বেশ তোড় জোর করেই চলছে বিশ্বকাপের প্রস্তুতি। ইতিমধ্যেই নিজের ঘরবাড়িকে ব্রাজিল-আর্জেন্টিনার ঘাঁটি বানিয়ে ফেলেছেন অনেকেই পতাকা টানিয়ে। কেউ কেউ আবার সাপোর্ট করছেন জার্মানি, ইতালি অথবা স্পেন। যে যাই সাপোর্ট করুক এবার ফ্যাশনে ওয়ার্ল্ডকাপের প্রভাবটা কিন্তু বেশ লক্ষ্য করার মতই। অনেকেই প্রিয় দলের জার্সি পরছেন স্কুল, কলেজ, অফিস কিংবা আড্ডায়। বিশেষ করে জার্সির ফ্যাশনটাকে এবার সাদরে গ্রহণ করেছেন মেয়েরাও। শুধু কি জার্সি পরলেই ফ্যাশন সম্পূর্ন হবে? চাই আরো কিছু বিষয় যেগুলো আপনার বিশ্বকাপ উত্তেজনাকে পরিপূর্নতা দেবে।
সাজে বিশ্বকাপের আমেজ নিয়ে আসতে এবং ফ্যাশনে নতুনত্ব আনতে এই বিশ্বকাপে নখ গুলোকে রাঙিয়ে ফেলুন প্রিয় দলের পতাকার রঙে। এবার বিশ্বকাপের ফেভারেট ৫টি টিমের জন্য বেশ কিছু নেইল আর্টের ডিজাইন দেখুন ছবিতে।
এইবার বিশ্বকাপটা যেহেতু ব্রাজিলেই হচ্ছে তাই ব্রাজিল এবারের বিশ্বকাপের ফেভারেট টিম। আপনার প্রিয় দল যদি ব্রাজিল হয়ে থাকে তাহলে সবুজ, সাদা, হলুদ ও নেভিব্লু রং এর নেইল পলিশ কিনে ফেলুন এখনই। কারণ প্রিয় দলের পতাকার ডিজাইনে নেইল আর্টের জন্য আপনার প্রয়োজন হবে এই নেইলপলিশ গুলো।
আপনি যদি আর্জেন্টিনার সাপোর্টার হয়ে থাকেন তাহলে আপনার প্রয়োজন নীল ও সাদা। সেই সঙ্গে একটু সোনালী বা হলুদও ব্যবহার করতে পারেন মাঝের সূর্যটা দিতে চাইলে।
জার্মানী টিমের ভক্তরা বেশ সহজেই করে ফেলতে পারবেন বিশ্বকাপের নেইল আর্ট। লাল হলুদ ও কালো রং দিয়ে নেইলপলিশের তিনটি স্ট্রোক পাশাপাশি দিলেই হয়ে যাবে জার্মানীর পতাকার নেইল আর্ট।
আর যদি আপনি ইতালির ভক্ত হয়ে থাকেন তাহলেও নেইল আর্টের বিষয়টি বেশ সহজ আপনার জন্য। সবুজ,সাদা ও লাল এই তিনটি রং কিনে ফেলুন এখনই। মাত্র ৩ স্ট্রোকেই করে ফেলতে পারবেন নেইল আর্ট।
স্পেন সাপোর্টারদের বেশ সুবিধাই হবে নেইল আর্ট করতে। কারণ লাল আর হলুদ নেইল পলিশ নিশ্চয়ই ঘরেই আছে? তবে মাঝের কালো নকশাটা করা বেশ কঠিন হবে। চাইলে সেটা বাদ দিয়েও প্রতীকী পতাকা একে নিতে পারেন। ব্যতিক্রম নিয়ে আসার জন্য একটি নখে পতাকা একে বাকি গুলোতে ফুটবল একে দিতে পারেন।
বিভাগ:

Author Name

যোগাযোগের ফর্ম

নাম

ইমেল *

বার্তা *

Blogger দ্বারা পরিচালিত.