সাময়িকী.কম

গাজায় বেঁচে থাকার সব পথ বন্ধ করে দিচ্ছে ইসরাইল। কেবল মৃত্যুর দরজাই যেন খোলা। ঘর-বাড়ি-স্থাপনা ধ্বংস করার পর এবার টার্গেট পানি-বিদ্যুৎ ও পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা। শরণার্থী শিবিরগুলোও রেহাই পাচ্ছে না ক্ষেপণাস্ত্র হামলা থেকে। এর মধ্যেও যারা আহত হয়ে যন্ত্রণা নিয়ে বেঁচে থাকছে, তারা পাচ্ছে না খাবার পানি। বিদ্যুৎ ব্যবস্থা ধ্বংস হওয়ায় ঘোর অন্ধকারে দিন কাটাচ্ছে তারা। পয়ঃনিষ্কাশন ব্যবস্থা ভেঙে পড়ায় প্রাকৃতিক প্রয়োজন পূরণ করতেও বিপাকে পড়েছে অসহায় ফিলিস্তিনিরা। মৌলিক চাহিদায় আঘাত হেনে ভয়াবহ মানবিক বিপর্যয়ের মুখে ঠেলে দিয়েছে তাদের। জীবনের সব দুয়ার রুদ্ধ হয়ে মৃত্যুই একমাত্র গন্তব্য হয়ে উঠেছে গাজা।

এদিকে ফিলিস্তিনের বার্তা সংস্থা মা’আন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় গাজা উপত্যকায় আরো ৮৪ জন নিহত এবং ২৫৮ জন আহত হয়েছেন। ফিলিস্তিনের স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ইসরাইলি আগ্রাসনে এখন পর্যন্ত গাজায় নিহত হয়েছেন ১,৪৯৯ জন এবং আহত হয়েছেন ৮,২৯৫ জন। গাজার গৃহায়ণ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, ২৪ দিনের ইসরাইলি আগ্রাসনে গাজার ৪০০ কোটি ডলার বা ৩০ হাজার কোটি টাকার ক্ষতি হয়েছে। ইসরাইলের বর্বর হামলায় গাজার ৫,২৩৮টি ভবন সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গিয়েছে।
গাজায় যুদ্ধাপরাধ করছে ইসরাইল : নাভি পিল্লাই

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.