রোদবালিকা
রোদবালিকার গতর ভেজায় মেঘবালিকার স্বামী
রোদবালিকা ডুকরে কাঁদে কোথায় অন্তযামি
রোদবালিকা রোদ বোঝে না তার চাওয়া সব ভুল
মেঘবালিকা কাম না বোঝে হচ্ছে সমকামি।




নীল আকাশের নীল
তোমার হাতে তুলে দিলাম নীল আকাশের নীল
অবুঝ নারী তাও বুঝে না আটকে দিলো খিল

হৃদয় কপাট দাও খুলে দাও ঝর্নাধারা নামুক
লজ্জা ভুলো লজ্জা মুছো ঘোমটা দেয়া শামুক।


কোনো কোনো বালিকা প্রজাপতি হয়ে যায়
আজ প্রজাপতি দিবস!

এ বা
দি লি
ব কা
সে স
ই ব

প্রজাপতি হয়ে উড়ে গেছে
যে দিবসে সূর্যোদয় সূর্যাস্ত ছিলো না
যে দিবসে অন্ধরা আলো পেয়েছে

এ কি
দি শো
ব রি
সে স
ই ব

যুবতি হয়ে ডানা মেলেছে
আজ প্রজাপতি দিবস।



চাঁদ কপালে টিপ
আমরা ছিলাম আমরা আছি হারিয়ে গেছে মন
ভালবাসার অভাবে আজ উজাড় হলো বন
উজাড় হলো আদর সোহাগ চাঁদ কপালে টিপ
ঈগলচোখা মানুষগুলোর পাথর ভাঙা ক্ষণ।
 



ডানাভাঙা মন
কুমারি স্বপ্নগুলো ভেঙে দেয় উদাস বিকেল
ডানাভাঙা মন নিয়ে খেলে যায় রঙধনু খেল
ছন্দ খোঁজে আর্তনাদে ছন্নছাড়া কবি
বোঝে না সে দ্রাঘিমা জুড়ে দীর্ঘশ্বাসের ‘শেল’।
 



রোদের মেয়ে বৃষ্টি বোঝে না
রোদের মেয়ে বৃষ্টি বোঝে না পাথরেই অলঙকার
বৃষ্টির মেয়ে সবুজের খোঁজে হায় হায় হাহাকার
ভ্রুণের চাষেই ভিন্ন বিবেক বোঝে না তাবৎ তফাত
রোদ বৃষ্টির মিলনেই হোক সৃষ্টিরা বার বার।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.