(নন্দিত কথাশিল্পি-হুমায়ূন আহমেদ স্মরণে)
আজিম আকাশ

কী আর হবে রাশি রাশি ব্লগে
দু’চার পংক্তি গদ্য-পদ্যের রাশভারি করে?
নাম না জানা কত-শত ই-বুক আর
ভুরি ভুরি লিটলমেগ এর তড়িঘড়ি সয়লাব;
পারবে কি সৃজনশীলতার মিথ্যে ক্যানভাসে
আরেকটি হুমায়ূন সৃজন করতে?
যে গেছে সে-তো ধারিত্রীর কোল জুড়ে-
রেখে গেছে বুক ফাঁটা আর্তনাদ;
সাহিত্যের শিল্পাকাশ, আচ্মকা শূন্যতায়-
পাঠক হৃদয় আজ, এক সাগর বিষাদ।

পৃথিবীর তাবৎ নিয়ম এমনই
প্রিয়জন হারানোর মর্মাহত ব্যথায়,
আজ আর ব্যথিত নয় ততটা;
ঠিক যেমনটি ছিল এতকাল-
শোকাহত মানুষের হদয়ে যতটা।
দু’চার সপ্তাহ হাইলাইট করা-
কান্নার ঢেউ তুলে নিমিষেই যায় থেমে,
সময়ে-অসময়ে মিডিয়ার-
কত না কসরত চলে,
ছকে বাঁধা সময়ের দায়বদ্ধতায়;
তবুও গোটা দেশবাসীর কাছে
শোকবার্তা পাঠাতে মিডিয়া-
অশেষ ভূমিকা রাখে নির্দিদ্ধায়।

তারপর আপন আপন যাপীত জীবন
চলে চক্রাকারে স্ব-নিয়মে,
যে গেছে, সে-তো চলে গেছে-
পৃথিবী থেকে চির লীন হয়ে;
হয়তো পড়বে মনে তাকে, আবার-
তার রচিত কোন গ্রন্থের পৃষ্ঠার ভাঁজে ভাঁজে
কিংবা বছর ঘুরে কোন এক শোক স্মৃতিচারণে।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.