সাময়িকী.কম
বিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া আজ রোববার কাজী জাফরের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির ইফতারে যোগ দেন। ছবি: ফোকাস বাংলাবিএনপির চেয়ারপারসন খালেদা জিয়া জাতীয় সংসদকে ‘সংদের আড্ডাখানা’ বলে মন্তব্য করেছেন। তাঁর দাবি, সংসদে জনগণের সমস্যা নিয়ে কোনো আলোচনা হয় না। সেখানে গান, বাজনা ও কবিতা চলছে।
আজ রোববার কাজী জাফরের নেতৃত্বাধীন জাতীয় পার্টির ইফতারে যোগ দিয়ে খালেদা জিয়া এসব কথা বলেন। রাজধানীর গুলশানের একটি হোটেলে এই ইফতারের আয়োজন করা হয়।
খালেদা জিয়া সরকারের সঙ্গে আলোচনা চান। কিন্তু কথা বলে কোনো ফল পাওয়া যাবে না বলেও তিনি আশঙ্কা প্রকাশ করেন। তিনি বলেন, ‘আলোচনা না করলে আন্দোলনের মাধ্যমে সরকারকে বিদায় করা ছাড়া উপায় থাকবে না।’
খালেদা জিয়া বলেন, এ সরকারকে সরিয়ে একটি অবাধ, গ্রহণযোগ্য নির্বাচনের আয়োজন করতে হবে। এ জন্য প্রয়োজন আন্দোলন। ঈদের পর আন্দোলনের প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য তিনি আবারও আহ্বান জানান। তাঁর অভিযোগ, দেশে প্রতি পদে পদে মানবাধিকার লঙ্ঘিত হচ্ছে। কারও কোনো নিরাপত্তা নেই। প্রতিনিয়ত হত্যা, গুম-খুন চলছে। মানুষ বন্দিদশায় আছে। একই সঙ্গে তিনি যোগ করলেন, জোট ১৮ দল থেকে প্রথমে ১৯, এখন ২০ দলে রূপান্তরিত হয়েছে। আরও অনেকে যোগ দেওয়ার জন্য যোগাযোগ করছে।
অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন জাতীয় পার্টির এই অংশের সভাপতি কাজী জাফর আহমেদ। অন্যদের মধ্যে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর, স্থায়ী কমিটির সদস্য আর এ গণি, আবদুল মঈন খানসহ বিএনপির নেতৃত্বাধীন জোটের শরিক দলগুলোর নেতারা অংশ নেন।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.