সাময়িকী.কম
প্রেমে পড়েছেন মাত্রই। সবে মাত্র ডেট করা শুরু করেছেন। কয়েকবার এর বেশি দেখাও হয়নি আপনাদের। প্রেমের সবচাইতে মিষ্টি সময়টাই এটা। প্রেমের শুরুর দিকের ডেটিং করার এই সময়গুলো একবার চলে গেলে আর কখনই ফিরে যাওয়া যায় না। কিন্তু অনেকেই হঠাৎ প্রেমে পড়ার আবেগ সামলাতে না পেরে না বুঝেই নানান রকম ভুল কাজ বা ভুল আচরণ করে ফেলে যা একেবারেই উচিত নয়। এসব ভুল আচরণ/কাজের ফলে সম্পর্কেও সৃষ্টি হয় টানাপোড়েন। ফলে নতুন জড়ানো এই মিষ্টি সম্পর্কটা নিমিষেই তেতো হয়ে যায়।
ছেলেরা নাহয় হুটহাট ডেটিং করতে চলেই গেলেন। কিন্তু একটা মেয়ের ভেবে দেখে উচিত অনেক কিছু। কেননা আজকাল শুরু হয়েছে নানান রকম চক্রান্ত, প্রতারণার ফাঁদ ছড়িয়ে আছে পদে পদে। ভালোবাসেন ভালো কথা, কিন্তু তাই বলে চোখ বুঝে আগেপিছে কিছু না ভেবে চলে যেন প্রেমিকের ডাকে? কিংবা বাসায় কী বলবেন? এসব প্রশ্নের জবাব নিয়ে এই ফিচার। ডেটিং-এ যাবার আগে মেয়েদের যা যা ভেবে দেখা উচিত জেনে নিন এক ঝলকে।

নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করুন

ডেটিং করার পূর্বে নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত করাটা খুবই জরুরি। কারণ প্রেমের সম্পর্কের শুরুতেই কাউকে অন্ধ বিশ্বাস করা উচিত নয়। যেই মানুষটির সাথে আপনার সম্পর্কটাই খুব বেশিদিনের নয় তাকে না জেনে পুরোপুরি বিশ্বাস করাটা বোকামি ছাড়া আর কিছুই না। বিশেষ করে নারীরা নিজের নিরাপত্তা নিশ্চিত না করে ডেটিং এ যাবেন না কখনোই।

ডেটিং এর ভুল স্থান নির্বাচন করবেন না

ধরুন আপনি চাইছেন কোনো কফি শপে আড্ডা দিতে, আর আপনার প্রেমিক চাইছে নিজের বাসায়, বন্ধুর বাসায় অথবা একেবারে নির্জন কোথাও যেতে। এমন পরিস্থিতিতে কি করবেন আপনি? এমন পরিস্থিতি সৃষ্টি হলে অবশ্যই স্থান পরিবর্তন করে ফেলুন। কারণ এই ধরনের সম্পর্ক আপনার জন্য বিপদজনক হতে পারে। তাই ডেটিং এর জন্য একেবারে নিরিবিলি স্থান নির্বাচন না করে একটু জনসমাগম আছে এমন স্থান ঠিক করুন।

পরিবারকে কৌশলে সামলে নিন

খুব স্বাভাবিক ভাবেই নতুন প্রেমে পড়লে পরিবার বুঝে গেলো কিনা সেটা নিয়ে ভয়েই অস্থির হয়ে থাকতে হয়। এক্ষেত্রে কিছুটা বুদ্ধিমত্তা ও কৌশলী হওয়া প্রয়োজন। প্রেমের শুরুতেই যদি পরিবারের কাছে ধরা পড়ে যান তাহলে আপনার এই মধুর সম্পর্কের পরিণতি খুব একটা ভালো হওয়ার কথা নয়। প্রেমের একদম শুরুতেই সম্পর্কটা ভেস্তে যেতে পারে।

অনৈতিক কাজ

প্রেমের সম্পর্কটা যতই গভীর হতে থাক না কেন কোনো পরিস্থিতিতেই শারীরিক বা মানসিক ভাবে অনৈতিক কোনো কাজ করা উচিত হবে না। শারীরিক এবং মানসিক আবেগকে নিয়ন্ত্রণে রেখে দুজনের সম্পর্কটাকে সুন্দর ভাবে এগিয়ে নিয়ে গেলেই শুধু মাত্র সম্পর্কের ক্ষেত্রে সফলতা লাভ করা সম্ভব। অন্যথায় সেই সম্পর্কের পরিণতি খুব একটা সুফল বয়ে আনবে না।
মডেল: মহিতা মল্লিক, মুরাদ

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.