সাময়িকী.কম
কানাডায় নিযুক্ত বাংলাদেশের হাই কমিশনার কামরুল আহসান ৫ জুন২০১৪ তারিখে কানাডার পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ সিনেটের স্পীকার নোয়েল কিনসেলার সাথে রাজধানী অটোয়ার পার্লামেন্ট হিল অফিসে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন। এ সময় বাংলাদেশ ও কানাডার মধ্যকার দ্বি-পাক্ষিক স্বার্থসংশ্লিষ্ট বিভিন্ন বিষয়ে ফলপ্রসু আলোচনা হয়। 

আলোচনাকালে হাই কমিশনার কামরুল আহসান বাংলাদেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতিকানাডার সাথে দেশটির ক্রমবর্ধিঞ্চু দ্বি-পাক্ষিক বাণিজ্য এবং ভবিষ্যত উন্নয়ন সহযোগিতার বিষয়ে আলোকপাত করেন। তিনি বলেনবর্তমানে বাংলাদেশের সাথে কানাডার দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ১.৮ বিলিয়ন ডলারের উপরযার মধ্যে কানাডায় বাংলদেশের রপ্তানী এক বিলিয়ন ডলারের বেশী এবং বাংলাদেশে কানাডার রপ্তানী অর্ধ-বিলিয়ন ডলার। বিদ্যমান তৈরি পোশাক শিল্পে অধিকতর বাণিজ্যের পাশাপাশি ভবিষ্যতে জাহাজ নির্মাণহালকা প্রকৌশল শিল্প এবং বাংলাদেশের উচ্চশিক্ষিত প্রকৌশলী ও দক্ষ শ্রমিক নিয়োগে এগিয়ে আসার জন্য কানাডার প্রতি আহ্বান জানান। বর্তমানে বাংলাদেশ ডেনমার্কনেদারল্যান্ড ও নিউজিল্যান্ডসহ পৃথিবীর বিভিন্ন দেশের জন্য জাহাজ নির্মাণ করছে উল্লেখ করে তিনি কানাডায়ও জাহাজ রপ্তানীর বিষয়ে আগ্রহ প্রকাশ করেন। কানাডার বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ে বাংলাদেশের ছাত্রদের ভর্তির সুযোগের ক্ষেত্র সম্প্রসারণের জন্য ভিসা প্রক্রিয়া সহজতর করার বিষয়ে বাংলাদেশের হাই কমিশনার গুরুত্ব আরোপ করেন।


জবাবে সিনেট স্পীকার কিনসেলা কানাডায় বাংলাদেশের ছাত্রদের ভর্তির ক্ষেত্রে ভিসা শিথিলকরণে সর্বাত্মক সহযোগিতার আশ্বাস প্রদান করেন। তাঁর নিজস্ব এলাকা নিউ ব্রান্সউইকের চারটি বিশ্ববিদ্যালয়সহ কানাডার ৯৬টি বিশ্ববিদ্যালয়ের সবকটিতেই ভবিষ্যতে আরও অধিক হারে বাংলাদেশী ছাত্র ও গবেষকরা উচ্চশিক্ষার সুযোগ পাবেন মর্মে তিনি আশা প্রকাশ করেন। সমগ্র উত্তর আমেরিকায় ব্যবসা বাণিজ্যের ক্ষেত্রে কানাডার পূর্ব-উপকূলের প্রসিদ্ধ হ্যালিফ্যাক্স সমুদ্র বন্দরের সুবিধা গ্রহণে বাংলাদেশের ব্যবসায়ীদের উদ্বুদ্ধকরণে বাংলাদেশ হাইকমিশনারের সহযোগিতা প্রত্যাশা করেন স্পীকার কিনসেলা। বাংলাদেশের গণতন্ত্র চর্চায় জাতীয় সংসদের গুরুত্বের কথা তুলে ধরে কানাডার সিনেট স্পীকার দুদেশের সংসদ সদস্যদের মধ্যকার বিদ্যমান সৌহার্দ্যপূর্ণ সম্পর্কের বিষয়ে সন্তোষ প্রকাশ করেন। ভবিষ্যতে বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ সচিবালয়ের কর্মকর্তাদের কানাডার পার্লামেন্টে প্রশিক্ষণের বিষয়ে উদ্যোগ গ্রহণ করবেন বলে তিনি বাংলাদেশের হাই কমিশনারকে জানান।


বৈঠকে কানাডার স্পীকারের দপ্তরের কর্মকর্তাবৃন্দসহ নিউ ব্রান্সউইকের সেইন্ট টমাস ইউনিভার্সিটির ভাইস প্রেসিডেন্ট জেফ রাইট যোগদান করেন। বাংলাদেশ হাই কমিশনার কামরুল আহসানের সাথে বৈঠকে আরো উপস্থিত ছিলেন কাউন্সিলর ইশরাত আহমেদকাউন্সিলর রাহাত জামান এবং প্রথম সচিব (বাণিজ্যিক) দেওয়ান মাহমুদ।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.