সাময়িকী.কম
ঈর্ষা ও হিংসা মানুষের মনের সৌন্দর্য পুরোপুরি নষ্ট করে দেয়। একজন ঈর্ষান্বিত মানুষ অনেক বেশি মাত্রায় নিয়ন্ত্রণবিহীন হতে পারেন। ঈর্ষায় ভুগে তারা কী করে বসেন তার কোনো ঠিক থাকে না। মনের এই কুৎসিত রূপটি আসলেই অনেক ভয়ানক।
একজন ঈর্ষান্বিত প্রেমিকাকে নিয়ে কেউ কখনোই সুখী হতে পারেন না। কারণ তার মধ্যে সব সময়েই এই ঈর্ষা কাজ করবে এবং সেই ঈর্ষা থেকে আপনাকে সন্দেহ করার প্রবনতাও দেখতে পাবেন। কিন্তু কীভাবে বুঝবেন আপনার প্রেমিকা অতিরিক্ত মাত্রায় ঈর্ষান্বিত কিংবা হিংসুটে প্রকৃতির কিনা? কীভাবে বুঝবেন ভবিষ্যৎ জীবনে তিনি আপনাকে সারাক্ষণ সন্দেহ ও আপনার জীবন নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করবেন কিনা? চলুন তবে দেখে নিন লক্ষন সমূহ।

তিনি আপনার মুখে অন্য কোনো মেয়ের কথা একেবারেই শুনতে পারেন না

আপনার প্রেমিকার কাছে যদি কখনো অন্য কোনো মেয়ের নামে কিছু বলার ফলাফলে যদি আপনাদের ঝগড়া হয়ে থাকে তবে এই ব্যাপারে সাবধান। তিনি যদি আপনাকে নিয়ে বেশি মাত্রায় ঈর্ষান্বিত হন তবে তিনি আপনার মুখে অন্য কোনো মেয়ের নাম শুনতে চাইবেন না যতোই তিনি আপনার বান্ধবী হোন না কেন। এটি অনেক খারাপ, কারণ তিনি যে কোনো সময়ে যে কাউকে নিয়ে আপনাকে সন্দেহ করতে পারেন।

তিনি আপনাকে অন্য মেয়ের সাথে কথা বলা নিয়ে জেরা করেন

আপনার প্রেমিকা যদি আপনাকে কোনো মেয়ের সাথে কথা বলতে দেখা মাত্রই তাকে নিয়ে আপনাকে জেরা করেন এবং আপনাকে দোষারোপ করেন আপনি তার সাথে ফ্লার্ট করছিলেন তবে তিনি অবশ্যই অনেক বেশি মাত্রায় ঈর্ষান্বিত একজন প্রেমিকা। এই স্বভাবটি আপনাদের সম্পর্ককে বিষিয়ে তুলবে কিছুদিনের মধ্যেই।

যে সব সময়ে আপনাকে চোখের সামনে রাখতে চান

তার কথায় বা তার কাজে যদি আপনার মনে হয় তিনি আপনাকে সব সময় তার চোখের সামনে রাখতে চান তবে এই লক্ষণটি ভাল করে খেয়াল করুন। যদি সারাটি সময় আপনার সাথে থাকতে চাওয়া এবং আপনি দূরে কোথাও গেলে ফোনের পর ফোন দিয়ে আপনার প্রত্যেকটি খবর জানতে চাওয়া ঈর্ষার লক্ষণ। কেয়ার নেয়া এবং ঈর্ষা করা ও অবিশ্বাস করার মধ্যে পার্থক্য রয়েছে।

আপনার সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমে তার সব সময় নজর থাকে

আপনার প্রেমিকা যদি আপনাকে নিয়ে অতিরিক্ত মাত্রায় ঈর্ষান্বিত হয়ে থাকেন তবে তিনি আপনার সামাজিক যোগাযোগের সকল মাধ্যম ফেইসবুক, টুইটার ইত্যাদির ওপর কড়া নজর রাখবেন। আপনি কোনো ছবিতে লাইক দেন বা কমেন্ট করেন তা নিয়ে আপনার সাথে বিবাদে জড়িয়ে পরতে পারেন। এই ধরণের কাজও সম্পর্কের জন্য অত্যন্ত খারাপ।

তিনি আপনার বন্ধু বান্ধবের কাছ থেকে আপনাকে সরিয়ে নিতে চান

একজন ভালো মনের প্রেমিকা আপনার বন্ধুদের সাথে নিজেই বন্ধুত্ব করে নেবেন এবং চাইবেন আপনাদের বন্ধুত্ব অটুট থাকুক। কিন্তু আপনার ব্যাপারে যিনি অনেক বেশি ঈর্ষান্বিত তিনি আপনাকে সকল বন্ধু বান্ধবের কাছ থেকে সরিয়ে নিতে চাইবেন, বিশেষ করে মেয়ে বন্ধুদের কাছ থেকে। এর অর্থ তিনি আপনাকে পুরোপুরি বিশ্বাস করেন না এবং আপনার বন্ধু বান্ধবের সাথে সম্পর্ককে তিনি ঈর্ষা করেন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.