সাময়িকী.কম
সিনেমা মানুষের মনের কথাকেই পর্দায় ফুটিয়ে তোলে। উঁচু-নীচুর ভেদাভেদ ভুলে সর্বস্তরের মানুষের মনের অনুভূতিগুলোকে জোড়া লাগায় সিনেমা আর ছুঁয়ে যায় সবার হৃদয়। সিনেমার অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরকে দেখলে আমরা হাসি, কাঁদি, সিদ্ধান্ত নেই, ভাবতে শিখি। অনেকসময় ভালোবাসতেও শিখি আমরা সিনেমা দেখে। সবার ভালোবাসার গল্পে প্রত্যেকেই নিজে হতে চায় তার পছন্দের ছবিটির পাত্র-পাত্রীদের মতন। চায় তার সঙ্গীটিও হবে ঠিক ছবির নায়ক-নায়িকার মতন। আর তাদের ভালোবাসার গল্পটি হবে একেবারে সিনেমার মতন সাজানো-গোছানো, সুন্দর আর পরিপূর্ণ।
কিন্তু সিনেমায় কেবল ভালোবাসার কথাই থাকে না। থাকে বিচ্ছেদও। আর তাই মাঝে মাঝে সিনেমার মতন আমাদের বাস্তব জীবনেও চলে আসে বিচ্ছেদ। সিনেমা কেবল ভালোবাসতেই সাহায্য করে তা নয়। ভালোবাসায় কষ্ট পেলে কি করে সেটাকে দূর করে নিজের জীবনকে সামনে এগিয়ে নিয়ে যেতে হবে সেটাও শেখায় আমাদের পর্দার কাহিনী। সত্যিই এমন কিছু ছবি আছে যেগুলো দেখলে ব্রেক-আপের কষ্ট সাময়িকভাবে হলেও চলে যাবে দূরে। আপনি হয়তো খুঁজে পাবেন নিজের কাহিনীর সাথে মিলও!

১. লাভ কা দি এন্ড-

মাত্র যারা ব্রেক-আপের মুখোমুখি হয়েছেন, বিশেষত নারীদের জন্য বেশ কার্যকরী ছবি এটি। ছবিটিতে অভিনয় করেছেন আশিকি২ খ্যাত শ্রদ্ধা কাপুর। বাম্পি পরিচালিত ছবিটিতে প্রেমিক তাহা শাহের প্রতি প্রতিশোধপরায়ণ শ্রদ্ধার আচরণ দেখলে বেশ নড়ে চড়ে বসবেন মন ভেঙে যাওয়া মেয়েরা এ কথা চোখ বন্ধ করেই বলে দেওয়া যায়।

২. যাব উই মেট-

শুধুমাত্র ভালোবাসার ছবি নয় এটি। ভালোবাসার বাইরে গিয়েও জীবন সম্পর্কে আরো অনেক কিছু শেখার আছে এখান থেকে। একজন হৃদয় ভেঙে যাওয়া মানুষ কীভাবে নতুন করে নিজের স্বপ্নের পথে হাঁটতে পারবেন সেটার পুরোটাই নিজের ছবির মাধ্যমে সবাইকে শেখানোর চেষ্টা করেছেন পরিচালক ইমতিয়াজ আলী। ছবিটিতে নায়ক শহীদ কাপুরের প্রেমিকা তাকে ছেড়ে দেবার পরেও সে আবার উঠে দাড়ায়। আর তাকে এজন্য সাহায্য করে নায়িকা কারিনা। তবে একটা সময় কারিনাও ব্যর্থ হয় নিজের ভালোবাসাকে পেতে। আর তখনই শহীদ কাপুর বন্ধু হয়ে তার পাশে দাড়ায়। সামলাতে সাহায্য করে কারিনাকে। এমনকি প্রায় নিভে যাওয়া কারিনা কাপুরকে আবার আগের মতন প্রাণবন্ত করে তোলে শহীদ। ছবিটি একবার দেখলে মনে হয় না পেছনে ফেলে আসা সময়গুলোকে নিয়ে খুব একটা আর ভাবতে ইচ্ছে করবে আপনার।

৩. পেয়ার কা পঞ্চনামা-

একলা সময়ই জীবনের সবচাইতে শ্রেষ্ঠ সময়। যতক্ষণ পর্যন্ত একলা আছেন ইচ্ছেমতন বন্ধুদের সাথে আড্ডা, ঘুমানো, কথা বলা, ঘুরতে যাওয়া- সবকিছু মিলবে। আর দোকলা হয়েছেন কি..... বিশ্বাস হচ্ছেনা? এই ছবিটি দেখুন। এরপর একবারো আপনার ইচ্ছে করবেনা আগের জীবনে ফিরে যেতে। যে চলে গিয়েছে তাকে যেতে দিন। অতিরিক্ত ভালোবাসার কারণে পাগল প্রেমিকার সব আচরণ সয়ে মুখ বুঁজে চলতে থাকা এই ছবির নায়ককে দেখলে আপনার আর ফিরতেই ইচ্ছে করবেনা নিজের দোকলা জীবনে।

৪. লাভ আজকাল-

ব্রেকআপ যে আজকালকার জীবনে তেমন কিছুই নয় এবং সত্যিকারের ভালোবাসা কখনোই দূরে সরে যায়না সেটা বুঝতে হলে আপনাকে দেখতে হবে সাইফ আলী খান ও দিপীকা পাড়ুকোন অভিনীত লাভ আজকাল ছবিটি। দুজন কাজপাগল মানুষের গল্প এটি। কাজের জন্য নিজেদের ভালোবাসা থেকে দূরে যাওয়া দুজন মানুষকে দেখনো হয়েছে এখানে। দিনশেষে যারা ঠিক আবার নিজেদের কাছেই ফিরে আসে। আর তাই মন না খারাপ করে উঠে বসুন। দেখুন ছবিটি। ঠিক বুঝতে পারবেন যে এটাই জীবনের শেষ নয়। যে আসবার সে ঠিকই আসবে। সেটাকে নিয়ে চিন্তা করে সময় নষ্ট করার কোন মানেই হয়না।

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.