকা প্রয়োজন এবং কতোটুকু ব্যায়াম করা উচিৎ সব কিছু প্ল্যানে রাখুন এবং নিয়ম করে পালন করতে থাকুন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.